সর্বশেষ আপডেট : ৪ ঘন্টা আগে
রবিবার, ৪ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

শাশুড়িকে বিয়ে করে জামাই এখন তালাক চান

full_122258943_1471372807নিউজ ডেস্ক: শাশুড়ির প্রেমে পড়েছিলেন তিনি। ফলাফল যা হওয়ার তাই, প্রেম থেকে প্রণয়। ঘটনার শেষ এখানেই নয়, গত জুনে শাশুড়িকে বিয়ে করেন মেয়ের জামাই। শাশুড়ি থেকে হয়ে যান স্ত্রী। এখন সেই স্ত্রীকে তালাকের জন্য অনুমতি চেয়ে আদালতের আবেদন করেছেন জামাই।

অসুস্থ জামাইয়ের সেবা করতে এসেছিলেন শাশুড়ি। অতঃপর দু’জনের মধ্যে হয়ে যায় প্রেমের সম্পর্ক।

গত জুনে শাশুড়িকে বিয়ে করেন মেয়ের জামাই। শাশুড়ি হয়ে যান স্ত্রী। এখন সেই স্ত্রীকে তালাক দিয়ে ফের তার মেয়েকে নিয়েই সংসার করতে চান ওই ব্যক্তি। আর এজন্য অনুমতি চেয়ে আদালতে আবেদন করেছেন জামাই। ভারতীয় গণমাধ্যমের বরাত দিয়ে মঙ্গলবার গালফ নিউজের এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

আদালতে এ বিষয়ে শুনানি শুরু হয়েছে। গালফ নিউজ বলছে, বিহারের মাধেপুরা জুলার ২২ বছর বয়সী বাসিন্দা সুরাজ মেহতা চলতি বছরের জুনে গনমাধ্যমের শিরোনামে আসেন। ওই সময় তিনি ৪২ বছর বয়সী শাশুড়ি আশা দেবীকে বিয়ে করে ব্যাপক আলোচনার জন্ম দেন।

অপরাধবোধে ভুগতে থাকা মেহতা বলেন, আমার বোকামি বুঝতে পারছি। আমি স্বীকার করছি, ভুল করেছিলাম; তবে এ ধরনের ঘটনা ভবিষ্যতে আর হবে না। এখন আমার শাশুড়িকে স্ত্রী হিসেবে গ্রহণ করতে পারছি না। বর্তমানে আমি তাকে মা হিসেবে দেখছি।

মেহতা বলেন, এখন প্রথম স্ত্রী ললিতা দেবীকে বুঝানোর জন্য সর্বোচ্চ চেষ্টা করবেন; যেন তার সঙ্গে আবার ঘর শুরু করেন। প্রথম স্ত্রী বর্তমানে বাবার বাড়িতে রয়েছেন। মেহতার মতই ভুল ভেঙেছে আশার। তিনি বলেন, আমি তাকে স্বামী হিসেবে এখন মেনে নিতে পারছি না; তাকে মেয়ের জামাই হিসেবে দেখছি। আমরা তালাকের জন্য আদালতে আবেদন করেছি; যত দ্রুত সম্ভব আমার প্রথম স্বামীর কাছে ফিরতে চাই।

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: