সর্বশেষ আপডেট : ২৮ সেকেন্ড আগে
সোমবার, ২১ অগাস্ট, ২০১৭, খ্রীষ্টাব্দ | ৬ ভাদ্র ১৪২৪ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

বালাগঞ্জে শিক্ষক অপহরণের ঘটনায় মামলা: আসামিরা আত্মগোপনে

2. daily sylhet bochar newsবালাগঞ্জ প্রতিনিধি:
সিলেটের বালাগঞ্জে শিক্ষক অপহরণের ঘটনায় মামলা দায়ের করা হলেও আসামিরা রয়েছে অধরা। মামলা হওয়ার পর আসামিরা পুলিশের চোখ ফাঁকি দিয়ে আত্মগোপনে চলে গেছে। অপহরনের শিকার সুরঞ্জিত সুত্রধর উপজেলার এম ইলিয়াস আলী উচ্চ বিদ্যালয়ের সিনিয়র শিক্ষক। তিনি উপজেলার পুর্ব পৈলনপুর ইউনিয়নের জালালপুর (সাদেকপুর) গ্রামের প্রয়াত সুণীল সুত্রধরের ছেলে।

অপহরনের ঘটনায় শিক্ষক সুরঞ্জিত সুত্রধর বাদী হয়ে ২৪ আগষ্ট বালাগঞ্জ থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। মামলা নং-৩। মামলায় জালালপুর গ্রামের চুণু মিয়া (৪৫), মশর্^দ উল্লার ছেলে সাজু মিয়া (৪০), ময়না মিয়ার ছেলে ওয়েছ মিয়া (২৬) ও জগন্নাথপুর উপজেলার উত্তর ধাওরাই গ্রামের মৃত আলতাব মিয়ার ছেলে নজরুল ইসলামকে (৩২) এজাহার নামীয় সহ আরো কয়েকজনকে অজ্ঞাতনামা আসামী করা হয়েছে।

মামলার এজাহারে শিক্ষক সুরঞ্জিত উল্লেখ করেছেন-আসামী চুণু মিয়া ও শিক্ষক সুরঞ্জিত একই গ্রামের বাসিন্দা। ১৫ আগষ্ট স্কুল ছুটির পর আসামী চুনু মিয়া তার এক আত্মীয়ের বিদেশ যাওয়ার বিষয়ে কিছু জরুরী কাগজপত্র (ইংরেজীতে লেখা) দেখানোর কথা বলে কৌশলে শিক্ষক সুরঞ্জিতকে মোটর সাইকেলযোগে জগন্নাথপুর উপজেলার প্রত্যন্ত অঞ্চলের দুর্গম এলাকা হিসেবে পরিচিত উত্তর ধাওরাই গ্রামে নিয়ে যায়। সেখানে একটি নির্জন বাড়ীতে যাওয়ার পর অন্যান্য আসামিরা এসে শিক্ষক সুরঞ্জিতকে পানি পান করতে বলে। তাদের আচরন সন্দেহজনক মনে করে তিনি পানি পানে বিরত থাকেন।

তখন আসামীরা তাকে মেরে আহত করে তাঁর সাথে থাকা নগদ ৩হাজার টাকা ও একটি স্মার্ট ফোন ও বিকাশ একাউন্টের পিন নাম্বার জেনে নিয়ে একাউন্টে থাকা ১২শ টাকা ক্যাশ আউট করে নেয়। তখন সন্ধ্যা ঘনিয়ে আসে। আসামীরা তাকে গুম করে মুক্তিপণ আদায় করার পরিকল্পনা করে। শিক্ষক সুরঞ্জিত ঘরের মধ্যে অচেতন হয়ে পড়ে থাকতে দেখে আসামীরা ঘরের বাইরে গিয়ে বাইরের নির্জন এলাকার সার্বিক পরিস্থিতি পর্যবেক্ষন করে। এসময় সুরঞ্জিত ঘরের বেঁড়া ভেঙ্গে বের হয়ে দৌঁড়িয়ে ঐ এলাকা ছেড়ে পাশ^বর্তী গ্রামের একটি ছোট্ট দোকানে আশ্রয় নিয়ে বাড়ীতে ফোন করেন। পরে তাঁর বাড়ীর ও গ্রামের লোকজন গিয়ে তাকে উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য বালাগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ কমপ্লেক্সে ভর্তি করান।

বালাগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) তরিকুল ইসলাম তালুকদার বলেন- আসামিরা আত্মগোপনে আছে তাদেরকে গ্রেফতার করতে পুলিশ তৎপর রয়েছে।

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭, ০১৭১৭ ৬৮ ১২ ১৪ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: