সর্বশেষ আপডেট : ২ ঘন্টা আগে
শুক্রবার, ৯ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

নবীগঞ্জে ভ্রাম্যমান কম্পিউটার প্রশিক্ষনের নামের তালিকায় অনিয়ম ও স্বজনপ্রীতির অভিযোগ 

28daa503-db07-4d60-a947-a24d46084988নবীগঞ্জ প্রতিনিধি ::
নবীগঞ্জে যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রালয়ের অধীনে যুব উন্নয়ন আইসিটি মোবাইল ভ্যানের মাধ্যমে শিক্ষিত বেকার যুবক যুবতীদের ভ্রাম্যমান কম্পিউটার প্রশিক্ষনে নানা অনিয়মের অভিযোগ পাওয়া গেছে। বিভিন্ন এলাকার যুবক যুবতীরা উক্ত প্রশিক্ষনে অংশগ্রহন করতে না পারায় তাদের মধ্যে হতাশার সৃষ্ঠি হয়েছে।
সূত্রে জানাযায়, শিক্ষিত বেকার যুবক যুবতীদের কম্পিউটার প্রশিক্ষনের জন্য যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রালয় থেকে হবিগঞ্জ-সিলেট সংরক্ষিত আসনের সংসদ সদস্য ও যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রালয়ের স্থায়ী কমিটির সদস্য এডভোকেট আমাতুল কিবরিয়া চৌধুরী কেয়া বিশেষ বরাদ্ধের মাধ্যমে প্রশিক্ষনের ব্যবস্থা করেন। উক্ত প্রশিক্ষনের ১২ জন শিক্ষিত বেকার যুবক ও ১২জন যুবতীর নামের তালিকা তৈরী করার জন্য দায়ীত্ব দেন এমপির প্রিয় লোক বলে পরিচিত নবীগঞ্জ উপজেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও বিগত পৌরসভা নির্বাচনে পরাজিত কাউন্সিলর রিজভী আহমেদ খালেদকে। খালেদ এ দায়িত্ব পাওয়ার পর অতি গোপনে তার আত্মীয় ও ঘনিষ্টজনসহ তার আপন ব্যবসায়ী ভাইর নাম দিয়ে তালিকা তৈরী করেন বলে অভিযোগ উঠেছে। এ তালিকাতে অনেক শিক্ষিত বেকার যুবক যুবতী এ প্রশিক্ষনে অংশগ্রহন করতে পারেনি। এজন্য অনেকেই ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন। এছাড়াও খালেক কতৃক তৈরী করা উক্ত তালিকা পর্যালোচনা করে দেখা যায় উপজেলার ১৩টি ইউনিয়নের মধ্যে শুধু পৌরসভাতেই ১০জন কে প্রশিক্ষনের সুযোগ দেওয়া হয়েছে। ৭নং করগাঁও ইউনিয়নে ৫জন, ৬নং কুর্শি ইউনিয়নে ৩ জন, বড় ভাকৈর পশ্চিম ও পূর্ব ইউনিয়নে ৪ জন, ১২ নং কালিয়ারভাঙ্গা ইউনিয়নে ১ জন, সদর ইউনিয়নে ১ জনের নাম দেওয়া হয়েছে। এদিকে সচেতন মহলের প্রশ্ন উপজেলার ইনাতগঞ্জ,দীঘলবাক, আউশকান্দি, বাউশা, দেবপাড়া, গজনাইপুর ও পানিউমদা ইউনিয়নের কোন প্রশিক্ষনার্থী নেওয়া হয়নি কেন। তাদের ধারনা তালিকা তৈরীতে রিজভী আহমেদ খালেদ স্বজন প্রীতি ও স্বেচ্ছাচারিতা করেছেন। এ ব্যাপারে নবীগঞ্জ উপজেলা যুব উন্নয়ন কর্মকর্তা মনিরুল ইসলাম বলেন, এমপি মহোদয়ের সুপারিশকৃত নামের তালিকা আমরা রিজভী আহমেদ খালেদের মাধ্যমে পেয়েছি। নামের তালিকা তৈরীতে আমাদের কোন হাত নেই।
এ ব্যাপারে হবিগঞ্জ-সিলেট সংরক্ষিত আসনের সংসদ সদস্য ও যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রালয়ের স্থায়ী কমিটির সদস্য এডভোকেট আমাতুল কিবরিয়া চৌধুরী কেয়া’র ব্যবহৃত মোবাইল নং (০১৭১১-১০৪১০০) একাধিকবার চেষ্টা করে ও যোগাযোগ করা সম্ভব হয়নি।

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: