সর্বশেষ আপডেট : ৪ ঘন্টা আগে
বৃহস্পতিবার, ২৩ ফেব্রুয়ারী, ২০১৭, খ্রীষ্টাব্দ | ১১ ফাল্গুন ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

মুক্তির আট মিনিটে ৯০ হাজার ফোন বিক্রি!

full_956865666_1470972529তথ্য প্রযুক্তি ডেস্ক: স্মার্টফোন নির্মাতা চীনা প্রতিষ্ঠান শাওমি একের পর এক স্মার্টফোন বাজারে নিয়ে আসছে। অপেক্ষাকৃত কম দামে ভালো মানের এসব স্মার্টফোন মুক্তির পর পরই দারুণ জনপ্রিয়তা পাচ্ছে। সেই জনপ্রিয়তা কেমন সেটা এবার টের পাওয়া গেল ভারতের বাজারে।

গত ৯ আগস্ট মঙ্গলবার ভারতে অনলাইনে বিক্রির জন্য শাওমির নতুন স্মার্টফোন ‘রেডমি ৩এস প্রাইম’ ছাড়া হয়। অনলাইনে ছাড়ার মাত্র আট মিনিটের মধ্যেই সব অর্থ্যাৎ ৯০ হাজার ফোন বিক্রি হয়ে যায় এই মডেলের। এ খবর জানিয়েছে ফোন বিষয়ক ওয়েবসাইট জিএসএম এরিনা ও ভারতীয় গণমাধ্যম এনডিটিভি।

শাওমির ওয়েবসাইট মি ডটকম ও ভারতীয় ইকমার্স সাইট ফ্লিপকার্ট- এ বিক্রির জন্য ছাড়া হয়েছিল ফোনগুলো। আগামী বুধবার ১৭ আগস্ট দুপুর ১২টায় আবারো একটি ফোন অনলাইনে বিক্রির জন্য ছাড়বে শাওমি। রেডমি ৩এস প্রাইমের অপেক্ষাকৃত কম দামি এই সংস্করণটির নাম ‘রেডমি ৩এস’। একই সময়ে আবারো রেডমি ৩এস প্রাইম স্মার্টফোনটিও অনলাইনে বিক্রির জন্য ছাড়া হবে বলে লিখিত এক বিবৃতিতে জানিয়েছেন শাওমি ইন্ডিয়ার প্রধান মানু কুমার জৈন।

বিবৃতিতে মানু কুমার লিখেছেন, ‘আমরা আমাদের ব্যবহারকারীদের কথা খুব মনোযোগ দিয়ে শুনি। এবারই প্রথম অনলাইনে ফোন বিক্রির ক্ষেত্রে আমরা রেজিস্ট্রেশনের বাধ্যবাধকতা রাখিনি। আমাদের আত্মবিশ্বাস ছিল এবং আমরা ৯০ হাজারেরও বেশি ফোন বিক্রি করেছি। ফ্লিপকার্টের ইতিহাসে এটাই সবচেয়ে বড় বিক্রি।’

ভারতের বাজারে রেডমি ৩এস প্রাইম ফোনটির দাম রাখা হয়েছে ৮ হাজার ৯৯৯ রুপি আর রেডমি ৩এসের দাম রাখা হয়েছে ছয় হাজার ৯৯৯ রুপি। দামের পার্থক্য দুই হাজার রুপি হলেও মানের পার্থক্য খুব একটা বেশি নয় সেট দুটির মধ্যে।

রেডমি ৩এস প্রাইম স্মার্টফোনে রয়েছে ৩ জিবি র‍্যাম ও ৩২ জিবি ইন্টারনাল স্টোরেজ, সাথে রয়েছে ফিঙ্গারপ্রিন্ট স্ক্যানার। অন্যদিকে রেডমি ৩এস ফোনটিতে রয়েছে ২ জিবি র‍্যাম ও ১৬ জিবি ইন্টারনাল স্টোরেজ, তবে কোনো ফিঙ্গারপ্রিন্ট স্ক্যানার নেই।

দুটি ফোনেই রয়েছে ডুয়েল সিম (মাইক্রো+ন্যানো) সাপোর্ট। অপারেটিং সিস্টেম শাওমির এমআইইউআই ৭ দশমিক ৫ ভিত্তিক অ্যানড্রয়েড ৬ দশমিক ০ মার্শম্যালো। ৫ ইঞ্চি এইচডি (৭২০x১২৮০ পিক্সেলস) আইপিএস ডিসপ্লে, অক্টা-কোর কোয়ালকম স্ন্যাপড্রাগন ৪৩০ এসওসি, একটি আদ্রেনো ৫০৫ জিপিইউ।

দুটি ফোনেই রয়েছে ১৩ মেগাপিক্সেলের রিয়ার ও ৫ মেগাপিক্সেলের ফ্রন্ট ক্যামেরা। ফোরজি কানেক্টিভিটির এই সেটে রয়েছে ৪১০০ এমএএইচের ব্যাটারি। মাইক্রোএসডি কার্ডের মাধ্যমে মেমোরি বাড়িয়ে নেওয়ার সুবিধাও রয়েছে সেট দুটিতে।

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭, ০১৭১৭ ৬৮ ১২ ১৪ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: