সর্বশেষ আপডেট : ৬ মিনিট ২ সেকেন্ড আগে
শুক্রবার, ২ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ১৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

কাটাবন্দুক নিয়ে সেলফি, গুলিতে বন্ধু নিহত

4901754-3x2-940x627নিউজ ডেস্ক: তাগ করা কাটাবন্দুক নিয়ে সেলফি তুলতে গিয়ে বন্ধুকে গুলি করে মেরে ফেলেছেন অস্ট্রেলীয় এক ব্যক্তি।
পাঁচ মাস আগে অস্ট্রেলিয়ার মেলবোর্ন শহরের উত্তরে পার্ক ইন মোটেলের এ ঘটনায় ওই ব্যক্তিকে মানুষ হত্যার জন্য দায়ি করা হয়েছে বলে জানিয়েছে বিবিসি।

৫ মার্চ ঘুরতে এসে একদল বন্ধু ওই মোটেলটিতে উঠেছিলেন। রাতে মোটেল রুমে তারা একটি গুলিভর্তি কাটাবন্দুক নিয়ে ছবি তুলছিলেন। এ সময় ২০ বছর বয়সী আলবার্ট র‌্যাপোভস্কি তার প্রিয় বন্ধু মহম্মদ হাসানের (২২) দিকে বন্দুকটি তাগ করেন, আর হাসান সেলফি নেওয়ার জন্য তার ফোন তুলে ধরেন।

কিন্তু র‌্যাপোভস্কির হাতে ধরা বন্দুক থেকে হঠাৎ একটি গুলি বেরিয়ে হাসানের মুখে লাগে। এতে হাসান সঙ্গে সঙ্গেই মারা যান।

আদালতের নথি অনুযায়ী, র‌্যাপোভস্কি চিৎকার করে বলে ওঠেন, “আমি মো কে গুলি করেছি, আমি মো কে গুলি করেছি।”

এরপর ওই মোটেলে হাসানের লাশ ফেলে রেখে র‌্যাপোভস্কিসহ সব বন্ধু পালিয়ে যান।

ঘটনার বিবরণে জানা গেছে, এ ঘটনার আগে র‌্যাপোভস্কিকে তার বন্ধুরা বন্দুক থেকে গুলি বের করে নিতে বলেছিলেন, কারণ তারা জানতেন বন্দুক কীভাবে চালাতে হয় তা র‌্যাপোভস্কি জানেন না, যে কারণে বন্দুক বহন করার ছাড়পত্র পায়নি সে।

পরে মোটেলের মালিক ওই রুমে পড়ে থাকা হাসানের লাশ দেখতে পান।

ঘটনার পরদিন বিমানযোগে মেসিডোনিয়া পালানোর চেষ্টাকালে মেলবোর্ন বিমানবন্দরে ধরা পড়েন র‌্যাপোভস্কি।

অসুস্থ দাদিকে জরুরি ভিত্তিতে দেখতে যাওয়ার কথা বলে এক ট্রাভেল এজেন্ট বন্ধুর মাধ্যমে বিমানের টিকেট সংগ্রহ করেছিলেন তিনি।

বুধবার মেলবোর্নের ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে খুনের দায়ে অভিযুক্ত হওয়ার পর র‌্যাপোভস্কি খুনের দায় স্বীকার করেন।

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: