সর্বশেষ আপডেট : ৩ মিনিট ৩১ সেকেন্ড আগে
শনিবার, ৩ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

‘পুলিশও আমার খদ্দের, ভয় পাব কেন’

damagiঅনলাইন ডেস্ক:
অলিম্পিকের মতো এত বড় ইভেন্ট আমাদের জীবনে আর আসবে না। তাই এই প্রতিযোগিতা থেকে আমরা ভরপুর ফায়দা তুলতে চাই। সকলেই এই আসরের জন্য এতদিন মুখিয়ে ছিল। এই সুযোগে আমরা এত টাকা কামাতে চাই, যাতে এই পেশাটাই ছেড়ে দিতে হয়।” কথাগুলো এক নিঃশ্বাসে বলে গেলেন জুলিয়ানা। পেশায় তিনি একজন যৌনকর্মী। অলিম্পিকে এই সুযোগকে কাজে লাগিয়ে জুলিয়ানার মতো অনেকেই এই নরক থেকে বেরিয়ে আসতে চান। খবর-কলকাতা

ভারতীয় সময় অনুসারে আজ ভোর সাড়ে চারটে নাগাদ শুরু হয়ে গেল অলিম্পিকের মহাযজ্ঞ। ২০৬টি দেশ এই প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করছেন। প্রায় ১১,০০০ অ্যাথলিট এই প্রতিযোগিতায় যোগদান করছেন। কিন্তু, খেলার পাশাপাশি গোটা ব্রাজ়িল জুড়েই শুরু হয়ে গেছে এক অন্য খেলা। অনেকেই মেতে উঠেছেন শরীরী খেলায়। আর এই সুযোগেই রীতিমতো ফুলেফেঁপে উঠেছে দেহব্যবসার। “পসরা” সাজিয়ে বয়েছে অসংখ্য যৌনকর্মী।

এমনিতেই ব্রাজ়িলের অর্থনীতি এখন যথেষ্ট নিম্নমুখী। দেশে মুদ্রাস্ফিতির হার প্রচণ্ড বেশি, বাড়ছে কর্ম সংস্থানের অভাবও। তার উপরে দেশের রাজনৈতিক তরজা অনেকটাই প্রভাব বিস্তার করেছে। সেইদিক থেকে বিচার করতে গেলে, দেশের দারিদ্র এখন যথেষ্ট চোখে পড়ার মতো। তার উপরে ছড়িয়েছে জ়িকা ভাইরাসের আতঙ্ক। চলতি বছরের মে মাসেই দেশের একদল চিকিৎসক WHO-এর কাছে একটি চিঠি লিখে অলিম্পিক বন্ধ করার আবেদন জানিয়েছিলেন। যদিও সেই আবেদন স্বীকার করা হয়নি। এমতাবস্থায় যৌন ব্যবসার মাধ্যমেই নিজেদের অন্নসংস্থান করতে চাইছেন যৌনকর্মীরা।

চলতি অলিম্পিকে ব্রাজ়িলে মোট ১২,০০০ যৌনকর্মী ভিড় জমিয়েছেন। বিভিন্ন সোশ্যাল সাইটের মাধ্যমেই তাঁরা খদ্দের ধরেন। স্বল্প পোশাকে কোপাকাবানা সমুদ্র সৈকতে দাঁড়িয়েছিলেন জুলিয়ানা। মুখে গোলাপি রঙের চড়া লিপস্টিক। হাসি মুখেই বললেন, “আমি আমার ব্যবসায় সোনার পদক জয় করতে চাই। তবে এখানেও প্রচুর প্রতিযোগিতা রয়েছে…।”

জুলিয়ানা নয়, ব্রুনা নামেই ব্যবসা চালান তিনি। পুলিশের ভয় করে না ? এমন প্রশ্ন উঠতেই খানিক খিলখিলিয়ে হেসে উঠলেন তিনি। উলটে তিনিই জিজ্ঞাসা করলেন, “পুলিশকে কেন ভয় করতে যাব? ওরাও তো আমার খদ্দের। ব্রাজ়িলে যৌন ব্যবসা সর্বজনস্বীকৃত। দেশে যখন চাকরির এত আকাল, তখন এই উপায়েই সবথেকে সহজে অর্থ উপার্জন করা যায়। সব জিনিসের দাম আকাশছোঁয়া হয়ে উঠছে, আর দিনের পর দিন টাকার দাম পড়ছে।”

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: