সর্বশেষ আপডেট : ৪ ঘন্টা আগে
শনিবার, ১০ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ২৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

স্ক্র্যামজেট ইঞ্জিনের সফল উৎক্ষেপণ করল ভারত

isro-atv-launch_650x400_41472349621-550x338আন্তর্জাতিক ডেস্ক: সম্পূর্ণ দেশীয় প্রযুক্তিতে তৈরি যুগান্তকারী স্ক্র্যামজেট ইঞ্জিনের সফল পরীক্ষামূলক উৎক্ষেপণ করল ভারতীয় মহাকাশ গবেষণা সংস্থা ইসরো। এর ফলে, বিশ্বের হাতে গোনা কয়েকটি রাষ্ট্রের তালিকায় চলে এল ভারত।
রবিবার, অন্ধ্রপ্রদেশের শ্রীহরিকোটার সতীশ ধবন স্পেস সেন্টার থেকে ভোর ৬টা নাগাদ এই পরীক্ষামূলক উৎক্ষেপণ করা হয়। স্ক্র্যামজেট ইঞ্জিন নিয়ে আকাশে পাড়ি দেয় সলিড রকেট বুস্টার অ্যাডভান্সড টেকনলজি ভেহিকল (এটিভি)।
জানা গিয়েছে, টেস্ট-রকেটের ফ্লাইট টাইম বা আকাশে থাকার সময় ছিল ৩০০ সেকেন্ড। এর পরে রকেটটি শ্রীহরিকোটা থেকে প্রায় ৩২০ কিলোমিটার দূরে বঙ্গোপসাগরে পড়ে যায়।

৩০০ সেকেন্ডের মধ্যেই রকেটের বুস্টার স্টেজ, দ্বিতীয় স্টেজে সলিড রকেটের ইগনিশন, স্ক্র্যামজেট ইঞ্জিনের সময়মতো চালু হওয়া এবং সেকেন্ড স্টেজের সমাপ্তি সবকিছুই পরিকল্পনামাফিক হয়েছে বলে দাবি ইসরোর।
ইসরো জানিয়েছে, প্রথম উৎক্ষেপণেই ‘মাক ৬’ (শব্দের ৬ গুণ) গতি তোলে স্ক্র্যামজেট। উৎক্ষেপণের সময় ওজন ছিল ৩,২৭৭ কিলোগ্রাম। ইসরোর তরফে জানানো হয়, পরীক্ষাটি এতটুকুই ছিল। বলা হয়েছে, উৎক্ষেপণ ছোট হলেও, ভবিষ্যৎ গবেষণার নিরিখে তা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ।

এদিনের উৎক্ষেপণে কী পরীক্ষা করা হল? ইসরোর তরফে জানানো হয়েছে, এদিন যুগান্তকারী স্ক্র্যামজেট ইঞ্জিনের পরীক্ষা করা হয়েছে। যে কোনও রকেট ইঞ্জিনের প্রয়োজন হয় তরল জ্বালানি এবং অক্সিডাইজারের। অক্সিডাইজার জ্বালানিকে জ্বলতে সাহায্য করে।
অক্সিডাইজার হিসেবে ব্যবহার করা হয় অক্সিজেন। ফলে, প্রচলিত রকেটে উৎক্ষেপণের সময় জ্বালানি ও অক্সিজেন ভরতে হয়। এতে একদিকে যেমন রকেটের ভোট ওজন বেড়ে যায়, তেমনই বহন-ক্ষমতাও কমে যায়।
স্ক্র্যামজেট ইঞ্জিন থেকে অক্সিজেন টেনে নিতে সক্ষম। ফলে, আলাদা করে অক্সিজেন ভরতে হয় না। এতে, রকেটের ভর একদিকে যেমন কমে যায়, তেমনই রকেটের বহন-শক্তি বৃদ্ধি পায়। ফলে, উৎক্ষেপণের মোট খরচ অনেকটাই কমে যায়। তাই এই ইঞ্জিনকে ‘এয়ার-ব্রিদিং ইঞ্জিন’-ও বলা হয়।

বিশ্বে এপর্যন্ত এই স্ক্র্যামজেট ইঞ্জিনের সফল পরীক্ষা করেছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র (নাসা), রাশিয়া এবং ইউরোপীয় ইউনিয়ন। সেই তালিকায় যুক্ত হল ভারতের নাম।

ইসরোর এই সফল পরীক্ষায় শুভেচ্ছা জানিয়েছেন রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখোপাধ্যায় এবং প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। একটি অনুষ্ঠানে যোগ দেওয়ার জন্য এদিন বেঙ্গালুরুতেই ছিলেন রাষ্ট্রপতি। বার্তায় প্রণবমুখার্জী ইসরোর বিজ্ঞানীদের সাধুবাদ জানিয়েছেন।
শুভেচ্ছাবার্তা এসেছে প্রধামনন্ত্রীর তরফ থেকেও। মোদি বলেন, পরীক্ষার সাফল্যের নেপথ্যে বিজ্ঞানীদের নিরলস পরিশ্রম এবং নিষ্ঠা রয়েছে। সময়ে সময়ে বিজ্ঞানীরা ভারতের মাথা উঁচু করেছেন। সূত্র: এনডিটিভি, টাইমস অব ইন্ডিয়া

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: