সর্বশেষ আপডেট : ২ মিনিট ১ সেকেন্ড আগে
শুক্রবার, ৯ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

বাসায় কাজ করতে রাজী না হওয়ায় হাসপাতালের আয়াকে মারধর

Brahmanbaria_sm20160816141644নিউজ ডেস্ক :: ব্রাহ্মণবাড়িয়া শহরের কুমারশীল মোড়ের পারভীন টাওয়ারের মালিক রুনাক সুলতানা পারভীনের বাসায় কাজ করতে রাজী না হওয়ায় বকুল বণিক (৪৮) নামে হাসপাতালের এক আয়াকে মারধর করার অভিযোগ পাওয়া গেছে।

মঙ্গলবার (১৬ আগস্ট) বেলা সোয়া ১১টার দিকে ভবন মালিক পারভীন নিজেই ওই নারীকে জুতা ও প্লাস্টিকের চেয়ার দিয়ে পেটান।

নির্যাতনের শিকার বকুল বণিক ওই টাওয়ারে অবস্থিত নিউ সেন্ট্রাল ল্যাব ডায়াবেটিক হাসপাতালের আয়া পদে কর্মরত রয়েছেন। তিনি শহরের মধ্যপাড়া এলাকার বাসিন্দা।

আহত বকুল বণিক অভিযোগ করেন, জেলা মহিলা আওয়ামী লীগ নেত্রী রুনাক সুলতানা পারভীন তাকে বাসায় কাজ করার কথা বলেন। কিন্তু হাসপাতালের কাজের বাইরে তার হাতে সময় ও সুযোগ নেই জানিয়ে তিনি অপারগতা প্রকাশ করেন। এতে পারভীন ক্ষিপ্ত হয়ে তাকে জুতা দিয়ে পেটাতে থাকেন। একপর্যায়ে প্লাস্টিকের চেয়ার দিয়ে তাকে আঘাত করেন। এ সময় হাসপাতালের মালিকপক্ষের লোকজন এগিয়ে এলে তাদেরও মারতে উদ্যত হন এবং অকথ্য ভাষায় গালাগাল করেন।

এ ঘটনার সময় পারভীন স্থানীয় এমপি ও জেলা আওয়ামী লীগের শীর্ষ কয়েক নেতার নাম ভাঙিয়ে তাকে দেখে নেওয়ার হুমকিও দেন।

ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, ভবন মালিক পারভীন দিনেদুপুরে প্রকাশ্যে অমানবিকভাবে একজন বয়সী নারীকে পেটাতে থাকেন। এসময় তাকে থামাতে গেলে তিনি অন্যদের গালাগাল করতে থাকেন। বিষয়টি দেখে উপস্থিত সবাই ক্ষুব্ধ ও হতবাক হন।

এ বিষয়ে যোগাযোগ করা হলে পারভীন টাওয়ারের মালিক রুনাক সুলতানা পারভীন জানান, তিনি ওই নারীর গায়ে হাত তোলেননি। তার ভবনে থাকা হাসপাতালের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মিজানুর রহমান ওই নারীকে মারধর করে তাকে ফাঁসাতে চাইছেন।

জানতে চাইলে নিউ সেন্ট্রাল ল্যাব ডায়াবেটিক হাসপাতালের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মিজানুর রহমান বলেন, ভবন মালিক পারভীন যে প্রকাশ্যে ওই নারীকে পিটিয়েছেন তা তিনিসহ অনেকেই দেখেছেন। এখন তিনি মিথ্যা কথা বলে নিজের দোষ আড়াল করতে চাইছেন। ঘটনার সময় উপস্থিত সবাই পারভীনকে এলোমেলো চুলে রাগান্বিত অবস্থায় দেখেছেন। এর আগেও তিনি (পারভীন) হাসপাতালের কয়েকজন স্টাফকে মারধর করেছেন।

এ ব্যাপারে ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মাঈনুর রহমান বলেন, এ বিষয়ে এখনো কেউ থানায় অভিযোগ দেননি। অভিযোগ পেলে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: