সর্বশেষ আপডেট : ৯ মিনিট ৯ সেকেন্ড আগে
শনিবার, ৩ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

সেই তারাপুরেই রাগীব আলীকে অবাঞ্ছিত ঘোষণা

obostan dhormogotযে তারাপুর এলাকায় দখল সাম্রাজ্য তৈরি করে নিজের প্রভাব-প্রতিপত্তি বিস্তার করেছিলেন আলোচিত শিল্পপতি রাগীব আলী, সেই তারাপুর এলাকায়ই তাঁকে অবাঞ্ছিত ঘোষণা করা হলো। ভূমি আত্মসাতের আলোচিত দুই মামলায় গ্রেপ্তারি পরোয়ানাভুক্ত আসামি রাগীব আলী ভারতে পালিয়ে যাওয়ার পর ক্ষোভে-বিক্ষোভে ফুঁসছেন তারাপুর এলাকাবাসী। প্রতারণার মাধ্যমে দখলীকৃতজমি তাদের কাছে বিক্রি করে তাদের বিপদে ফেলে পালিয়ে যাওয়ায় তাই রাগীব আলীকে তারাপুর এলাকায় অবাঞ্ছিত ঘোষণা করেছেন তারাপুরবাসী।

এদিকে তারাপুর চা-বাগান এলাকার বাসিন্দারা রাস্তায় নেমে গ্যাস-বিদ্যুৎ না কাটার জন্য মানবিক দাবি জানানোয় জেলা প্রশাসন গতকাল সংযোগ বিচ্ছিন্ন না করে আরও এক সপ্তাহ সময় দেন এলাকাবাসীকে। রাগীব আলীর অবৈধ স্থাপনায় জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে গ্যাস ও বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্নকরণের নোটিস যাওয়ার পর গতকাল সকালে ‘আমরা সিলেটবাসী’ নামক একটি সংগঠনের ব্যানারে পাঠানটুলা পয়েন্টে আয়োজিত অবস্থান কর্মসূচি পালিত হয়। ওই অবস্থান কর্মসূচিতে বক্তারা রাগীব আলীর জালিয়াতির কারণে তারা ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন উল্লেখ করে ক্ষতিপূরণের দাবি জানান। একই সঙ্গে তারা কথিত এ দানবীরকে তারাপুরে অবাঞ্ছিত ঘোষণা করেন। অবস্থান কর্মসূচিতে বক্তব্য রাখতে গিয়ে করেরপাড়া এলাকার বাসিন্দা সিতিল দে বলেন, ‘রাগীব আলী আমাদেরকে পথে বসিয়ে পালিয়ে গেছে । সে একজন প্রতারক, তাকে আমরা আজ থেকে অবাঞ্ছিত ঘোষণা করছি।’

আবদুর রাজ্জাক খানের সভাপতিত্বে অবস্থান কর্মসূচিতে বক্তব্য রাখেন সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান সামসুদ্দিন খান, জালাল আহমদ, সাবেক কাউন্সিলার জগদিশ চন্দ্র দাশ, বর্তমান কাউন্সিলার ইলিয়াছুর রহমান ইলিয়াছ, রেবেকা বেগম রুনু, শ্রমিক লীগ নেতা এম. শাহারিয়ার কবীর সেলিম, যুবলীগ নেতা সেলিম আহমদ সেলিম।

রাগীব আলীর দখল করা জায়গার বাসা-বাড়ির গ্যাস-বিদ্যুৎ লাইন বিচ্ছিন্ন করা সম্পর্কে জানতে চাইলে সিলেটের জেলা প্রশাসক মো. জয়নাল আবেদীন জানান, তারাপুর চা-বাগান এলাকার বাসিন্দারা রাস্তায় নেমে গ্যাস-বিদ্যুৎ না কাটার জন্য মানবিক দাবি জানিয়েছেন। তাই জোর করে কোনো কিছু করতে যাওয়া হয়নি। আরো এক সপ্তাহ সময় নিয়েছি আমরা। এর মধ্যে ওই এলাকার বাসিন্দাদের প্রস্তুতি গ্রহণের সময় দেওয়া হবে। পাশাপাশি জেলা প্রশাসনও আইনীকাজ শেষ করেই মাঠে নামবে। এতে করে অভিযান আইনী জটিলতায় পড়বে না।

উল্লেখ্য, সিলেটের তারাপুর চা-বাগানের দেবোত্তর সম্পত্তিতে অবৈধ স্থাপনা নির্মাণের মাধ্যমে হাজার কোটি টাকার ভূমি আত্মসাতের ঘটনায় দায়ের করা আলোচিত দুটি মামলায় গত বুধবার রাগীব আলীসহ ৬ জনের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি হয়। এরপরই রাগীব আলী সপরিবারে ভারত পালিয়ে যান।

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: