সর্বশেষ আপডেট : ১ ঘন্টা আগে
শুক্রবার, ২ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ১৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

পোপের দরজায় ২০ জন সাবেক যৌনকর্মী

3728C4DC00000578-3736364-image-a-12_1471026467973-550x354নিউজ ডেস্ক: খ্রিস্টানদের ধর্মগুরু পোপ ফ্রান্সিসের (৭৯) দরজায় কড়া নাড়লেন ২০ জন সাবেক যৌনকর্মী। রোমানিয়া আলবেনিয়া, নাইজেরিয়া, তিউনেশিয়া, ইতালি এবং ইউক্রেন থেকে পোপের সাথে দেখা করতে এসেছিলেন এই সাবেক যৌনকর্মীরা।
এদের মধ্যে আর্জেন্টিনার একজন মানবপাচারের শিকার হয়ে পতিতাবৃত্তি করতে বাধ্য হয়েছিলেন। ৪ জন আলবেনিয়ার। ৭ জন নাইজেরিয়ান এবং ৬ জন রোমানিয়ান। অন্য তিন নারী ইতালি, তিউনেশিয়া এবং ইউক্রেন থেকে আসা, তারা ক্যাথলিক একটি দাতব্য সংস্থার আশ্রয়ে আছেন। এদের সবার বয়স ত্রিশের মধ্যে। দালাল এবং মানবপাচারকারীদের হাত থেকে তাদের উদ্ধার করে ইতালির রোমের ক্যাথলিক দাতব্য সংস্থায় আশ্রয় দেয়া হয়েছে।

ভ্যাটিকান জানায়, এক ঘন্টারও বেশি সময় ধরে পোপ এইসব নির্যাতিত নারীদের অবরুদ্ধ জীবন এবং শারীরিক লাঞ্চনার কথা শোনেন।

এই দিনটিকে ‘মার্সি অব ফ্রাইডে’ বলে আখ্যায়িত করা হয়েছে। ক্ষমার মাসের শুক্রবারে পোপ মানবিকতার খাতিরে কিছু ‘অনির্ধারিত ক্ষমার আইন’ অনুসরণ করেন। রোমে এটি পোপের ‘জুবিলি ইয়ার’। পোপের ‘জুবিলি ইয়ার’ ডিসেম্বর থেকে শুরু হয় নভেম্বর মাসব্যাপী চলে।

জুবিলি ইয়ারের জানুয়ারীতে পোপ বৃদ্ধাশ্রম এবং ফেব্রুয়ারিতে মাদকাসক্ত এলাকাগুলোতে ভ্রমণ করেন। মার্চে তিনি শরণার্থী শিবিরে যান ও এপ্রিলে গ্রীক আইসল্যান্ডে আশ্রয়প্রার্থী শরণার্থীদের সাথে দেখা করেন। জুন মাসে অসুস্থ যাজকদের সাথে দেখা করার পর মে’তে তিনি মানসিকভাবে অনেক অসুস্থ হয়ে পড়েন। এরপর তিনি জুলাই’তে ‘ফ্রাইডে অব মার্সি’ কারাকো এর অসুস্থ শিশুদের জন্য নিবেদন করেন।
সূত্র: ডেইলি মেইল

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: