সর্বশেষ আপডেট : ১১ মিনিট ৫৯ সেকেন্ড আগে
শুক্রবার, ৯ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

ব্যাচেলরদের বাসা থেকে নামানোর কোনো নির্দেশনা নেই : ডিএমপি

photo-1469879751নিউজ ডেস্ক: রাজধানীর কল্যাণপুরের তাজ মঞ্জিলে পুলিশি অভিযানে নয়জন জঙ্গি নিহত হওয়ার পর পুরো রাজধানীজুড়ে বাড়িওয়ালা ও ভাড়াটিয়াদের মধ্যে একরকম মিশ্র প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি হয়েছে। মেসবাসায় জঙ্গি আস্তানার খোঁজের পর পুলিশের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছিল যে, প্রত্যেক বাড়ির মালিককেই তাদের ভাড়াটিয়ার তথ্য থানায় জমা দিতে হবে। কেউ জমা না দিলে তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

পুলিশের এমন বক্তব্যের পর বাড়িওয়ালারা মনে করছেন, ব্যাচেলরদের ভাড়া দিলে সমস্যা হতে পারে। তাই অনেক বাড়িওয়ালা ব্যাচেলর ভাড়াটেদের বাসা ছাড়ার নোটিশ দিয়ে দিয়েছেন।

তবে পুলিশ জানাচ্ছে, ঢাকায় ব্যাচেলরদের বাসা বা মেস ছাড়ার বিষয়ে বাড়িওয়ালাদের তারা কোনো নির্দেশনা দেয়নি। শুধু ভাড়াটিয়াদের পূর্ণাঙ্গ তথ্য সংগ্রহে রাখার কথা বলা হয়েছে।

আজ শনিবার দুপুরে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) মিডিয়া সেন্টারে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা বলেন উপকমিশনার (মিডিয়া অ্যান্ড পাবলিক রিলেশন) মো. মাসুদুর রহমান।

জানা গেছে, কল্যাণপুরে একটি মেসবাসায় জঙ্গি আস্তানার খোঁজ পাওয়ার পর ওই এলাকায় ব্যাচেলরদের বাসা ভাড়া নিষিদ্ধ করা হয়েছে। এ ছাড়া পুরো রাজধানীতেই ব্যাচেলরদের ভোগান্তির কথা শোনা যাচ্ছে।

এ বিষয়ে মাসুদুর রহমান বলেন, ‘ভাড়াটিয়া ভাড়াটিয়াই- কে ব্যাচেলর, কে বিবাহিত সেটা বড় কথা নয়। মূল বিষয়টা হলো ভাড়াটিয়াদের পূর্ণাঙ্গ তথ্য সংগ্রহে রাখা। ব্যাচেলরদের বাসা থেকে নামিয়ে দিতে বা বাড়ি ছাড়ার নোটিশ দিতে কোনো রকম নির্দেশনা দেওয়া হয়নি। বাড়ির মালিক কাকে ভাড়া দেবেন নাকি দেবেন না, এটা তাঁদের ব্যক্তিগত ব্যাপার। আমরা শুধু চাই সবার নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে।’

যেসব জায়গায় এখন পর্যন্ত জঙ্গি আস্তানা পাওয়া গেছে, সবগুলোতেই বিস্ফোরক পাওয়া গেছে জানিয়ে ডিএমপির উপকমিশনার বলেন, ‘এই বিস্ফোরকগুলো বিস্ফোরিত হলে জঙ্গিরা যেমন ক্ষতিগ্রস্ত হতো, তেমনি প্রতিবেশীরাও। এ জন্যই বাড়িওয়ালাদের বলেছি, পূর্ণাঙ্গ তথ্য সংগ্রহে রাখুন।’

পুলিশই তল্লাশির সময় বাসা ও মেসবাড়িগুলোর বাসিন্দাদের জাতীয় পরিচয়পত্র (এনআইডি) না থাকার কারণে বা যাদের বয়স ১৮ বছর পূর্ণ হয়নি, এ নিয়ে তাদের অনেক ঝামেলা পোহাতে হচ্ছে। এমন বিষয়ে দৃষ্টি আকর্ষণ করলে মাসুদুর রহমান বলেন, ‘জাতীয় পরিচয়পত্র সঙ্গে না থাকলে জন্মসনদ বা স্থানীয় চেয়ারম্যানের নাগরিকত্ব সনদ সঙ্গে রাখবেন।’

ভাড়াটিয়াদের ফরম জমা নেওয়ার পর পুলিশ কোনো রিসিভ কপি দিচ্ছে না কেন এমন প্রশ্নের জবাবে উপকমিশনার জানান, জমা নেওয়ার পর তথ্য যাচাই-বাছাই শেষে প্রত্যেক বাড়িওয়ালাকেই রিসিভ কপি দেওয়া হবে।

উল্লেখ্য, গত মঙ্গলবার ভোরে রাজধানীর কল্যাণপুরে একটি ব্যাচেলর মেসে অভিযান পরিচালনা করে পুলিশ। এতে নয় জঙ্গি নিহত হয়। এর পর থেকেই ব্যাচেলর ও বাড়ির মালিকদের মধ্যে নানা রকম সমস্যা তৈরি হয়।-এনটিভি

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: