সর্বশেষ আপডেট : ৩০ মিনিট ৫৩ সেকেন্ড আগে
রবিবার, ৪ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

সিলেট মাল্টিপল ডেস্টিনেশন অব মাল্টিপল অ্যাক্টিভিটিস

Rasadul-hasan-bg20160722120345ডেইলি সিলেট নিউজ: ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ট্যুরিজম অ্যান্ড হসপিটালিটি ম্যানেজমেন্ট বিভাগের প্রধান অধ্যাপক রাশেদুল হাসান বলেছেন, সিলেট হলো মাল্টিপল ডেস্টিনেশন অব মাল্টিপল অ্যাক্টিভিটিস।

সিলেটকে খুব অদ্ভুত জায়গা উল্লেখ করে তিনি বলেন, এখানে আনপ্যারালাল পর্যটন স্পট আছে।

কিন্তু ‍পর্যটন স্পটগুলোর ক্ষতিসাধনের বিষয়টি তুলে ধরে এ অধ্যাপক বলেন, মাধবকুণ্ডের আগে যে রূপ ছিলো আর এখনকার রূপ দেখলে খারাপ লাগে। ট্যুরিস্ট আসবে, কিন্তু জিনিসগুলো যেন নষ্ট করি। এই বিষয় ভাবতে হবে।

টাঙ্গুয়ার হাওরের সৌন্দর্য তুলে ধরে তিনি বলেন, বাংলাদেশে ৪১১টি হাওর আছে। টাঙ্গুয়ার হাওরের মতো এতো বড় হাওর পৃথিবীর আর কোথাও আছে বলে আমার সন্দেহ আছে।

তিনি বলেন, সাস্টেনেবল ট্যুরিজমের কথা হলো আমার পরবর্তী বংশদরদের একই সৌন্দর্য ও জিনিস দেবো। সুন্দরবন এখন যা, ১৫ বছর পরে সুন্দরবন আর এমন দেখতে পারবো না।

টাঙ্গুয়ার হাওরে বছরে দুটো পর্যটন করা যায় উল্লেখ করে তিনি বলেন, শীত পাখি দেখতে মানুষ যাবে আর বর্ষাকালে হাওরের সৌন্দর্য্য অবর্ণনীয়। তখন হাওর নতুন করে যৌবন ফিরে পায়।

শুক্রবার (২২ জুলাই) সকালে শ্রীমঙ্গলের টি হ্যাভেন রিসোর্টে ‘বছরজুড়ে দেশ ঘুরে: সিলেটে পর্যটন’ শীর্ষক আলোচনায় বক্তৃতা করছিলেন রাশেদুল হাসান।

আলোচনায় সিলেট বিভাগের পর্যটন সম্ভাবনা ও সমস্যা নিয়ে কথা বলছেন বিশেষজ্ঞরা। এতে অংশ নিয়েছেন দেশের বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক ও পর্যটন সংশ্লিষ্ট একদল বিশেষজ্ঞ। এছাড়াও রয়েছেন পর্যটক ও পর্যটন সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের উদ্যোক্তারাও।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত আছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ট্যুরিজম অ্যান্ড হসপিটালিটি ম্যানেজমেন্ট বিভাগের বিভাগীয় প্রধান অধ্যাপক রাশেদুল হাসান, সেভ দ্য হেরিটেজ অ্যান্ড এনভায়রনমেন্টের প্রধান সমন্বয়কারী আবদুল হাই আল হাদী, সিলেটের শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (শাবিপ্রবি) পুরকৌশল বিভাগের অধ্যাপক ড. জহির বিন আলম, সহযোগী অধ্যাপক মেজবাহ উদ্দিন আহমেদ, আফজাল হোসেন, বদরুল ইসলাম ভূইয়া, বন্যপ্রাণী গবেষক ও আলোকচিত্রী তানিয়া খান, পর্যটন পুলিশের সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার একেএম মোশাররফ হোসেন, সরীসৃপ গবেষক শাহরীয়ার সিজার রহমান ও ট্রাভেলার রিয়াসাদ সানভী প্রমুখ।

অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত রয়েছেন শ্রীমঙ্গল ব্যবসায়ী সমিতির ভাইস প্রেসিডেন্ট সৈয়দ মোবাশ্বির আলী মুন্না, সিলেট ট্যুর গাইড অ্যাসোসিয়েশনের প্রতিনিধি মো. ইউসুফ আলী, মানিক চাঁদ রুদ্র পাল, সৈয়দ রিফাত জামান রিজবী, ডিভিশনাল ট্যুর গাইড অ্যাসিয়েশনের খালেদ হোসেন, কামরান, আহাদ, শেখর রিজবী, শ্রীমঙ্গল প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক ইদ্রিস আলী, ক্রেলের রিজওনাল কোঅর্ডিনেটর (নর্থ ইস্ট জোন) মাজহারুল ইসলাম জাহাঙ্গীর, ক্রেলের নর্থ ইস্ট জোনের কমিউনিকেশন অফিসার ইলিয়াস মাহমুদ, শ্রীমঙ্গল উদয়ন উচ্চ বালিকা বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক কবিতা দাস প্রমুখ।

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: