সর্বশেষ আপডেট : ৩৩ সেকেন্ড আগে
সোমবার, ২৭ ফেব্রুয়ারী, ২০১৭, খ্রীষ্টাব্দ | ১৫ ফাল্গুন ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

রাসেলও তখন মৌলভীবাজারের উঠতি গুন্ডা

6961বিনোদন ডেস্ক :: দেশের জনপ্রিয় পপ সঙ্গীত শিল্পী আসিফ আকবর। তিনি তার সুরেলা কন্ঠের জন্য দেশ বিদেশে বিশেষভাবে সুপরিচিত। আসিফ তার ফেসবুক পেইজে রাতে একটা স্ট্যটাস দিয়েছেন। সেখানে মুখ্য বিষয় ছিলো ‘গুন্ডা’ নিয়ে।

পাঠক আপনাদের পড়ার সুবিধার্থে স্ট্যাটাসটি হুবুহু তুলে ধরা হলো:-
‘গুন্ডা। আমার খুব প্রিয় একটা শব্দ। মহল্লায় যারা বড়ভাই গুন্ডা ছিলেন, তাদের সান্নিধ্য আমি পেয়েছি । ওনাদের কারনে এলাকার মানুষ শান্তিতে থাকতেন। মারপিট যা করার সেগুলো মহল্লার বাইরেই করতেন। এখন তাদের জীবন যাপন দেখলে বোঝাই যায়না তারা একসময় গুন্ডা ছিলেন। আর কিছু গুন্ডা আছে এখনো গুন্ডামী করে, এদের বেশীর ভাগ ফাতরা, কমজাত রাজনৈতিক গুন্ডা। গুন্ডা নামের কলঙ্ক।
জিলা স্কুলে ভর্তির পর আমাকে Tense শেখার জন্য সিলেট মৌলভীবাজারে চাচার বাসায় পাঠানো হল। আমি উঠতি গুন্ডা। পকেটে মাছ মার্কা ছুরি, সেভেন গিয়ার, সুইচ গিয়ার ছুরি, কোমরে নাইন চাক্কু। চাচাতো ভাই রাসেলও তখন মৌলভীবাজারের উঠতি গুন্ডা। ওর জন্য উপহার হিসেবে একটা মাছ মার্কা ছুরি নিয়ে গেলাম। চাচার হাতে ধরা পড়ে গেলো।
আমার আব্বার মতই আমার চাচা রাসেলকে মারার জন্য মুখিয়ে থাকতেন। চোখের সামনে বেদম প্রহার চললো। ভাবলাম আমার পালা শুরু হবে কিনা! চাচা কিছুই বললেন না আমাকে। ভাবলাম কুমিল্লা আসলে আব্বা বাকি প্যাকেজটা বুঝিয়ে দেবেন। নাহ্ বেঁচে গেলাম। চাচা ব্যাপারটা আব্বাকে জানাননি !!! আমরা গুন্ডা ছিলাম, গুন্ডা আছি, গুন্ডা থাকবো।’

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭, ০১৭১৭ ৬৮ ১২ ১৪ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: