সর্বশেষ আপডেট : ২৩ মিনিট ০ সেকেন্ড আগে
রবিবার, ৪ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

দেড় বছর নিখোঁজ ছিলেন সাতক্ষীরার ‘জঙ্গি’ মতিয়ার

photo-1469712081নিউজ ডেস্ক: ঢাকার কল্যাণপুরে পুলিশ ও সোয়াতের অভিযানে নিহত ৯ ‘জঙ্গি’র একজন সাতক্ষীরার মতিয়ার রহমান গত দেড় বছর নিখোঁজ ছিলেন। ঢাকার আবদুল্লাহপুর থেকে নিখোঁজ হন তিনি।

মতিয়ারের নানাবাড়ি সাতক্ষীরার ধানদিয়ায়। স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর আলম ও সদস্য গোলাম সরোয়ার বাবলুর সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, চারটি বিয়ে করেছিলেন মতিয়ারের বাবা নাসির উদ্দিন সরদার। প্রথম স্ত্রী মতিয়ারের মা খায়রুননেসার সঙ্গে তাঁর ছাড়াছাড়ি হয়ে যায় প্রায় ২০ বছরেরও বেশি সময় আগে।

মতিয়ারের বয়স যখন দেড়-দুই বছর, তখন তাঁর মা তাঁকে নিয়ে তাঁর মামার বাড়ি ধানদিয়া গ্রামে চলে যান। তাঁর জমি বলতে তালার ওমরপুরে বসতবাড়ির ১৬ শতক জমি রয়েছে। সেখানেও শরিক চার চাচা।

আজ বৃহস্পতিবার মতিয়ারের বাড়ি তালা উপজেলার পাটকেলঘাটা থানার ধানদিয়া ইউনিয়নের ওমরপুর গ্রামে গিয়ে বাড়িতে কাউকে পাওয়া যায়নি।

প্রতিবেশীরা জানায়, মতিয়ারের বাবা নাসিরউদ্দিন থাকেন কলারোয়ার সোনাবাড়িয়ায়। সেখানে খালে-বিলে মাছ ধরেন তিনি। তাঁর চার স্ত্রী এবং তাঁদের সন্তানদের মধ্যে কেউই এখন আর তাঁর সাথে থাকেন না।

মতিয়ারের নানাবাড়ি ধানদিয়া গ্রামের বাসিন্দারা জানান, মতিয়ার ছিলেন খুব বিনয়ী ছেলে। এই গ্রামে প্রাথমিক স্কুলে লেখাপড়াও করেছেন তিনি। এরপর তিনি কিছুদিন দিনমজুর হিসেবে কাজ করেছেন। এ ছাড়া ডাব ও সবজি কেনাবেচার সঙ্গেও জড়িত ছিলেন। প্রায় আট বছর আগে মায়ের সঙ্গে ঢাকায় চলে যান মতিয়ার। সেখানে মা ও ছেলে একসাথে গাজীপুরে একটি পোশাক কারখানায় চাকরি করতেন। এর মাঝে দুই-এক বছর পরপর মায়ের সাথে নানাবাড়ি ধানদিয়ায় আসতেন মতিয়ার। তখনো তাঁর মধ্যে কোনো ধরনের পরিবর্তন দেখা যায়নি বলে জানান স্থানীয়রা।

মতিয়ারের মামি লিমা খাতুন জানান, তাঁরা জানতে পেরেছিলেন যে দেড় বছর আগে থেকে মতিয়ার নিখোঁজ। এ অবস্থায় ছেলের খোঁজ না পেয়ে মা খায়রুন চলে যান সৌদি আরবে। ফলে নানা বাড়ির সাথে মতিয়ারের যেটুকু যোগাযোগ ছিল তাও শেষ পর্যন্ত বন্ধ হয়ে যায়। তবে মতিয়ার যে কোনো ভয়ংকর জঙ্গি হয়ে উঠতে পারে তা তাঁদের ভাবনারও বাইরে ছিল বলে জানান লিমা।

পাটকেলঘাটা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) তরিকুল ইসলাম জানান, শুধু কিছু তথ্য জানার জন্য মতিয়ারের মামা আবদুল গফফারকে থানায় ডেকে আনা হয়েছিল। তাঁকে গ্রেপ্তার বা আটক করা হয়নি।-এনটিভি

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: