সর্বশেষ আপডেট : ২ মিনিট ৫১ সেকেন্ড আগে
শুক্রবার, ৯ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

ভূতুড়ে বাড়িতে থাকতেন জঙ্গি আকিফ

gulshan-akik0120160728142540নিউজ ডেস্ক :: টানা ৩ ঘণ্টা বাড়ির সামনে দাঁড়িয়ে থেকেও ভেতরে প্রবেশের সুযোগ মেলেনি। বার বার কলিং বেল চাপায় বিরক্ত হয়ে এক সময় ঘরের দরজা সামান্য একটু ফাঁক করে মিনিট দেড়েক কথা বলে গেলেন বয়স্ক এক নারী।

প্রায় ৩০ ফুট দূরে বাড়ির মূল ফটকে দাঁড়িয়ে ভদ্রমহিলার বলা কথা যেটুকু বোঝা গেল তা হলো- ‘আপনারা এতো বিরক্ত করছেন কেন? এ অবস্থায় কোনো কথা বলা যায়? দয়া করে মাফ করুন’।

কালো বোরকায় আপাদমস্তক ঢাকা ওই নারীর হাত-পায়ে কালো মোজা পরা। নাক-মুখ ঢাকা কালো নেকাবে। চোখে মোটা ফ্রেমের চশমা। কণ্ঠে বিরক্তি।

রাজধানীর কল্যাণপুরের জাহাজ বিল্ডিংয়ে ‘অপারেশন স্টর্ম ২৬-এ নিহত জঙ্গি আকিফুজ্জামানের বাসা এটি। আর বাসায় ভেতর থেকে যিনি কথা বললেন, তিনি আকিকের নিকটাত্মীয় মা-খালাদের কেউ একজন হবেন হয়তো।

রাজধানীর অভিজাত এলাকা গুলশান ১ নম্বর সার্কেলের ১০ নম্বর রোডের ২৫ নম্বর হোল্ডিংয়ের দোতলা ডুপ্লেক্স বাসাটির মালিক নিহত জঙ্গি আকিফুজ্জামান খানের বাবা সাইফুজ্জামান খান।

মূল সড়কের পাশের এ বাসার সঙ্গেই রয়েছে বিদেশিদের জন্য একটি বন্ডেন্ট ওয়ার হাউস। বন্ডেন্ট ওয়ার হাউসের বাসাটি নিহত জঙ্গি আকিফুজ্জামানের চাচার।

বাড়িটির সামনেই (পূর্বপাশে) অ্যাবাকাস ক্যাফে অ্যান্ড রেস্টুরেন্ট। বাড়ির উত্তর পাশে হোমবাউন্ডের কেন্দ্রীয় অফিস। পশ্চিম পাশে গড়ে উঠছে নামকরা একটি ডেভেলপমেন্ট কোম্পানির অত্যাধুনিক বিল্ডিং।

চারপাশের এতোসব সুসজ্জিত বাসা, স্থাপনা, অফিস, রেস্তোরাঁ ও বন্ডেড ওয়ার হাউসের মধ্যে কেবল জঙ্গি আকিফুজ্জামানের বাসাটাই একটু ব্যতিক্রম। ডুপ্লেক্স বাসাটির ওপর তলার পুরোটাই পরিত্যক্ত।

কাঠের দরজা-জানালায় পচন ধরেছে। কাচের পার্টিশান ও জানালায় ময়লার আস্তরণ। দেওয়ালে স্যাঁতাপড়া দাগ। ব্যালকনিতে গজিয়েছে লতা-গুল্ম। বাড়ির সামানের ফাঁকা জায়গায় আম গাছের ডালে ঝুলছে ফুল গাছের মরা ডাল। আর বাসার উত্তর পাশের প্রাচীর ও ড্রেন ব্যবহার হচ্ছে পথচারীদের ‘জরুরি’ কাজে।

দূর থেকে দেখলে বাড়িটিকে ভৌতিক বাড়ি মনে হয়। বাড়ির সামনে রাখা সাদা রংয়ের একটি গাড়ি দীর্ঘ দিন ব্যবহার না করায় জং ধরে গেছে। পেছনের গেট বহুকাল খোলা হয় না। গেটের তালায় ধরেছে জং। সামনের গেটের কেবল পকেটটুকু মাঝে-মধ্যে খোলা হয়।

এমন একটি বাড়ির সদস্য আকিফুজ্জামান জঙ্গি তৎপরতার সঙ্গে জড়িয়ে নিহত হওয়ার খবরে বাড়িটি নিয়েই কৌতূহলে আছেন আশপাশের বাসিন্দারা। তারা বলছেন, এ ধরনের বাড়ি জঙ্গি আস্তানা হিসেবে ব্যবহার হয় কি-না, তা খতিয়ে দেখা দরকার।

পাশের বাড়ির সিকিউরিটি গার্ড আতিক বলেন, ‘এ বাসায় কেউ থাকেন না। বেশিরভাগ সময় মূলগেট ও ঘরের দরজা বন্ধ থাকে। শুধু একজন ম্যাডাম ভেতরে থাকেন’।

এদিকে দিনে-দুপুরে আবদ্ধ বাড়িতে ওই বয়স্ক নারী কেন কালো বোরকা, হাত মোজা, পা মোজা ও নেকাব পরে নিজেকে সম্পূর্ণ ঢেকে রেখেছেন- তা নিয়েও তৈরি হয়েছে কৌতূহল। তাছাড়া এমন ঘটনার পর সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলতেই বা তাদের বাঁধা কোথায়?

জাহাজ বিল্ডিং নামে পরিচিত কল্যাণপুর ৫ নম্বর রোডের ৫৩ নম্বর বাড়ি তাজ মঞ্জিলে গত সোমবার (২৫ জুলাই) রাতে জঙ্গি আস্তানার সন্ধান পায় পুলিশ। পরে মঙ্গলবার (২৬ জুলাই) ভোরে ‘স্টর্ম-টোয়েন্টি সিক্স’ অপারেশন চালায় আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী। এতে নয় জঙ্গি নিহত হয়। নিহতদের মধ্যে যে আটজনের পরিচয় এ পর্যন্ত পাওয়া গেছে তাদেরই একজন আকিফুজ্জামান।

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: