সর্বশেষ আপডেট : ২ মিনিট ১৫ সেকেন্ড আগে
মঙ্গলবার, ৬ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

জামিনে পলাতক বঙ্গবীর কাদের সিদ্দিকী

kader-siddiki-lg20160831123805নিউজ ডেস্ক::
প্রকাশ্যে মিছিল মিটিং করে বেড়ালেও মানহানি মামলায় জামিনে পলাতক বঙ্গবীর কাদের সিদ্দিকীর (বীরউত্তম)। তার বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি হওয়ার পরও তিনি জামিন নিতে আদালতে হাজির হননি এবং আইন শৃঙ্খলাবাহিনীও তাকে গ্রেফতার করতে পারেনি।

২০১৪ সালের ১১ নভেম্বর কাদের সিদ্দিকী আদালতে হাজির না হওয়ায় তাকে জামিনে পলাতক দেখিয়ে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেন ঢাকা মহানগর হাকিম আলী মাসুদ সেখ।

২০১৪ সালের ১২ নভেম্বর আদালত থেকে কাদের সিদ্দিকীর বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানটি তার মোহাম্মদপুরের ঠিকানায় পাঠিয়ে দেন অত্র কোর্টের সহকারী বাচ্ছু, যার স্বারক নং ৬০, ৬১ ও ৬২।

২০১৩ সালের ১৮ মার্চ ঢাকা মহানগর হাকিম সাইফুর রহমান কাদের সিদ্দিকীর জামিন মঞ্জুর করেন। জামিন মঞ্জুর হওয়ার পর থেকে এ পর্যন্ত তিনি আদালতে হাজির হননি।

মোহাম্মদপুর থানার পরিদর্শক (ওসি) জামাল উদ্দিন মীর বলেন, বঙ্গবীর কাদের সিদ্দিকীর (বীর উত্তম) বিরুদ্ধে যে ঠিকানায় গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করা হয়েছে সে ঠিকানায় তাকে পাওয়া যায়নি। যেহেতু তাকে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি হওয়ার ঠিকানায় পাওয়া যায়নি সেহেতু তাকে গ্রেফতার করা যায়নি। তিনি আইনের চোখে পলাতক রয়েছেন।

বর্তমানে মামলাটি ঢাকা মহানগর হাকিম আলী মাসুদ সেখের আদালতে বিচারাধীন রয়েছে। আগামী ৬ নভেম্বর চার্জ গঠনের দিন ধার্য রয়েছে।

মামলার এজাহার থেকে জানা যায়, ২০১৩ সালের ৯ ফেব্রুয়ারি ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউটে কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের দ্বি-বার্ষিক সম্মেলনে বক্তব্যকালে কাদের সিদ্দিকী তৎকালীন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী মহীউদ্দীন খান আলমগীরকে উদ্দেশ্য করে বলেন, ‘রাজাকার স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রেখে যুদ্ধাপরাধীর বিচার সম্ভব নয়।’

বঙ্গবীর বলেন, ‘৭১ সালে ম খা আলমগীর ময়মনসিংহের এডিসি ছিলেন। রাজাকারদের পক্ষে কাজ করেছেন তিনি, আমি তার সাক্ষী।’

ড. মহীউদ্দীন খান আলমগীরকে সামাজিক, মানসিক, আর্থিক ও সাংগঠনিকভাবে হেয় প্রতিপন্ন করার জন্য সম্পূর্ণ উদ্দেশ্যমূলকভাবে কাদের সিদ্দিকী এ বক্তব্য দিয়েছেন বলে অভিযোগ করেন মুক্তিযোদ্ধা রুহুল আমিন মজুমদার। এ বক্তব্যের পরিপ্রেক্ষিতে তিনি ২০১৩ সালের ১০ ফেব্রুয়ারি বীর মুক্তিযোদ্ধাদের কল্যাণমূলক প্রতিষ্ঠান ন্যাশনাল এফ এস ফাউন্ডেশনের মাধ্যমে লিখিত প্রতিবাদ ও উকিল নোটিশ পাঠান।

কিন্তু কাদের সিদ্দিকী উকিল নোটিশের কোনো উত্তর না দেওয়ায় রুহুল আমিন মজুমদার ওই বছর ১৯ ফেব্রুয়ারি ঢাকা মহানগর আদালতে দুইশত কোটি টাকার মানহানি মামলা করেন।

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: