সর্বশেষ আপডেট : ৭ মিনিট ৩৯ সেকেন্ড আগে
শুক্রবার, ৯ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

বৃটিশ এমপি’র যৌন কেলেঙ্কারি

25271_x6ডেইলি সিলেট ডেস্ক:
ফের আলোচনায় বৃটিশ রাজনীতিক সাইমন ডানচুক। বৃটিশ লেবার পার্টির ৪৯ বছর বয়সী এই সংসদ সদস্য যৌন সম্পর্ক স্থাপন করেছিলেন ২২ বছরের এক তরুণীর সঙ্গে। তার নির্বাচনী এলাকার অফিসেই করেছিলেন এই কাজ। আর এ কাণ্ড ঘটানোর মাত্র চার দিন আগে টুইটারে তার পরিচয় হয় ওই তরুণীর সঙ্গে। ডানচুক সম্পর্কে ওই তরুণীর মন্তব্য, যৌনতার জন্য পাগল তিনি। চার সন্তানের জনক ডানচুকের এই যৌন কেলেঙ্কারির খবর প্রকাশ করেছে বৃটিশ ট্যাবলয়েড দ্য সান। ঘটনাটি বছরখানেক আগের। খবরে বলা হয়েছে, যৌন কেলেঙ্কারির ঘটনা ডানচুকের জন্য এই প্রথম নয়। গত বছরের শেষের দিকে জানা যায়, ১৭ বছর বয়সী এক তরুণী চাকরির জন্য ডানচুকের সঙ্গে যোগাযোগ করলে ডানচুক তাকে যৌন আক্রমণাত্মক মেসেজ পাঠান। এর দায়ে লেবার পার্টি তাকে সাময়িকভাবে বরখাস্তও করে। ডানচুক অবশ্য মদ্যপ অবস্থায় ওই মেসেজ পাঠিয়েছিলেন বলে দাবি করেন।

এ বছরের জানুয়ারিতে তার বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগও ওঠে। সেটা অস্বীকার করেন তিনি। এবারে ২২ বছর বয়সী এক তরুণীর সঙ্গে তার যৌন সম্পর্কের খবর বেরিয়ে এসেছে। টুইটারে ডানচুকের সঙ্গে পরিচয় হয় ২২ বছর বয়সী অ্যালিস নামের এক তরুণীর। পরিচয়ের মাত্র এক ঘণ্টা পরেই ডানচুক অ্যালিসকে বলেন যে, সে তাকে কামোন্মত্ত করে তুলেছে। এর মাত্র চার দিন পরেই ওই তরুণীকে নিজের সংসদীয় এলাকা রোশালডেতে ডেকে নেন ডানচুক। সেখানকার অফিসেই একান্ত কিছু সময় কাটান তারা। এ সময় তাদের মধ্যে শারীরিক সম্পর্কও স্থাপিত হয়। অ্যালিস বলেন, ‘তিনি আমাকে তার ডেস্কের ওপর বসান এবং আমার নিতম্বে চপেটাঘাতও করেন।’ অফিসে যৌন সম্পর্ক স্থাপন করা ছাড়াও অ্যালিসের সঙ্গে ছয় হাজার অশ্লীল মেসেজ আদান-প্রদান করেন ডানচুক। তাদের মধ্যে যৌন উত্তেজক পোশাক নিয়েও কথা হয়েছে। অ্যালিস বলেন, ‘তিনি যৌনতার জন্য পাগল। এমন একজন সুপরিচিত এমপি’র সঙ্গে থাকতে পেরে আমি গর্ব অনুভব করেছি। এটা অত্যন্ত উত্তেজনাকর ছিল। তবে এটা দায়িত্বজ্ঞানহীনও ছিল। নিজের অফিসকে যৌনতার জন্য ব্যবহার করা উচিত হয়নি তার। কিন্তু আমি এটা হতে দিয়েছি। কারণ আমি তাকে কল্পনায় চাইতাম।’ তিনি আরো বলেন, ‘তিনি সমাজের সম্মানিত একজন বলে পরিচিত।

কিন্তু তার আচরণ অল্পবয়সী কামুক ছেলেদের মতো।’ ডানচুকের সঙ্গে পরিচয় ও ঘনিষ্ঠতার অনেক কথাই জানিয়েছেন অ্যালিস। তিনি বলেন, টুইটারে পরিচয় হওয়ার পর এক পর্যায়ে তিনি ডানচুককে বলেন যে, তিনি তখনও রাতের পোশাকেই রয়েছেন। এর জবাবে ডানচুক তাকে লিখেন, তুমি আমার কল্পনার জগৎকে বন্য করে তুলেছো। কয়েক মিনিট পরেই ডানচুক আবার তাকে লিখেন, তুমি আমাকে কামোন্মত্ত করে তুলেছো। ডানচুক কেন এমন লিখেছেন তা জানতে চাইলে জবাবে ডানচুক লিখেন, ‘আমরা যখন সাক্ষাৎ করব তখন আমরা কী করব তা ভেবেই কামোন্মত্ত হয়ে পড়েছি।’ এক পর্যায়ে ডেটিংয়ে সম্মত হন অ্যালিস ও ডানচুক। তখন অ্যালিসকে ডানচুকের লন্ডনের ফ্ল্যাট ও স্প্যানিশ ভিলাতে থাকার আমন্ত্রণ জানান ডানচুক। পরস্পরের মধ্যে যৌন উত্তেজক মেসেজ আদান-প্রদান করতে থাকেন তারা। এসব মেসেজে ডানচুক সরাসরি অ্যালিসকে যৌন সম্পর্ক স্থাপনে তার অধীর আগ্রহের কথা জানান। পরিচয়ের চার দিন পরেই পারস্পরিক সম্মতির ভিত্তিতেই ডানচুক অ্যালিসকে আমন্ত্রণ জানান তার সংসদীয় এলাকার অফিসে। স্থানীয় একটি সরাইখানায় মদ পান করে তারা দুজন প্রবেশ করেন ওই অফিসে। অ্যালিস বলেন, ‘একটু বয়স্ক মানুষদেরই আমার পছন্দ। তাকে সত্যিই আমি কল্পনায় কামনা করেছি। তার অফিসে গিয়ে প্রথমে আমরা চুম্বন করি। পরে পূর্ণ শারীরিক সম্পর্কই স্থাপিত হয় আমাদের মধ্যে। তিনি এটা পছন্দ করেছিলেন। আর সব শেষে তিনি নিপাট ভদ্রলোক হয়ে যান। আমাকে বাসায়ও নামিয়ে দিয়ে আসেন তিনি।’ এই যৌন সম্পর্ক কতটা তৃপ্তিকর ছিল তা নিয়ে ডানচুক পরে মেসেজও পাঠান অ্যালিসকে।

এই সম্পর্ক চলতে থাকে আরো বেশ কিছুদিন। বিভিন্ন রেস্টুরেন্ট ও জ্যাজ ক্লাবে সাক্ষাৎ করেন তারা। পরে ওই অফিসে ও ডানচুকের লন্ডনের বাড়িতে আরো অনেকবারই শারীরিক সম্পর্ক হয় তাদের মধ্যে। ডানচুকের সম্পর্কে অ্যালিসের মন্তব্য, ‘আমার সঙ্গে শারীরিক সম্পর্ক স্থাপনের জন্য তাকে উন্মত্ত বলেই মনে হয়েছে আমার কাছে।’ অ্যালিস ডানচুকের মেসেজ ব্লক করার পরেই ছিন্ন হয় তাদের পারস্পরিক যোগাযোগ। তবে এ বিষয়ে ডানচুক কোনো মন্তব্য করেননি।

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: