সর্বশেষ আপডেট : ১১ মিনিট ৩৪ সেকেন্ড আগে
শনিবার, ৩ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

বাংলাদেশি গোয়েন্দারা ভারতে গ্রেপ্তার মুসাকে জিজ্ঞাসাবাদ করবে আজ

150328_1নিউজ ডেস্ক: ভারতে গ্রেপ্তার ইসলামিক স্টেট (আইএস) সদস্য মসিউদ্দিন ওরফে আবু আল মুসাকে জিজ্ঞাসাবাদ করবে বাংলাদেশের গোয়েন্দারা।

জিজ্ঞাসাবাদের জন্য সোমবার কলকাতায় পৌঁছেছে বাংলাদেশের তিন সদস্যের গোয়েন্দা দল। খবর জিনিউজের ।

এব্যাপারে শনিবার দ্য ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসে একটি প্রতিবেদনে প্রকাশ করা হয়েছিলো।
ওই প্রতিবেদনে বলা হয়েছিলো, আইএস অপারেটিভ মসিউদ্দিন ওরফে আবু আল মুসাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে ভারতে। সেখানকার জিজ্ঞাসাবাদকারীদের সে বলেছে, জামাআতুল মুজাহিদীন বাংলাদেশের (জেএমবি) মোহাম্মদ সুলাইমানের সঙ্গে তার যোগাযোগ ছিল।

উল্লেখ্য, মসিউদ্দিন ওরফে আবু আল মুসাকে (২৫) গত ৬ জুলাই পশ্চিমবঙ্গ পুলিশ গ্রেপ্তার করে ভারতের বীরভূম রেল স্টেশন থেকে। তার বসবাস বীরভূমেই। ইন্টেলিজেন্স ব্যুরো ও ন্যাশনাল ইনভেস্টিগেশন এজেন্সির (এনআইএ) দেয়া তথ্যের ওপর ভিত্তি করে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

এরপর তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করে রাজ্য পুলিশ, গোয়েন্দা সংস্থাগুলো ও এনআইএ। এ সময় ভারতে আইএসের উপস্থিতি ও একটি নৃশংস হত্যাকাণ্ডের ভিডিও সম্পর্কে পরিকল্পনার কথা প্রকাশ করেছে।

তিনি স্বীকার করেছেন যে, একজন হিন্দুর শিরশ্ছেদ, তার সঙ্গীকে ধর্ষণের নির্দেশনা দিয়েছিল সে। ওই সময় এসব নৃশংসতার ভিডিও ধারণ করতেও বলেছিল। একই সঙ্গে সেই ভিডিও সীমান্তের কাছাকাছি বাংলাদেশে তার অনুগতদের কাছে পৌঁছে দেয়ার নির্দেশনাও দিয়েছিল সে।

শিরশ্ছেদের ওই ভিডিও যাতে সিরিয়ায় আইএসের কাছে পৌঁছে দেয়া হয়- এমন নির্দেশনা ছিল তার। এর কারণ ছিল, সন্ত্রাসী সংগঠনটির যোগাযোগ বিষয়ক শাখার কাছে তা পৌঁছে দেয়া, যাতে তারা ইন্টারনেটে তা প্রচার করতে পারে। তার সঙ্গে ভারতে খেলাফত প্রতিষ্ঠার আনুষ্ঠানিক ঘোষণা দেয়া যায়।

ভারতীয় জিজ্ঞাসাবাদকারীদের মুসা বলেছে, তার হ্যান্ডলার অর্থাৎ তার কাছ থেকে যার কাছে ভিডিওটি পৌঁছে যাবে তাকে সে প্রথমে শনাক্ত করে জিহাদি জন নামে।

উল্লেখ্য, আইএস এ পর্যন্ত যতগুলো শিরশ্ছেদের ভিডিও প্রচার করেছে তার মধ্যে অনেকগুলোতে জিহাদী জনকে দেখা গেছে। কিন্তু মুসার দেয়া জিহাদি জন বাস্তবে জেএমবি’র মোহাম্মদ সুলায়মান। মুসা আরো বলেছে, সুলায়মানই তাকে নির্দেশ দিয়েছে অমুসলিমদের টার্গেট করতে, তাদের শিরশ্ছেদ করতে ও সে দৃশ্য ভিডিওতে রেকর্ড করতে।

ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস আরো লেখে, মুসাকে জিজ্ঞাসাবাদে বেরিয়ে এসেছে আরো কিছু তথ্য। সে বলেছে, গত বছর মার্চে ছোটভাইয়ের বিয়ের সময় জিহাদী জনের সঙ্গে সাক্ষাৎ হয় মুসার। এ সময় সে নিজেকে জেএমবি’র মোহাম্মদ সুলায়মান হিসেবে পরিচয় দেয়।

তখন মুসাকে সুলায়মান বলে যে, আইএস’র সমর্থনের বিষয়ে জেএমবিতে বিভক্তি দেখা দিয়েছে। এ সময় সে একটি রেশন কার্ড পাওয়ার জন্য মুসার সাহায্য চায়। এ ছাড়াও সিরিয়ায় যাওয়ার সামর্থ্য না থাকলেও ভারতেই আইএস’র হয়ে কাজ করতে মুসাকে উদ্বুদ্ধ করেন সুলায়মান।

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: