সর্বশেষ আপডেট : ৩ মিনিট ১১ সেকেন্ড আগে
বৃহস্পতিবার, ৮ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

কুষ্টিয়ার পিস স্কুলে কখনো গাওয়া হয়নি জাতীয় সংগীত (ভিডিও)

Kustiar-pice-550x344নিউজ ডেস্ক : শহরের প্রাণকেন্দ্র কুষ্টিয়া সরকারি কলেজের সামনে এক বিশাল বাড়ি ভাড়া নিয়ে গড়ে উঠেছে পিস স্কুলের একটি শাখা। জমজমাট আয়োজনের মধ্য দিয়ে এই স্কুলটির যাত্রার শুরুতেই ব্যাপক বিতর্কের জন্ম দেয়। নানা প্রলোভনে বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান থেকে ছাত্র-ছাত্রী ভাগিয়ে আনার এবং বেশি বেতনের প্রলোভণে অন্যান্য প্রতিষ্ঠানের শিক্ষকদের নিয়ে আসারও অভিযোগ ওঠে।
অনুসন্ধানে দেখাযায় স্কুলটি প্রতিষ্ঠার পর থেকে এখানের শিক্ষার্থীদের কখনো গাওয়ানো হয়নি জাতীয় সংগীত। অভিবাবকদের অভিযোগ ইংরেজি মাধ্যম হিসাবে স্কুলটি প্রতিষ্ঠার করা হলেও এখনে মূলত শিখানো হয় আরবি। শিক্ষার্থীদের ভর্তির সময় অরাজনৈতিক প্রতিষ্ঠান বললেও শিক্ষকদের বেশির ভাগই জামায়াত ইসলামীর রাজনীতির সাথে জড়িত।
কুষ্টিয়া শহরের কোটপাড়া এই ভবনের নিচ তলায় একবছর থেকে পরিচালিত হচ্ছে পিস স্কুল। কতৃপক্ষের দাবি শুরু পিস ফাউন্ডেশনের সাথে যুক্ত থাকলেও কিছু জটিলতার কারণে এখন তারা আলাদা। ইংরেজি মাধ্যম বলা হলেও আরবিকে প্রাধান্য দেয়া হয় স্কুলটিতে। করা হয়েছে বাধ্যতা মূলকও।
প্লে গ্রুপ থেকে ৪র্থ শ্রেণি পর্যন্ত এখানে পড়ছে ১৪৭ জন শিক্ষার্থী। যদিও যশোর শিক্ষাবোর্ডের নিয়মে আরবি শিক্ষাকে বাদ্যতামূলক করা যাবেনা। তুবও এখানে আরবি শিক্ষাকে করা হয়েছে বাদ্যতামূলক। অভিযোগ রয়েছে স্কুলটি প্রতিষ্ঠার পর থেকে শিক্ষার্থীদের কখনো জাতীয় সংগীত গাওয়ানো হয়নি।
স্কুলের কারিকুলাম অনুযায়ী কেবল মাত্র মুসলিম শিশু ছাড়া কেউই এই স্কুলে পড়তে পারে না। স্কুলের চেয়ারম্যান হিসেবে দায়িত্বে আছেন ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের এপ্লাইট ফিজিক্স বিভাগের জামায়াত পন্থি শিক্ষক অধ্যাপক মঞ্জুরুল আলম। এছাড়া যারা পাঠদান করান তাদের অধিকাংশই জামায়াতের রাজনীতির সাথে যুক্ত।
জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মুক্তিযোদ্ধাসহ চারজনের নাম উপদেষ্টা হিসেবে দিয়েছে স্কুল কতৃপক্ষ। তবে তাদের সবাই জানিয়েছেন তাদের কেউই এই স্কুলের সাথের জড়িত নয়। তারা বলছেন, বাংলাদেশর মাটিতে জাতীয় সংগীত পাঠ করানো যাবে এমন নিয়ম আছে কোন স্কুলে তা অম্ভব। এদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।
পিস স্কুলের বিরুদ্ধে তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়ার কথা জানান উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা।-৭১ টিভি

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: