সর্বশেষ আপডেট : ৪৬ মিনিট ৫৫ সেকেন্ড আগে
রবিবার, ২৫ জুন, ২০১৭, খ্রীষ্টাব্দ | ১১ আষাঢ় ১৪২৪ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

দোয়ারাবাজারে গরুর ধানের চারা খাওয়াকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষ : আহত ২০

2.-daily-sylhet-sanggarsho-newsদোয়ারাবাজার (সুনামগঞ্জ) প্রতিনিধি : সুনামগঞ্জের দোয়ারাবাজারের পল্লীতে গরুর ধানের চারা খাওয়াকে কেন্দ্র করে দু’পক্ষের সংঘর্ষে অন্তত ২০জন আহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। গুরুতর আহতদের সিলেট ওসমানী কলেজ হাসপাতালসহ বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে শুক্রবার বাদজুম্মা উপজেলার দোহালিয়া ইউনিয়নের মেন্দা করালি এলাকায়।

স্থানীয় সূত্র থেকে জানা যায়, শুক্রবার দুপুর ১২টার দিকে একই ইউনিয়নের করালি গ্রামের মুক্তার মিয়ার ধানের চারা খেয়ে ফেলে পার্শ্ববর্তী ধরমপুর নিবাসী দোহালিয়া ইউপি চেয়ারম্যান হাজি আব্দুল জলিলের গৃহপালিত গরু। এ সময় চেয়ারম্যানের কাজের লোক সেলিম গরুগুলো ফিরিয়ে আনতে গেলে মুক্তার মিয়ার লোকজন তাকে মারধর করে। মারধরের খবর পেয়ে বাদজুম্মা ধরমপুর থেকে চেয়ারম্যানের লোকজন ঘটনাস্থলে উপস্থিত হলে প্রতিপক্ষ আলমপুরসহ করালি গ্রামের লোকজন দেশিয় অস্ত্রসস্ত্র নিয়ে তাদের উপর হামলা চালায়।

এ সময় রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষে উভয়পক্ষের অন্তত ২০জন আহত হন। চেয়ারম্যান জলিলের পক্ষের আহতরা হচ্ছেন- মৃত ইছরাইল আলীর পুত্র বশির (২৫), নিজাম (৩০) ও বিলাল (২৭), মৃত আব্দুর রশিদের পুত্র রাসেল (২৬) ও বদরুল (৩০), হাজি আব্দুল মালিকের পুত্র ছব্দিল (৩৮), আব্দুল হান্নানের পুত্র ফয়জুল করিম (৩৫), মৃত হাছন আলীর পুত্র আক্তার হোসেন (২৬), জায়ফর আলীর পুত্র রহিম উদ্দিন (১৮), আছন আলীর পুত্র জাকির হোসেন (১৯)। তাদের আটজনকে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তন্মধ্যে বশির উদ্দিনের অবস্থা গুরুতর বলে জানা যায়। প্রতিপক্ষের আহতদের নাম জানা যায়নি।

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭, ০১৭১৭ ৬৮ ১২ ১৪ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: