সর্বশেষ আপডেট : ৩ ঘন্টা আগে
শুক্রবার, ৯ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

সমুদ্রের পানিতে কাচের জন্ম! (ভিডিও)

Glass-550x402নিউজ ডেস্ক: নর্দান ক্যালিফোর্নিয়ার ফোর্ট ব্রাঞ্চ এর কাছাকাছি একটি সৈকতে সে শহরের মানুষ পুরানো গাড়ির আবর্জনা থেকে শুরু করে রান্নাঘরের আবর্জনাও এই সৈকতে এসে ফেলে যেতেন। ১৯৪৯ সাল থেকে এই প্রক্রিয়া শুরু হয়। তখন থেকেই সব ময়লা-আবর্জনা এখানে ফেলা হয়।

১৯৬০ সালের প্রথম দিকে পানি কোয়ালিটি বোর্ড এর কর্মকর্তাগণ এ সৈকতের উপকূল পরিষ্কার করার কাজে নিয়োজিত হয়। সর্বপ্রথম বিষক্রিয়াজনিত আবর্জনা সরানোর উদ্দ্যেগ নেয়া হয়। সেখানে আবর্জনা ফেলতে নিষেধ করা হয়।
পরবর্তীতে ১৯৬৭ সালে সম্পূর্ণ আবর্জনা সরানো হয়। প্রায় অর্ধশত বছর আগে পরিষ্কার করা হলেও, এখনো সে স্থান অনেক পরিষ্কার রয়েছে এখনো। সেখানে যে কাচের টুকরা ছিল তা পানির স্রোতের সাথে সমুদ্রের মাঝে চলে গেছে। সৈকতের সুন্দর আবহাওয়া ও মনোরম দৃশ্য সেখানে পর্যটকদের আকৃষ্ট করে। সেই ময়লা-আবর্জনার কাচগুলো মনে হয় পলিশ হয়ে, কিনারায় চলে আসছে। কাচের টুকরাগুলো দেখতে ছোট ছোট পাথরের মত।

একেকটি একেক রং এ আচ্ছাদিত। এই প্রাকৃতিক সৌন্দর্যে সেখানে মানুষ অনেক আনন্দ উপভোগ করে। কাচের পার্কটি ম্যাককেরিচের রাজ্য পার্কের একটি অংশ। এ সৈকতটির আরও একটি কাহিনী রয়েছে। যেহেতু, এটি একটি বিশেষ ও ঐতিহাসিক অংশে অবস্থিত, তাই এর পিছনে অনেক রহস্য রয়েছে। ভারতীয় মেনদচিন সংরক্ষণ এর মধ্যে কাঁচের সৈকতটি এক নম্বর স্থানে রয়েছেন, পর্যটকদের মতে।
কাচর সৈকতের ঐতিহাসিক তাৎপর্য ও প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের কারণে পার্ক বিভাগের লোকজন এর সংরক্ষণ এর দায়িত্ব নিয়েছেন। তারা প্রাকৃতিক এই সৌন্দর্য, সম্পূর্ণ প্রাকৃতিকভাবেই সংরক্ষণ করছেন।

সরকারি ফোর্ট ব্রাজ্ঞ এর ওয়েবসাইটে জানান হয়, “বনরক্ষক টিম বর্তমানে জনগণদের এ বিষয়ে জানাচ্ছেন, যখনই সম্ভব হচ্ছে কাচগুলো সংগ্রহ করছে ও সামুদ্রিক কাঁচগুলোকে বাজেয়াপ্ত করছেন।”
সান ফ্রান্সিসকো থেকে তিন ঘণ্টার দূরত্বে এই সমুদ্র সৈকত অবস্থিত। এটি উত্তর দিকে অবস্থিত। এটা পর্যটকদের অনেক পছন্দের জায়গা। সেখানে যারা বসবাস করেন, তাদের জন্যও এ স্থানটি অনেক আকর্ষণীয়।

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: