সর্বশেষ আপডেট : ১ মিনিট ৪৯ সেকেন্ড আগে
সোমবার, ১৬ জানুয়ারী, ২০১৭, খ্রীষ্টাব্দ | ৩ মাঘ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

তাহিরপুরে বর-কনের বাবাকে ডেকে পুলিশ বললো- খাওয়া-দাওয়া শেষে যার যার বাড়ি চলে যাবেন

wife19_154388তাহিরপুর প্রতিনিধি::
সুনামগঞ্জের তাহিরপুরে বাল্য বিবাহ বন্ধ করল পুলিশ। আজ শুক্রবার বিকাল সাড়ে তিনটায় উপজেলার বাদাঘাট ইউনিয়নের পাঠান পাড়া গ্রামের আব্দুল হাসিমের মেয়ে সমলা বেগম (১২) ও একেই ইউনিয়নের নাগরপুর গ্রামের সমু মিয়ার ছেলে ছাইফুল ইসলাম (১৫) সাথে বিয়ের দিন ধার্য্য ছিল।

পুলিশ ও স্থানীয় সুত্রে জানা যায়,পাঠান পাড়া গ্রামে আব্দুল হাসিমের বাড়িতে বর পক্ষের লোকজন আসার আয়োজন সকাল থেকে শুরু করে। এই খবর লোক মুখে জানাজানি হয় আরো জানাযায় যে এখানে ১২ বছরের মেয়ের বিয়ে হচ্ছে যা বাল্য বিবাহ সরকার ঘোষিত।

এমন সংবাদ বিভিন্ন ভাবে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা খালেদুর রহমান ও তাহিরপুর থানার ওসি(তদন্ত) মোহাম্মদ হানিফ কে জানানো হয়। পরে তাদের নির্দেশে বাদাঘাট ক্যাম্প ইনচার্য এসআই জালাল উদ্দিনের নেতৃত্বে একদল পুলিশ সদস্য কনের বাড়ি পাঠানপাড়া গিয়ে বিয়ের সব আয়োজন বন্ধ করে দেয়।

বর-কনের বাবাকে ডেকে বলে দেন বর যাত্রীদের খাওয়া-দাওয়া শেষে যার যার বাড়ি চলে যাবার জন্য। আর যদি বিয়ে দিতে হয় তাহলে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার সাথে কথা বলে সিদ্ধান্ত নেওয়ার জন্য। তার বাহিরে কেউ যদি এই বাল্য বিবাহ দেন তাহলে তাদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

তাহিরপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা খালেদুর রহমান ও তাহিরপুর থানার ওসি (তদন্ত) মোহাম্মদ হানিফ এঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান,বাল্য বিবাহ প্রতিরোধে আমরা সচেষ্ট আছি।

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: