সর্বশেষ আপডেট : ১ মিনিট ৫৪ সেকেন্ড আগে
শনিবার, ৩ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

সব সূচকেই ভালো ফল : শিক্ষামন্ত্রী

educationmontrrriiডেইলি সিলেট ডেস্ক ::
গত বছরের তুলনায় এ বছর অংশগ্রহণকারী পরীক্ষার্থী, উত্তীর্ণ পরীক্ষার্থী, পাসের হার, জিপিএ-৫ প্রাপ্ত প্রতিষ্ঠান ও কেন্দ্রের সংখ্যা বেড়েছে বলে জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ। গতকাল বৃহস্পতিবার শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষার ফল প্রকাশ উপলক্ষে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ কথা জানান।নির্ধারিত সময়ের মধ্যেও যারা একাদশ শ্রেণিতে ভর্তি হতে পারেননি তাদের কলেজে ভর্তি হতে আরও তিন দিন সময় দিয়েছে সরকার। শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ গতকাল বৃহস্পতিবার সচিবালয়ে এবারের এইচএসসির ফলাফলের বিভিন্ন দিক তুলে ধরার পর শিক্ষাবোর্ডের চেয়ারম্যানদের উপস্থিতিতে এ তথ্য জানান।
চলতি শিক্ষাবর্ষে একাদশ শ্রেণিতে ভর্তির সময়সীমা বৃদ্ধি করেছে সরকার। আগামী ২৩ আগস্ট পর্যন্ত শিক্ষার্থীরা ভর্তি হতে পারবে। শিক্ষামন্ত্রী বলেন, নানাবিধ কারণে এইচএসসি পর্যায়ের ৪০০ শিক্ষার্থী নির্ধারিত সময়ের মধ্যে কলেজে ভর্তি হতে পারেনি। এসব শিক্ষার্থী আগামী ২১ থেকে ২৩ আগস্ট পর্যন্ত কলেজে ভর্তি হতে পারবে।নির্ধারিত সময়ের মধ্যে কলেজে ভর্তি হতে না পারার কারণ হিসেবে শিক্ষার্থীদের দারিদ্র্য, বিয়ে ও বিদেশে চাকরি খুঁজতে যাওয়াকে দায়ী করেন মন্ত্রী।
শিক্ষা মন্ত্রণালয় এক বিজ্ঞপ্তিতে জানায়, যে সকল শিক্ষার্থী এখনও কোনো কলেজে ভর্তি হতে পারেনি তাদের সংশ্লিষ্ট কলেজে আসন খালি থাকা এবং ভর্তির নূন্যতম জিপিএ সংক্রান্ত শর্তপূরণ সাপেক্ষে ২৩ আগস্টের মধ্যে বিলম্ব ফিসহ মানবিক বিবেচনায় ম্যানুয়াল পদ্ধতিতে ভর্তির সুযোগ দেওয়া হলো।এ বর্ধিত সময়ের পর আর কোনো অবস্থাতেই ভর্তির সময় বৃদ্ধি করা হবে না। যে সব শিক্ষার্থী ইতিমধ্যে কোন কলেজে ভর্তি হয়েছে তারা নতুন করে অন্য কোন কলেজে ভর্তি হতে পারবে না। তবে ভর্তিকৃত শিক্ষার্থীরা ছাড়পত্রের মাধ্যমে কলেজ পরিবর্তন করতে পারবে বলেও বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়।
এসএসসি উত্তীর্ণদের জন্য এবার দ্বিতীবারের মতো অনলাইন ও এসএমএসের মাধ্যমে ভর্তি করানো হয়। এর আগে জুন-জুলাই মাসে শিক্ষার্থীদের ভর্তি করানো হয়। সর্বশেষ ১৩ থেকে ২০ জুলাই পর্যন্ত কলেজে আসন খালি থাকা সাপেক্ষে কলেজ কর্তৃক পূর্ব নির্ধারিত সর্বনিম্ন জিপিএ’র ভিত্তিতে উন্মুক্তভাবে ম্যানুয়্যাল পদ্ধতিতে বিলম্ব ফিসহ ভর্তি হয় শিক্ষার্থীরা।মন্ত্রী বলেন, এখনও অনেকে একাদশ শ্রেণিতে ভর্তি হতে পারেনি, তারা ভর্তি হতে বোর্ডে আবেদন করেছে। এ কারণে আগামী ২১ থেকে ২৩ অগাস্ট ভর্তি হতে সময় দেওয়া হল।নানা কারণে তারা নির্ধারিত সময়ে ভর্তি হতে পারেনি। অনেকে আর্থিক কারণে, কোনো ছাত্রীর বিয়ে হয়ে যাওয়ায়, কেউ বিদেশে গিয়ে আবার দেশে এসেছে…।নাহিদ বলেন, ওই তিন দিন যে কোনো বোর্ডের আওতায় আসন খালি থাকা সাপেক্ষে যে কোনো কলেজে মাধ্যমিক উত্তীর্ণ শিক্ষার্থীরা ভর্তি হতে পারবে।
ঢাকার কলেজগুলোতে ৪৩ হাজারের বেশি আসন ফাঁকা থাকার তথ্য জানিয়ে শিক্ষামন্ত্রী বলেন, সারা দেশে ৭ লাখ আসন ফাঁকা আছে, ভর্তি হওয়ার কোনো অসুবিধা নেই।আন্তঃশিক্ষা বোর্ড সমন্বয় সাব-কমিটি গত ১৬ জুন একাদশ শ্রেণিতে ভর্তির মেধাতালিকা প্রকাশ করে।নির্বাচিত তালিকা থেকে গত ১৮ থেকে ২২ জুন শিক্ষার্থী ভর্তি করা হয়। আসন খালি থাকা সাপেক্ষে অপেক্ষমাণ তালিকা থেকে শিক্ষার্থী ভর্তি হয় ২৫ থেকে ২৭ জুন। গত ১০ জুলাই সব কলেজে একযোগে একাদশ শ্রেণির ক্লাস শুরু হলেও ১০ থেকে ২০ জুলাই পর্যন্ত বিলম্ব ফি দিয়ে ভর্তির সুযোগ দেওয়া হয় মাধ্যমিক উত্তীর্ণদের।

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: