সর্বশেষ আপডেট : ৩১ মিনিট ২১ সেকেন্ড আগে
সোমবার, ৫ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

আটক জঙ্গিরা বলে মেরে ফেলেন জান্নাতে যাবো

26101_f3নিউজ ডেস্ক: আটক জঙ্গিদের কাছ থেকে তেমন কোনো তথ্য পাওয়া যায় না উল্লেখ করে পুলিশ মহাপরিদর্শক (আইজিপি) একেএম শহীদুল হক বলেছেন, তারা বলে আমাকে মেরে ফেলুন, আমি জান্নাতে যাবো। তিনি বলেন, যারা তাদের বোঝাচ্ছে তারা এসব তরুণদের হিপনোটাইজ (মোহাবিষ্ট) করে ফেলেছে। যখন তারা গ্রেপ্তার হয়, তখন তারা আর বাঁচতে চায় না। তারা বলে, আমাদের মেরে ফেলেন। আমরা বেহেস্তে যাবো, আপনারা জাহান্নামে যাবেন। গতকাল দুপুরে জাতীয় প্রেস ক্লাবে ‘দৈনিক আমার কাগজ’ পত্রিকার প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে ‘প্রেক্ষিত জঙ্গিবাদ ও সন্ত্রাস দমন: কমিউনিটি পুলিশিং ও গণমাধ্যমের ভূমিকা’- শীর্ষক সেমিনারে প্রধান আলোচকের বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। পত্রিকার সম্পাদকমণ্ডলীর সভাপতি হাজী আলাউদ্দিনের সভাপতিত্বে সেমিনারে আলোচনায় অংশ নেন বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের একাংশের সভাপতি মনজুরুল আহসান বুলবুল, তথ্য অধিদপ্তরের প্রধান তথ্য কর্মকর্তা একেএম শামীম চৌধুরী, তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের সচিব শ্যাম সুন্দর সিকদার এবং টঙ্গী এরশাদ নগর কেন্দ্রীয় জামে মসজিদের খতিব মুফতি মাওলানা কামাল উদ্দিন। অনুষ্ঠানে প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন- সাংবাদিক মীর আশফাকুজ্জামান।
আইজিপি বলেন, ব্লগার ও জঙ্গিরা সমাজ ও মানবতার ব্যত্যয় ঘটাচ্ছে। ব্লগাররা ইসলামকে তাদের মুক্তচিন্তার বিষয় বানিয়ে লেখনীর মাধ্যমে আর জঙ্গিরা মানুষ হত্যা করে এই কাজ করে যাচ্ছে। ব্লগাররা ধর্মকে, ইসলামকে তারা তাদের মুক্তচিন্তার বিষয় হিসেবে নিয়ে তা বিকৃত করে ধর্মের বিরুদ্ধে এবং নবীজী (সাঃ) এর বিরুদ্ধে যেভাবে কটূক্তি, কদাচার করছে যেগুলো ভাষায়ও প্রকাশ করা যায় না। এ সময় কিছু বয়োজ্যেষ্ঠ ব্যক্তি ধর্মের ভুল ব্যাখ্যা দিয়ে তরুণদের বিপথগামী করছে বলেও মন্তব্য করেন তিনি। বলেন, শায়খ আবদুর রহমান কিন্তু তরুণ ছিলেন না, বাংলাভাই ও মুফতি হান্নানও তরুণ নন। তারাই বিপথে টেনেছিলেন তরুণদের। আইজিপি বলেন, গুলশান ঘটনার পর মানুষের মধ্যে সচেতনতা সৃষ্টি হয়েছে। যে মহল আমাদের তরুণদের বিপথে নিয়ে যাচ্ছে তাদের বিরুদ্ধে সামাজিক আন্দোলন গড়ে তুলতে হবে।
আইজিপি বলেন, মদিনা সনদের মাধ্যমে সব ধর্মের মানুষ সেখানে একসঙ্গে বসবাস করেছে। আমাদের প্রিয়নবী (সাঃ) যখন মক্কা জয় করেন, তখন তিনি অন্য ধর্মের মানুষকে হত্যা করেননি। হুদাইবিয়ার সন্ধিতে অন্য ধর্মের মানুষের দেয়া সব শর্ত মেনে নেন মহানবী (সাঃ)। কিন্তু ওরা (জঙ্গি) কোরআনের ভুল ব্যাখ্যা দেয়। আইজিপি বলেন, জঙ্গিরা মুসলমান হয়ে মুসলমানকে হত্যা করছে। এটি ইসলামের বিরুদ্ধেও একটা ষড়যন্ত্র। ইহুদি, নাসারা এই ষড়যন্ত্র করছে বলেও তিনি মন্তব্য করেন। রাজনীতিবিদদের উদ্দেশে পুলিশ পরিদর্শক বলেন, তারা যদি মনে করেন এখন যা ঘটে সব সরকারের বিপক্ষে যাবে, এটা ভেবেও আনন্দিত হওয়ার কিছু নেই। আপনি যদি দেশকে ভালোবাসেন, তাহলে আপনার নিজের জায়গা থেকে কাজ করুন যে যেখানে আছেন, সেখানে থেকেই জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে কাজ করতে হবে।
মূল প্রবন্ধকার বলেন, গণতন্ত্র, ধর্মনিরপেক্ষতা, অসাম্প্রদায়িকতা ও সহজাত সম্প্রীতি আমাদের রাষ্ট্রীয়, সামাজিক এবং সাংবিধানিক মূল শক্তি। একে বিনষ্ট করার যে কোনো চক্রান্ত জাতিকে কঠোরভাবে মোকাবিলা করতে হবে। জঙ্গি দমনে গ্রামগঞ্জে, শহরে-বন্দরে দেশের সকল এলাকায় সকলকে এক প্লাটফর্মে দাঁড় করাতে হবে। শিক্ষক, মসজিদের ইমাম, রাজনৈতিক, সামাজিক-সাংস্কৃতিক কর্মী, ডাক্তার, আইনজীবী, প্রকৌশলী, শিক্ষার্থী, কৃষক-শ্রমিক, জনতা সকলকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে জঙ্গি দমনে তৎপর হতে হবে। কমিউনিটি পুলিশিং এবং গণমাধ্যম এ কাজে সহায়ক শক্তি হিসেবে কাজ করতে পারে।-মানবজমিন

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: