সর্বশেষ আপডেট : ১ সেকেন্ড আগে
সোমবার, ৫ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

জাকির নায়েকের বক্তৃতায় উদ্বুদ্ধ অন্তত ৫৫ জঙ্গি

photo-1470065427আন্তর্জাতিক ডেস্ক: ভারতের ধর্মবিষয়ক বক্তা জাকির নায়েকের বক্তব্য শুনে অন্তত ৫৫ জন জঙ্গি উদ্বুদ্ধ হয়েছেন। এরপর ওই জঙ্গিদের কেউ আইএসে, কেউ লস্কর-ই-তৈয়্যবা কেউ আবার ইন্ডিয়ান মুজাহিদিনে নাম লিখিয়েছিলেন।

ভারতের কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রণালয়ের নির্দেশে কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থা এনআইএ জাকির নায়েকের সম্পর্কে তথ্য জোগাড় করতে নেমে এমনটাই তথ্য সংগ্রহ করেছে বলে জানিয়েছে ভারতের সংবাদমাধ্যমগুলো।

ভারতের সংবাদমাধ্যমে প্রকাশ,জাকির নায়েকের বিরুদ্ধে আইনি পদক্ষেপ নেওয়ার আগে উপযুক্ত তথ্য-প্রমাণ সংগ্রহের নির্দেশ দিয়েছিল ভারতের কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রণালয়।

সেই নির্দেশ মেনেই ভারতের কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থা এনআইএ জাকির নায়েকের বিরুদ্ধে তদন্তে নেমে ৫৫ জনের একটি তালিকা তৈরি করেছে। এনআইএ সূত্রে খবর, ২০০৫ সাল থেকে ২০১৫ সাল পর্যন্ত ভারতের মাটিতে সন্ত্রাসবাদের অভিযোগে এই জঙ্গিদের গ্রেপ্তার করা হয়েছিল।

তদন্তে জানানো হয়, জাকির নায়েকের বক্তৃতা এই ৫৫ জন জঙ্গিকে উদ্বুদ্ধ করেছিল।এই জঙ্গিদের সবারই জাকিরের সভায় উপস্থিত থাকার এবং টেলিভিশনে প্রতিদিন জাকির নায়েকের ভাষণ শোনার ইতিহাস আছে।

এই ৫৫ জঙ্গির মধ্যে আছেন, মুম্বাইয়ের ইসলামিক রিসার্চ ফাউন্ডেশনের সক্রিয় কর্মী ফিরোজ দেশমুখ, আইএসের অনলাইন নিয়োগকারী আফসা জাবিন, পশ্চিমবঙ্গের বর্ধমান বিস্ফোরণকাণ্ডে ধৃত বাংলাদেশের জামাত সদস্য আসাদুল্লা আলী এবং রফিকুল ইসলাম।

সংবাদমাধ্যমের প্রতিবেদনে ভারতীয় তদন্তকারীরা জাকির নায়েকের কার্যক্রমের ওপর কড়া নজরদারি চালাচ্ছেন বলেও জানা গেছে। খতিয়ে দেখা হচ্ছে ভারতে ইসলামিক রিসার্চ ফাউন্ডেশন এবং মুম্বাই ও চেন্নাইতে জাকির নায়েকের তৈরি স্কুলগুলোর কার্যকলাপও।

এর আগে বাংলাদেশের রাজধানী ঢাকার গুলশান হোলি আর্টিজান বেকারিতে হামলাকারী জঙ্গির মধ্যে দুই জন জাকির নায়েকের বক্তৃতা শুনে অনুপ্রাণিত হওয়ার কথা প্রকাশ্যে আসার পরই ভারত ও বাংলাদেশের নিরাপত্তাবাহিনীর নজরে আসেন জাকির নায়েক। এর ফলে গত মাসেই বাংলাদেশে জাকির নায়েকের পিস টিভির সম্প্রচার বন্ধ করে দেওয়া হয়।

তবে সম্প্রতি একটি টিভি চ্যানেলে সাক্ষাৎকারে জাকির নায়েক অভি‌যোগ করেছেন, তিনি মিডিয়া ট্রায়ালের শিকার। সাক্ষাৎকারে তিনি বলেন, ‘ভারতীয় মিডিয়ায় আমি আমার সম্পর্কে অনেক অভি‌যোগ শুনেছি। কিন্তু আমি এ নিয়ে চিন্তিত নই। এখনো দেশের কোনো এজেন্সি থেকে আমাকে তদন্তের জন্য ডাকা হয়নি। যেহেতু আমাকে নিয়ে দেশে এখন মিডিয়া ট্রায়াল চলছে তাই এখন দেশে ফিরছি না।

এর আগে গত সপ্তাহে,তাঁর বিরুদ্ধে মিথ্যে অভি‌যোগ আনা হচ্ছে বলে ভারতের টেলিভিশন চ্যানেল টাইমস নাওয়ের বিরুদ্ধে ৫০০ কোটি টাকা ক্ষতিপূরণ চেয়ে আইনি নোটিশ পাঠিয়েছিলেন জাকির নায়েক।

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: