সর্বশেষ আপডেট : ৫ মিনিট ৩১ সেকেন্ড আগে
বৃহস্পতিবার, ৮ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

অলিম্পিক দেখতে রিকশা চালিয়ে চীন থেকে রিও!

full_1768775097_1470289359নিউজ ডেস্ক:: অলিম্পিক দেখতে রিকশা চালিয়ে চীন থেকে রিও ডি জেনিরোতে গেলেন ৬০ বছরের এক তরুণ। অবিশ্বাস্য এ ঘটনা যিনি ঘটিয়েছেন তার নাম চেন গুয়ানমিং।

তবে এবারই প্রথম নয়। রিকশা চালিয়ে এর আগে দুবার অলিম্পিক দেখতে গেছেন গুয়ানমিং। পরপর তিনবার অলিম্পিক দেখতে গিয়ে সাইকেলে পাড়ি দিয়েছেন ১ লাখ ৭০ হাজার কিলোমিটারেরও বেশি পথ।

প্রথম এ কাজ তিনি করেছেন আট বছর আগে বেইজিং অলিম্পিকে। এর চার বছর পর লন্ডন অলিম্পিকে যান তিনি। আর এবার গেলেন তিনি ব্রাজিলের রিও ডি জেনিরোতে। পরপর তিনবার তিনি অলিম্পিক দেখতে গেলেন রিকশা চালিয়ে। ফলে রিকশাওয়ালা দর্শক হিসেবে এরই মধ্যে বেশ পরিচিতি পেয়েছেন তিনি। রীতিমতো সেলিব্রিটি বনে গেছেন এখন।

গুয়ানমিংয়ের অদ্ভুত এ খেয়াল প্রথম হয়েছিল ২০০৮ সালে বেজিং অলিম্পিকের সময়। চীনের জুঝু শহরে বসবাস গুয়ানমিংয়ের। পেশায় তিনি কৃষক। তবে বিভিন্ন ধরনের খেলা ভালোবাসেন তিনি। আর এ থেকেই ভালোবাসা জন্মায় অলিম্পিকের প্রতি।

তার দেশের রাজধানীতে অলিম্পিক আয়োজনের কথা জানার পর সিদ্ধান্ত নিলেন বেইজিং যাবেন তিনি। কিন্তু যাবেন কিভাবে? সিদ্ধান্ত নিলেন রিকশা চালিয়ে অলিম্পিক ভিলেজে যাবেন তিনি। যেই ভাবা সেই কাজ। বেরিয়ে পড়লেন তিনি। জুঝৌ থেকে ৮০০ কিলোমিটার পথ পাড়ি দিয়ে রিকশা চালিয়ে বেইজিং পৌঁছলেন গুয়ানমিং।

বেশ উপভোগ করেন তিনি বেইজিং অলিম্পিক। যেদিন অলিম্পিক শেষ হয় তিনি জানলেন পরবর্তী অলিম্পিক হবে লন্ডনে ২০১২ সালে। সিদ্ধান্ত নিয়ে ফেললেন গুয়ানমিং লন্ডন অলিম্পিকেও যাবেন তিনি এবং তা রিকশা চালিয়েই।

এরপর দীর্ঘ দুই বছরে ৬০ হাজার কিলোমিটার পথ পাড়ি দিয়ে, ১৬ দেশ ঘুরে লন্ডনে পৌঁছে যান গুয়ানমিং। ঠিক সময়েই লন্ডন পৌঁছেছিলেন তিনি। অবাক করা বিষয় হলো লন্ডন অলিম্পিকের পর সিদ্ধান্ত নিলেন রিও অলিম্পিকেও যাবেন তিনি রিকশা চালিয়ে।

অবশ্য এবারের কাজটা আরও কঠিন ছিল তার জন্য। গুয়ানমিং চীনে তার বাড়িতে ফিরে বিশ্রাম নিলেন। কিছুদিন পর আবার লন্ডনে চলে যান এবং সেখান থেকেই শুরু হয় তার রিও-যাত্রা।

এবার এই দীর্ঘ যাত্রায় পাড়ি দেন তিনি ১ লাখ ১০ হাজার কিলোমিটারেরও বেশি পথ। গুয়ানমিং কানাডা, যুক্তরাষ্ট্র, মেক্সিকো ঘুরে দক্ষিণ আমেরিকা হয়ে আমাজনের বন পাড়ি দিয়ে শেষ পর্যন্ত রিওতে পৌঁছান গত রোববার। সম্পন্ন হয় তার তিন বছরের যাত্রা।

এদিকে রিওতেও বেশ পরিচিত হয়ে গেছেন চীনের এই অলিস্পিক প্রিয় মানুষটি। ব্রাজিলে তিনি এখন সেলিব্রিটিদের মতোই সময় কাটাচ্ছেন। লোকজন তার সঙ্গে সেলফি তুলছে। বেশ উপভোগ করছেন তিনি সময়টা।

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: