সর্বশেষ আপডেট : ১ ঘন্টা আগে
সোমবার, ২৭ মার্চ, ২০১৭, খ্রীষ্টাব্দ | ১৩ চৈত্র ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

তেহরানের নতুন অধ্যায়

148481_1আন্তর্জাতিক ডেস্ক: মহাদেশের বিভিন্ন দেশের সঙ্গে তেহরানের সম্পর্ক উন্নয়নের লক্ষ্যে আফ্রিকার বেশ কয়েকটি রাষ্ট্র সফর শেষে ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মোহাম্মাদ জাওয়াদ জারিফ শুক্রবার সকালে দেশে ফিরেছেন। কূটনীতি বিশ্লেষকরা বলছেন, এটা ইরানের পররাষ্ট্রনীতির ক্ষেত্রে এক নতুন অধ্যায়।

ড: জারিফ তার সফরের শেষ দিনে বৃহস্পতিবার মালিতে যান। মালির উচ্চ পদস্থ কর্মকর্তাদের সঙ্গে দ্বিপক্ষীয় সম্পর্ক, আঞ্চলিক ও আন্তর্জাতিক বিভিন্ন বিষয়সহ যৌথ অর্থনৈতিক তৎপরতা নিয়েও আলোচনা হয়। গিনি, ঘানা, নাইজেরিয়া ও মালি সফর করে এসে পররাষ্ট্রমন্ত্রী জাওয়াদ জারিফ টুইটারে তার ব্যক্তিগত পেইজে লিখেছেন: অর্থনৈতিক ক্ষেত্রে সহযোগিতাসহ পশ্চিম আফ্রিকায় উগ্রবাদ ও সন্ত্রাস মোকাবেলায় প্রতিশ্রুতির বিষয়গুলো ছিল সফরের প্রধান আকর্ষণ।

মালির প্রধানমন্ত্রী মোদিবো কেইতার সঙ্গে সাক্ষাতে ড. জারিফ মালিতে উগ্রবাদ ও সন্ত্রাসী গোষ্ঠির উপস্থিতিতে উদ্বেগ প্রকাশ করেন। মাদকদ্রব্য, উগ্রবাদ এবং সন্ত্রাসবাদ মোকাবেলায় মালির পাশে দাঁড়াতে ইরানের প্রস্তুতির কথা ঘোষণা করেন তিনি।
মোদিবো কেইতাও মালিসহ উন্নয়নশীল দেশগুলোর জন্য ইরানকে একটি যথার্থ আদর্শ দেশ বলে উল্লেখ করে বলেন,অর্থনৈতিক ক্ষেত্রে ইরানের সঙ্গে সম্পর্ক উন্নয়নকে তার দেশ স্বাগত জানায়।

মালির সংসদ স্পিকারের সঙ্গেও ড: জারিফ বৃহস্পতিবার সাক্ষাৎ করেন। ওই সাক্ষাৎকালে ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন মালির সঙ্গে সম্পর্ক বিস্তারকে তার দেশ খুবই গুরুত্বের সঙ্গে বিবেচনা করে। ইসলাম বিস্তারে দু’দেশের ভূমিকাই বেশ গুরুত্বপূর্ণ বলেও উল্লেখ করেন তিনি।

মালির পার্লামেন্ট স্পিকার ইসাক সিদবিয়া বলেন তার দেশ আঞ্চলিক ও আন্তর্জাতিক ক্ষেত্রে ইরানের অবস্থানকে সমর্থন করে। এই সমর্থনকে তিনি স্থায়ী এবং দৃঢ় বলেও উল্লেখ করেন।

মালিতে দুদেশের অর্থনীতি বিশেষজ্ঞদের মধ্যেও বৈঠক হয়। ওই বৈঠকে জারিফ বলেন অর্থনৈতিক উন্নয়ন ও পারস্পরিক সহযোগিতার আওতায় মালির জনগণকে যে-কোনো প্রকার সাহায্য ও সহায়তার ব্যাপারে ইরান কোনোরকম ইতস্তত করবে না।

আফ্রিকা সফরে তার সঙ্গে বড় একটি অর্থনৈতিক প্রতিনিধিদল ছিল। আরো ছিলো রাস্তা ও বাঁধ নির্মাণ বিশেষজ্ঞ, বিদ্যুৎশক্তি উৎপাদন বিশেষজ্ঞ, কারিগরি ও প্রযুক্তি বিশেষজ্ঞ, স্বাস্থ্য ও চিকিৎসা বিশেষজ্ঞ এবং ব্যাংকিং কার্যক্রম বিশেষজ্ঞ।

নাইজেরিয়া সফরে গিয়ে ড. জারিফ সেদেশের প্রেসিডেন্ট, সংসদ স্পিকার এবং পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন। বোকোহারামসহ সন্ত্রাসবাদ মোকাবেলায় ইরান সহযোগিতা করতে প্রস্তুত বলে জানান তিনি। সেদেশের শিয়া নেতা শেখ ইব্রাহিম জাকজাকির শারীরিক পরিস্থিতিতে উদ্বেগ প্রকাশ করেন। তিনি বলেন জনাব জাকজাকি ঐক্যের প্রয়োজনে সকল মাজহাব ও ফের্কাকে অভিন্ন অবস্থানে আসার আহ্বান জানিয়েছেন। ঐক্যের এই আহ্বায়কের মুক্তির দাবি জানান ড: জারিফ।

ঘানা এবং গিনি সফরে গিয়েও দ্বিপক্ষীয় সহযোগিতা ও সম্পর্ক উন্নয়নের ওপর জোর দেন ইরানি পররাষ্ট্রমন্ত্রী। একইসঙ্গে আঞ্চলিক ও আফ্রিকার সমস্যাগুলো কী করে সমাধান করা যায় সে বিষয়গুলিও খতিয়ে দেখেন তিনি।

রবিবার নাইজেরিয়া সফরের মধ্য দিয়ে জারিফ তার পশ্চিম আফ্রিকার দেশ সফর শুরু করেন। বৃহস্পতিবার মালি সফরের মধ্য দিয়ে শেষ হয় তার সফর। পররাষ্ট্রমন্ত্রী হিসেবে এটা তার তৃতীয়বারের মতো আফ্রিকা সফর।

২০১৪ সালের শীত মৌসুমে তিনি পূর্ব আফ্রিকার দেশ কেনিয়া, উগান্ডা, বুরুন্ডি এবং তানজানিয়া সফর করেছিলেন। আবার ২০১৫ সালের গ্রীষ্মে গিয়েছিলেন উত্তর আফ্রিকার দেশ আলজেরিয়া ও তিউনিশিয়ায়।
সূত্র: পার্সটুডে

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭, ০১৭১৭ ৬৮ ১২ ১৪ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: