সর্বশেষ আপডেট : ২ মিনিট ৫২ সেকেন্ড আগে
শনিবার, ১০ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ২৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

ঋতুপর্ণাকে এ কী বললেন মমতা!

full_169696458_1469340129বিনোদন ডেস্ক: শনিবার মহানায়ক সম্মানপ্রদান অনুষ্ঠানে সোহিনী সরকারের সঙ্গে যুগ্মভাবে বর্ষসেরা অভিনেত্রীর পুরস্কার পান ঋতুপর্ণা। পুরস্কার প্রদানের সময় প্রেক্ষাগৃহে হাজির ছিলেন না জাতীয় পুরস্কারপ্রাপ্ত এই অভিনেত্রী।

ফলে অভিনেত্রী ঋতুপর্ণা সেনগুপ্তকে সস্নেহ কটাক্ষ করে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ‘লেটলতিফ’ আখ্যা দিয়েছেন।

বক্তৃতার সময় মুখ্যমন্ত্রী মমতা বলেন, ‘ঋতুপর্ণা কিন্তু চিরকালই লেট! জানেন তো! আজও টাইমে আসতে পারেনি। কিন্তু আসবে একটু পরে। এটা আমি বিশ্বাস করি।’

মমতা আরও বলেন, ‘টাইমের মধ্যে এসে নবীন প্রজন্ম-প্রবীণ প্রজন্মের মধ্যে যে ধারাবাহিকতা সেটা আজকের দিনটাকে কেন্দ্র করে গড়ে ওঠে। এই ভিত্তিটাকে কোনও দিন কেউ নষ্ট করবেন না!’

হাসিমুখেই টলিউডের অভিনেত্রী সম্পর্কে এই মন্তব্য করেন মমতা। মুখ্যমন্ত্রীর বিশ্বাস অবশ্য অটুট রেখেছেন ঋতুপর্ণা। মমতার বক্তৃতার ২০ মিনিট পরে অনুষ্ঠান মঞ্চে প্রবেশ করেন ঋতুপর্ণা। পরে তার হাতে স্মারক তুলে দেন মমতা।

মুখ্যমন্ত্রীর এদিনের মন্তব্যের প্রেক্ষিতে টলিউডের এক অভিনেতা বলেন, ‘শুধু অতিথি হলে সমস্যা হতো না। কিন্তু নিজেই যখন পুরস্কার প্রাপকের তালিকায় তখন অনুষ্ঠানে সময়ে আসাই বাঞ্চনীয়।’

মমতার মন্তব্য প্রসঙ্গে প্রতিক্রিয়া জানতে ঋতুপর্ণার সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি ফোন ধরেননি।

গত কয়েক বছর ধরে মহানায়ক উত্তমকুমারের মৃত্যুবার্ষিকীতে সম্মানপ্রদান করে ভারতের রাজ্য সরকার। এবছর দিনটি রোববার হওয়ায় একদিন আগেই অনুষ্ঠানটি করা হয়।

এবার মহানায়ক সম্মানে সম্মানিত হয়েছেন সংগীতশিল্পী বাপ্পি লাহিড়ী। এর আগে গত লোকসভা নির্বাচনে শ্রীরামপুর কেন্দ্রের বিজেপি প্রার্থী বাপ্পিকে সংগীত মহাসম্মানে ভূষিত করেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী।

সংগীতশিল্পীকে সম্মানপ্রদান প্রসঙ্গে মমতা জানান, উত্তমকুমারের শেষ ছবি ‘ওগো বধূ সুন্দরী’তে গান গেয়েছিলেন তিনি। মমতা বলেন, ‘বাপ্পিদা বাংলার মাটিকে কখনও অবজ্ঞা করেন না।’

এ নিয়ে পঞ্চমবার মহানায়ক সম্মান প্রদান করা হল। মমতা জানান, এ বছর পুরস্কার প্রাপকের তালিকা করতে গিয়ে বেশ সমস্যায় পড়তে হয়েছিল। এবারই প্রথম শ্রেষ্ঠ প্রযোজক, পরিচালক এবং চলচ্চিত্রের সম্মান দেওয়া হল। শ্রেষ্ঠ প্রযোজক ভেঙ্কটেশ ফিল্মস। যুগ্মভাবে শ্রেষ্ঠ পরিচালকের সম্মানে সম্মানিত হয়েছেন গৌতম ঘোষ (শঙ্খচিল) এবং কৌশিক গঙ্গোপাধ্যায় (সিনেমাওয়ালা)। শ্রেষ্ঠ চলচ্চিত্র ‘বেলাশেষে’ ও ‘শঙ্খচিল’। যুগ্মভাবে বর্ষসেরা অভিনেতার পুরস্কার পেয়েছেন পরাণ বন্দ্যোপাধ্যায় এবং যীশু সেনগুপ্ত।

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: