সর্বশেষ আপডেট : ৫ মিনিট ৪৮ সেকেন্ড আগে
বুধবার, ৭ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

নিখোঁজের ১৩ মাস পর যুবলীগ নেতার কঙ্কাল উদ্ধার

Comilla120160830142516নিউজ ডেস্ক:
নিখোঁজের ১৩ মাস পর কুমিল্লার দেবিদ্বার পৌর যুবলীগের সহ-সভাপতি এটিএম তারিকুল ইসলাম টিটুর মাথার খুলি ও হাড়সহ গলিত মরদেহের সন্ধান পেয়েছে জেলা গোয়েন্দা শাখা (ডিবি) পুলিশ।

ডিবি পুলিশের উপপরিদর্শক (এসআই) মো. শাহ কামাল আকন্দের নেতৃত্বে কুমিল্লা মহানগরীর ঠাকুরপাড়ার একটি বাড়ির সেপটিক ট্যাংক থেকে মঙ্গলবার দুপুর পৌনে ১টায় মরদেহটির সন্ধান পাওয়া যায়। সকাল থেকে র্যাব, ডিবি, থানা পুলিশসহ গোয়েন্দা সংস্থার সদস্যরা ওই স্থানটি ঘিরে রেখেছে।

নিহত টিটু জেলার দেবিদ্বার পৌর এলাকার বানিয়াপাড়া এলাকার আবু তাহের মাস্টারের ছেলে।

জেলা ডিবি পুলিশের উপপরিদর্শক (এসআই) মো. শাহ কামাল আকন্দ জানান, তারিকুল ইসলাম টিটু ২০১৫ সালের ২ জুলাই নিখোঁজ হন। এ ঘটনায় তার স্ত্রী সেলিনা আক্তার শোভা ওই বছরের ১৩ জুলাই জেলার দেবিদ্বার থানায় সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেন। কিন্তু টিটুর সন্ধান না পেয়ে চলতি বছরের ৮ মার্চ টিটুর মা রাজিয়া সুলতানা আদালতে মামলা দায়ের করেন। পরে মামলাটি তদন্তের দায়িত্ব পায় জেলা ডিবি পুলিশ।

গত রোববার রাতে সন্দেহভাজন আসামি নগরীর চিহ্নিত সন্ত্রাসী সফিকুল ইসলাম লিমনকে গ্রেফতার করার পর টিটুকে হত্যার করে মরদেহ গুম করে রাখার তথ্য বেরিয়ে আসে। সন্ত্রাসী লিমন ও তার সহযোগী হৃদয়সহ আরও কয়েকজন ২ জুলাই গভীর রাতে নগরীর ঠাকুরপাড়া শ্মশানঘাটে টিটুকে গুলি করে হত্যার পর প্রথমে একটি পরিত্যক্ত বাড়িতে মাটি চাপা দেয়। এর কয়েক দিন পর পাশের একটি সেপটিক ট্যাংকে মরদেহ ফেলে দেয়।

তার স্বীকারোক্তি অনুযায়ী গ্রেফতারকৃত অপর আসামি হৃদয়কে নিয়ে পুলিশ মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে ঠাকুরপাড়া বড় মসজিদের পাশের একটি পরিত্যক্ত বাড়িতে মরদেহের সন্ধানে অভিযান শুরু করে। ওই বাড়ির একটি সেপটিক ট্যাংকের পানি নিষ্কাশনের পর মরদেহের সন্ধান পাওয়া যায়।

ডিবি পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) একেএম মনজুর আলম জানান, দুপুর পৌনে ১টায় ওই সেপটিক ট্যাংকে যুবলীগ নেতা টিটুর পরণের একটি গেঞ্জি, মাথার খুলি ও দেহের বিভিন্ন অংশের হাড় পাওয়া যায়।

ঘটনাস্থলে কুমিল্লার পুলিশ সুপার মো. শাহ আবিদ হোসেন, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আবদুল্লাহ আল মামুন, প্রথম শ্রেণির ম্যাজিস্ট্রেট ও আদর্শ সদর উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) মো. জামিরুল ইসলাম, কোতয়ালি মডেল থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আবদুর রব ঘটনাস্থলে রয়েছেন।

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: