সর্বশেষ আপডেট : ৯ মিনিট ৩৭ সেকেন্ড আগে
শুক্রবার, ২ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ১৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

কমলগঞ্জে বাড়িতে বাড়িতে নার্সারি

বিশেষ প্রতিনিধি::

সীমান্তঘেঁষা কমলগঞ্জ উপজেলায় নার্সারি ব্যবসায় ব্যাপক সাফল্য পেয়েছে স্থানীয়রা। সবুজ প্রকৃতি গড়ার কারিগর হিসাবে হাট-বাজারে, রাস্তার ধারে, গ্রামের বাড়িতে-বাড়িতে শোভা পাচ্ছে সবুজ গাছের চারার নার্সারি। বাণিজ্যিক ভিত্তিতে গড়ে ওঠা ছোট-বড় নার্সারির চারা বিক্রি করে অনেকেই সচ্ছল হয়েছেন। নার্সারি মালিকদের কেউ কেউ প্রশিক্ষিত। বাহারি রঙের ফুল, ফল, বনজ ও ঔষধি জাতের চারা উৎপাদন করা হচ্ছে এসব নার্সারিতে।
সরেজমিনে দেখা যায়, জমি ইজারা নিয়ে কিংবা নিজস্ব জমিতে নার্সারি গড়ে সফল হয়েছেন অনেকেই। বিগত কয়েক বছর ধরে বিদেশি প্রজাতির চারা দিয়ে নার্সারিসমূহ সরগরম থাকলেও এখন দেশীয় প্রজাতির বনজ, ফলদ, ঔষধি ও বিভিন্ন প্রজাতির ফুল গাছের চারা পাওয়া যাচ্ছে। দূর-দূরান্ত থেকে লোকজন এসব নার্সারি থেকে প্রচুর পরিমাণে চারা কিনে নিচ্ছেন। তবে এসব নার্সারি বিষয়ে কমলগঞ্জ বনরেঞ্জ অফিসে কোনো তথ্য পাওয়া যায়নি। এমনকি এসব নার্সারি মালিকদেরও কোনো ধরনের প্রশিক্ষণ বা পরামর্শও দেওয়া হচ্ছে না বলে নার্সারি মালিকরা জানান।
KAMALGANJ  NARSARYউপজেলার ছোট-বড় প্রায় শতাধিক নার্সারি রয়েছে। এরমধ্যে কমলগঞ্জ পৌরসভা, শমশেরনগর ও পতনউষার ইউনিয়নেই অধিক নার্সারি। এসব নার্সারির মাধ্যমে চা বাগানের শ্রমিকসহ স্থানীয় খেটে খাওয়া মানুষ খুঁজে নিয়েছেন আয়ের পথ। সঠিক পরিকল্পনার অভাবে সময়মতো চারা উৎপাদন ও বিক্রি করতে না পারায় কেউ কেউ নার্সারি ব্যবসা বন্ধ করে দিয়েছেন। তবে প্রতিটি নার্সারিতে বহিরাগত প্রজাতির চারা উৎপাদনের প্রাধান্য পাচ্ছে।
অনুসন্ধানে জানা যায়, বাইরে থেকে আসা যেসব প্রজাতির গাছ জনস্বাস্থ্য ও পরিবেশের ওপর বিরূপ প্রভাব তৈরি করছে, সেসব প্রজাতির চারা উৎপাদন হচ্ছে। বাংলাদেশ বন গবেষণা ইন্সটিটিউটের কোনো অনুমোদন ছাড়াই এসব গাছ দিয়ে নার্সারি ও কৃত্রিম বনায়নে উৎসাহ যোগানো হচ্ছে।
শমশেরনগরের শাহিন নার্সারির মালিক আশিক মিয়া বলেন, চারা উৎপাদনে ইউক্যালিপটাস চারা ব্যতীত অন্য কোনো চারার ক্ষতিকর দিক সম্পর্কে তাকে ধারণা দেওয়া হয়নি। তাদের মতে, আকাশমনি, ইউক্যালিপটাস, বেলজিয়াম গাছের পাতা ঝরে পড়লে সেসব স্থানে ধান জন্মে না। তবে এ সম্পর্কে কেউ তাদের পরামর্শ দেয়নি।
পতনউষার নার্সারির মালিকরা বলেন, তাদের নার্সারিগুলোতে বিদেশি প্রজাতির আকাশমনি, বেলজিয়াম এ ধরনের চারার সংখ্যাই অধিক। এগুলোর সাথে দেশি জাতের আম, জাম, কাঁঠাল, লেবু, পেয়ারা, জলপাই, পেঁপে, নিম ও আগরসহ কিছু কিছু ঔষধি গাছের চারা রয়েছে।

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: