সর্বশেষ আপডেট : ৩৪ মিনিট ২১ সেকেন্ড আগে
রবিবার, ৪ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

শান্ত-ভদ্র আকিফুজ্জামান জঙ্গি : হতবাক প্রতিবেশীরা

full_1798817718_1469688761নিউজ ডেস্ক: কল্যাণপুরে ‘অপারেশন স্টর্ম ২৬’ অভিযানে নিহত নয় জঙ্গির মধ্যে জাতীয় পরিচয়পত্রের সূত্র ধরে সাত জঙ্গির পরিচয় সম্পর্কে নিশ্চিত হয়েছে পুলিশ।

ঢাকা মহানগর পুলিশ জানিয়েছে, নিহতরা হলেন- জোবায়ের হোসেন, সাজাদ রউফ অর্ক ওরফে মরক্কো, আব্দুল্লাহ, আবু হাকিম নাঈম, তাজউল হক রাশিক, আকিফুজ্জামান খান ও মতিয়ার রহমান।

এদের মধ্যে আকিফুজ্জামান খানের বাসা রাজধানীর গুলশানে। পুলিশের দেয়া ঠিকানা অনুসারে রাজধানীর গুলশানের ১০ নম্বর সড়কের ২৫ নম্বর বাড়িটি সাইফুজ্জামান খানের বলেও প্রতিবেশীরা জানিয়েছেন। সাইফুজ্জামান খানের ছেলে আকিফুজ্জামান খান। তবে প্রতিবেশীরা বলেছেন, খুবই শান্ত ও ভদ্র প্রকৃতির ছেলে ছিলেন আকিফুজ্জামান। তাকে জঙ্গি হিসেবে দেখে তারা হতবাক।

বুধবার রাতে ওই বাসায় গিয়ে দেখা যায়, ২৫ নম্বর বাড়িটি রঙের। দুইতলা বাড়িটির মূল সড়কের পাশে পূর্বদিকে এবং বাড়ির উত্তর পাশের গলির সড়কের দিকে মোট দুটি গেট রয়েছে। তবে উত্তর পাশের গেটটি তালা দেয়া এবং গেটের সামনে ময়লার স্তূপ। পূর্ব পাশের মূল গেট দিয়ে বাড়ির ভেতরে ধুলোপড়া একটি পুরনো গাড়ি দেখা গেছে।

বাড়িটির দক্ষিণ পাশে দুইতলা আরেকটি ভবনে রয়েছে মদেরবার ‘এসটিএল ডিপ্ল্যোম্যাট ওয়ার হাউজ’। এই বাড়িটি সাইফুজ্জামান খানের ভাইয়ের। তিনি সেখানে থাকেন না, বারের কাছে ভাড়া দিয়েছেন।

বুধবার রাতে বাড়িটির কলবেল চাপলে বোরকা পরা একজন নারী বের হয়ে আসেন। সাংবাদিক পরিচয় দিয়ে কথা বলতে চাইলে তিনি বলেন, বাসায় অসুস্থ রোগী আছেন। কেন আপনারা এত বিরক্ত করছেন!

পুলিশের দেয়া ছবি দেখে আকিফুজ্জামান খানকে চিনতে পারেন পাশের বাড়ির একজন নিরাপত্তা রক্ষী। ২৫ নম্বর বাড়িটির পাশের বাড়িতে চারবছর ধরে নিরাপত্তা রক্ষীর দায়িত্বরত একজন জানান, বাড়িটির দ্বিতীয়তলায় কেউ থাকেন না। বুধবার রাতে গিয়েও দেখা যায়, প্রথমতলায় আলো জ্বালানো থাকলেও অন্ধকার দ্বিতীয়তলা।

এই বাড়িটি ভূতুড়ে বাড়ি বলেও ডাকেন কেউ কেউ। বুধবার সকাল বেলায় র‌্যাবের একটি দল বাড়িটি অনেকক্ষণ ঘিরে রাখে। তবে দূর থেকে কেউ বুঝতে পারেননি।

এই নিরাপত্তা কর্মী জানান, আকিফুজ্জামান খানের বাবা বেঁচে নেই। প্রায় আট /দশ মাস আগে এলাকায় তাকে দেখেছি। বাড়ির উত্তর পাশের রাস্তা দিয়ে মসজিদে যেতেন তিনি। আমাদের বাড়ির মালিকের ছেলে দেশের বাইরে পড়াশোনা করেন। প্রায় ১০ মাস আগে তিনি যখন দেশে আসেন তখন আকিফুজ্জামান তার সাথে দেখা করতে এসেছিলেন।

আশেপাশের অন্যান্য বাড়ির নিরাপত্তা কর্মীরা জানিয়েছেন, আকিফুজ্জামান নিয়মিত মসজিদে যেতে দেখেছেন। খুবই শান্ত প্রকৃতির ছিলেন তিনি। সালাম দিলে উত্তর দিতেন। কেমন আছি জানতে চাইতেন।

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: