সর্বশেষ আপডেট : ৩৭ মিনিট ৯ সেকেন্ড আগে
শনিবার, ৩ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

অবসরের ইঙ্গিত জাপান সম্রাটের

japan_123110আন্তর্জাতিক ডেস্ক:: বার্ধক্য ও অসুস্থার কারণে দায়িত্ব সঠিকভাবে পালন করতে পারবেন না; এই ভয়ে অবসরের ইঙ্গিত দিলেন জাপানের সম্রাট আকিহিতো। টেলিভিশনে জাতির উদ্দেশে দ্বিতীয়বারের মতো ভাষণ দিতে এসে তিনি এই ইঙ্গিত দেন। খবর বিবিসির।

সোমবার স্থানীয় সময় বিকাল ৩টায় সম্রাট আকিহিতোর ধারণ করা ১০ মিনিটের ভাষণ রাষ্ট্রীয় সম্প্রচার মাধ্যমে দেখানো হয়।

প্রতিবেদনে বলা হয়, ৮২ বছর বয়সী সম্রাট সিংহাসন ত্যাগের বিষয়টি সরাসরি বলেননি। তবে তিনি যে দায়িত্ব হস্তান্তর করতে চান, সে ইঙ্গিত তার ভাষণে স্পষ্ট।

সম্রাট আকিহিতো বলেন, ‘রাষ্ট্রের প্রতীক হিসেবে যে দায়িত্ব আমার ওপর রয়েছে, এবং যা আমি এতোদিন পালন করে আসছি- আমার ভয় হচ্ছে, তা চালিয়ে যাওয়া হয়তো আমার জন্য কঠিন হয়ে উঠবে।’

২৭ বছর ধরে রাষ্ট্রপ্রধানের দায়িত্ব পালন করে আসা আকিহিতোর অবসর হবে আধুনিক জাপানের ইতিহাসে এ ধরনের প্রথম ঘটনা। তার বড় ছেলে ৫৬ বছর বয়সী যুবরাজ নারুহিতোই জাপানের সিংহাসনের উত্তরাধিকারী। তার ১৪ বছরের একটি মেয়ে আছে।

জাপানের বর্তমান রাষ্ট্র কাঠামোয় সম্রাটের পদটি শুধুই আনুষ্ঠানিক। তবে সম্রাটের প্রতি জাপানিদের রয়েছে প্রগাঢ় ভক্তি।

প্রতিবেদনে আরও বলা হয়, জাপানের সংবিধানে সম্রাটের স্বেচ্ছা অবসরের বিধান নেই। আকিহিতোর ইচ্ছা পূরণ করতে হলে দেশটির সরকারকে নতুন করে আইন করতে হবে।

এ বিষয়টি তার সরকার গুরুত্বের সঙ্গে দেখবে বলে প্রধানমন্ত্রী শিনজো আবে জানিয়েছেন।

শিনজো আবে বলেন, ‘তিনি এই বয়সে ও বর্তমান অবস্থায় কিভাবে সরকারি দায়িত্ব পালন করবেন তা বিবেচনার বিষয়। আমি মনে করি, সম্রাটের বিশাল দায়িত্ব বিষয়টি অনুধাবন করে বিষয়টি গুরুত্ব সহকারে বিবেচনা করা উচিত।’

চার বছর আগে সম্রাট আকিহিতোর বাইপাস সার্জারি হয়। তার আগে ২০০৩ সালে প্রোস্টেট ক্যান্সারের চিকিৎসা নিতে হয় তাকে। এরপর গত জুলাই মাসে জাপানি গণমাধ্যমগুলো সম্রাটের স্বেচ্ছায় অবসরের যাওয়ার খবর দিলে আন্তর্জাতিক অঙ্গনে শুরু হয় আলোচনা।

সম্রাট হিরোহিতোর জীবনাবসানের পর ১৯৮৯ সালে জাপানের সিংহাসনে বসেন তার ছেলে আকিহিতো। দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধে বিজয়ী আমেরিকানরা জাপানের সংবিধান বদলে সম্রাটের ক্ষমতা খর্ব করার আগে জাপানিদের কাছে হিরোহিতো ছিলেন রক্ত-মাংসের ঈশ্বর।

১৯৫৯ সালে সাধারণ পরিবারের এক জাপানি তরুণীকে বিয়ে করে রীতিমত বিপ্লব ঘটান তরুণ আকিহিতো। সে সময় তাদের সেই প্রেমকাহিনি ছিল জাপানিদের মুখে মুখে। সম্রাট আকিহিতো ও সম্রাজ্ঞী মিচিকো তিন সন্তানের বাবা-মা।

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: