সর্বশেষ আপডেট : ৩৫ মিনিট ৫৬ সেকেন্ড আগে
বুধবার, ৭ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

চার ঘণ্টাও ঘুমাতে পারেননি কনস্টেবল নাসির

contsable-nasir-lrg-320160726235603নিউজ ডেস্ক:
তখন সন্ধ্যা ৬টা। কল্যাণপুরের আলোচিত সেই জাহাজবাড়ির সামনে ব্যারিকেডে দাঁড়িয়ে ডিউটি করছিলেন মিরপুর পুলিশ লাইনের রিজার্ভ পুলিশের কনস্টেবল নাসির (ছদ্মনাম)। রাজশাহীর গোদাগাড়ি উপজেলার তরুণ এই কনস্টেবল সোমবার রাত ১২টায় ডিউটি শেষ করে ক্লান্ত দেহ নিয়ে পুলিশ লাইনে ফিরে আসেন।

রাতেই গোসল করে খাবার খেয়ে ঘুমাতে যান। ভোর পৌনে ৪টায় ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তার মেসেজ পেয়ে দৌড়ে এসে রিপোর্ট করে গাড়িতে উঠে ভোর ৫টায় কল্যাণপুরের ঘটনাস্থলে ছুটে আসেন। সেই থেকে ১৩ ঘণ্টা টানা ডিউটি করে চলেছেন।

এ প্রতিবেদকের সঙ্গে আলাপকালে ভীষণ ক্লান্ত অবসান্ন নাসির দুঃখ করে বলেন, পুলিশে ছোট পোস্টের (কনস্টেবল) চাকরি জীবন কোনো জীবন না। ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের নির্দেশে যখন-তখন ডিউটির জন্য দৌড়াতে হয়।

এ সময় এ প্রতিবেদক তাকে উদ্দেশ্য করে বলেন, সাংবাদিকদেরও এমন টানা ডিউটি করতে হয়। এ কথার জবাবে নাসির বলেন, আপনারা গুলশান বা কল্যাণপুরের মতো বড় ঘটনা ঘটলে হয়তো টানা ডিউটি করেন কিন্তু আমাকে মাসের ৩০ দিনই এমন ডিউটি করতে হয়।
শুধু নাসিরই নন, তার মতো আরো শতাধিক পুলিশ সদস্য মিরপুর পুলিশ লাইন থেকে কাকডাকা ভোরে ঘটনাস্থলে ছুটে আসেন। মিরপুর ছাড়াও রাজারবাগ পুলিশ লাইন থেকেও রিজার্ভ পুলিশ আসে।

সৌরভ নামের রাজারবাগের আরেক পুলিশ কনস্টেবল এ প্রতিবেদকের সঙ্গে আলাপকালে জানান, সোমবার রাত ১২টায় ডিউটি শেষ করে ফিরে ঘুমাতে না ঘুমাতেই রাত ৩টায় ডাক পড়ে। ভোর ৫টায় ছুটে আসেন। তখন থেকে ডিউটিতে রয়েছেন। আজ কখন ফিরে যেতে পারবেন তাও জানেন না।

সৌরভ জানান, কাগজে কলমে ৮ ঘণ্টা ডিউটির কথা বলা হলেও বাস্তবে তাদের প্রতিদিন ১২ ঘণ্টা ডিউটি করতে হয়।

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: