সর্বশেষ আপডেট : ২ মিনিট ১০ সেকেন্ড আগে
সোমবার, ৫ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

কুলাউড়ায় বধ্যভূমিতে নির্মিত স্মৃতিসৌধ রক্ষার দাবিতে মানববন্ধন

unnamed (6)কুলাউড়া অফিস:
কুলাউড়া উপজেলার রবিরবাজারে বধ্যভূমির জায়গায় নির্মিত স্মৃতিসৌধের স্থানের লিজ বাতিল ও রক্ষার দাবীতে ১৮ আগস্ট বৃহস্পতিবার ‘স্মৃতিসৌধ রক্ষা কমিটির’ আয়োজনে এলাকাবাসীরা মানববন্ধন করেছে।

উপজেলার পৃথিমপাশা ইউনিয়নের রবিরবাজারে ইউপি সদস্য আব্দুল মনাফের সভাপতিত্বে এবং সাংবাদিক সৈয়দ আশফাক তানভীর ও ছাত্র ইউনিয়ন নেতা ফয়জুল হকের যৌথ পরিচালনায় মানববন্ধনে সংহতি প্রকাশ করে বক্তব্য রাখেন প্রবীণ রাজনীতিবিদ কমরেড আব্দুল মালিক, ইউপি চেয়ারম্যান নবাব আলী বাখর খান, সাবেক চেয়ারম্যান আব্দুল লতিফ ও বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল গফুর, ইউনিয়ন মুক্তিযোদ্ধা কামান্ডার ইলিয়াছ আলী চৌধুরী (রেকু মিয়া), মুক্তিযোদ্ধা মফিজ আলী, মুক্তিযোদ্ধা নজির উদ্দিন খান, মুক্তিযোদ্ধার সন্তান ডাঃ বিধান রঞ্জন দেব, শহীদ মুক্তিযোদ্ধা কুমুদ মালাকারের স্ত্রী শেফালী মালাকার, প্রভাষক মাজহারুল ইসলাম, জাসদ নেতা আশিকুর রহমান ফটিক, বিএনপি নেতা নবাব আলী তাকি খান, সংবাদকর্মী এমএ হামিদ, যুবলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক আবু মোঃ নাসির উদ্দিন, জাসদ নেতা আব্দুল গাফফার কায়ছুল, সৈয়দ আব্দুল মুনিম রুহেল, নবাব আলী আশরাফ খাঁন (বাবু), ইউনিয়ন কমিউনিস্ট পার্টির সাধারণ সম্পাদক আতিকুল ইসলাম মাস্টার, দৈনিক মানবকণ্ঠ প্রতিনিধি সেলিম আহমেদ, ব্যবসায়ী নেতা মাসুক আহমদ, কমরেড আব্দুল আহাদ, ইউপি সদস্য মাসুদ রানা আব্বাছ, সাবেক মেম্বার মুহিব হোসেন, ছাত্রলীগ নেতা ময়নুল ইসলাম পংকি, জাসদ ছাত্রলীগ নেতা আহমেদ মোনায়েম মান্না, শ্রমিক নেতা আব্দুল জব্বার, সংবাদকর্মী রাজু আহমদ, মানবাধিকার কর্মী তপন দত্ত, প্রবাসী কামরুল মিয়া প্রমুখ। মানববন্ধনে সংহতি প্রকাশ করেন এলাকার মুক্তিযোদ্ধা ও তাদের পরিবার, ছগীর আলী স্মৃতি পরিষদ, লংলা রিডিং ক্লাব, সাংস্কৃতিক পরিষদ, রবিরবাজার ক্লাব ও অন্যান্য সামাজিক রাজনৈতিক ও সাংস্কৃতিক ব্যক্তিবর্গ।

বক্তারা বলেন, এ বধ্যভূমিতে পাকিস্তানী হানাদার বাহিনী এলাকার ২১ জন মুক্তিযোদ্ধা ও তাদের পরিবারের সদস্যকে নির্মমভাবে হত্যা করে। পরে দেশ স্বাধীন হলে এ বধ্যভূমির জায়গায় একটি স্মৃতিসৌধ নির্মাণ করা হয়। কিন্তু গত কয়েকদিন পূর্বে জেলা পরিষদ এ জায়গাটি লিজ দেয়ায় ক্ষোভে ফুঁসে ওঠেন এলাকার সর্বস্তরের জনতা। তাঁরা বলেন, অনতিবিলম্বে এ লিজ বাতিল করা না হলে আরো কঠোর আন্দোলনের কর্মসুচী নেয়া হবে। প্রয়োজনে রক্ত দিয়ে এ বধ্যভূমি ও স্মৃতিসৌধের জায়গা রক্ষা করা হবে।

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: