সর্বশেষ আপডেট : ৪ মিনিট ৫০ সেকেন্ড আগে
শনিবার, ৩ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

অবশেষে সরকারীকরণ করা হল বড়লেখা ডিগ্রি কলেজ

13817292_827715723997278_1612795010_n নিজস্ব প্রতিবেদক : অবশেষে বড়লেখা ডিগ্রি কলেজকে সরকারীকরণ করা হল। মঙ্গলবার জাতীয় সংসদের মাননীয় হুইপ মোঃ শাহাব উদ্দিনের ঘনিষ্ট একটি সূত্র বিষয়টি নিশ্চিত করেছে।

সূত্র জানায়, বড়লেখা ও জুড়ী উপজেলার সাংসদ জাতীয় সংসদের মাননীয় হুইপ জনাব মোঃ শাহাব উদ্দিনের ঐকান্তিক প্রচেষ্ঠায় মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে শিক্ষা মন্ত্রনালয় বড়লেখা ডিগ্রি কলেজকে সরকারীকরণের তালিকাভুক্ত করা হয়।
আজ মঙ্গলবার বড়লেখা ডিগ্রি কলেজকে সরকারী করণের ঘোষণা আসায় শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের মাঝে আনন্দের বন্যা বয়ে যায়। শিক্ষা প্রতিষ্ঠানটির পক্ষ থেকে সিনিয়র প্রভাষক নিয়াজ উদ্দীন ডেইলি সিলেটকে বলেন, আমরা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, শিক্ষামন্ত্রী নূরুল ইসলাম নাহিদসহ বড়লেখা ও জুড়ী উপজেলার গনমানুষের নেতা জাতীয় সংসদের মাননীয় হুইপ মোঃ শাহাব উদ্দিনের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি। সাথে সাথে বড়লেখার সর্বস্ত্ররের মানুষকে অভিনন্দন জানাচ্ছি বড়লেখা ডিগ্রি কলেজ সরকারীকরণে আমাদের নানা কর্মসূচিতে একাত্মতা প্রকাশ করার জন্য।

এর আগে গতকাল সোমবার বড়লেখা উপজেলার প্রাচীনতম বিদ্যাপীঠ ঐতিহ্যবাহী বড়লেখা ডিগ্রি কলেজটি সরকারীকরণ না হওয়ায় সর্বস্তরের শিক্ষার্থী, শিক্ষক-কর্মচারীসহ বিভিন্ন পেশাজীবির মানুষের পক্ষ থেকে মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করে। দুপুর ১২টায় বড়লেখা-চান্দগ্রাম ও বড়লেখা-শাহবাজপুর প্রধান সড়কের উভয়পাশে সর্ববৃহৎ এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। এ সময় শিক্ষার্থীরা ‘বড়লেখা ডিগ্রি কলেজ সরকারিকরণ চাই’ এবং অন্যান্য দাবি সম্বলিত একাধিক প্লেকার্ড প্রদর্শন করে।

কলেজের অধ্যক্ষ অরুণ কুমার চক্রবর্ত্তীর সভাপতিত্বে ও প্রভাষক নিয়াজ উদ্দীনের উপস্থাপনায় মানববন্ধন সমাবেশে বক্তব্য রাখেন উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক আনোয়ার উদ্দিন, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান বিবেকানন্দ দাস, উপজেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও সদর ইউপি চেয়ারম্যান সোয়েব আহমদ, পৌর আওয়ামীলীগের সভাপতি আব্দুল আহাদ, পৌর কাউন্সিলর কাউন্সিলর তাজ উদ্দিন, শিক্ষক-কর্মচারী পরিষদের সাধারণ সম্পাদক প্রভাষক যায়েদ আহমদ, উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি তানিমুল ইসলাম তানিম, কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি ইমরানুল ইসলাম। মানববন্ধনে সর্বস্তরের ছাত্রছাত্রী, শিক্ষক, কর্মচারী, বিভিন্ন পেশাজীবির ব্যক্তিবর্গ, উপজেলা ছাত্রলীগ, উপজেলা ছাত্রদলসহ বিভিন্ন পর্যায়ের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ্য, গত ৫ জুলাই সারাদেশের ৩২৫টি কলেজ জাতীয় করণের ঘোষণা আসে। এর মধ্যে সিলেট বিভাগের ২১টি কলেজ জাতীয়করণ বিষয়টি জানা যায় । এরমধ্যে প্রথম ধাপে ১৯৯টি কলেজ জাতীয়করণের অনুমোদন দিয়েছেন প্রধামন্ত্রী। বাকিগুলোও পর্যায়ক্রমে দেওয়া হবে। প্রধানমন্ত্রীর ঘোষণা থাকা সত্ত্বেও বড়লেখা ডিগ্রি কলেজকে তালিকাভূক্ত না করায় শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা আন্দোলন শুরু করে।

১৯৮৬ সালের ১০ জুলাই বড়লেখা উপজেলায় সর্ব প্রথম কলেজ প্রতিষ্ঠা করা হয়। পরবর্তীতে এ কলেজটি ডিগ্রি পর্যায়ে উন্নীত হয়। বিভিন্ন সময়ে বড়লেখা ডিগি কলেজটিকে সরকারীকরণের দাবি উত্থাপিত হয়।
২০১৩ সালের ৯ নভেম্বর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বড়লেখায় সরকারি সফরে যান। বড়লেখা ডিগ্রি কলেজের মাঠে আওয়ামীলীগ আয়োজিত জনসভায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ৫২ কোটি টাকার ১২টি উন্নয়ন প্রকল্পের উদ্বোধন ও ভিত্তিপ্রস্থর স্থাপন করেন।
প্রধান অতিথির ভাষণে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বড়লেখা ডিগ্রি কলেজকে সরকারী করার ঘোষনা দেন। প্রধানমন্ত্রীর ঘোষনার প্রেক্ষিতে জাতীয়করণের উদ্দেশ্যে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের নির্দেশে ২০১৫ সালের ৩১ জুলাই সরেজমিন পরিদর্শন অনুষ্ঠিত হয়। পরিদর্শন সম্পন্ন করেন পরিচালক (কলেজ ও প্রশাসন) প্রফেসর ড. এসএম ওয়াহিদুজ্জামান ও উপ-পরিচালক (কলেজ-১) আবু সুলতান মো. একে সাব্রী।

পরিদর্শন প্রতিবেদন সূত্রে জানা যায়, ৩ একর ৬২ শতাংশ ভূমির ওপর স্থাপিত বড়লেখা ডিগ্রি কলেজটি উচ্চ মাধ্যমিক পর্যায়ে ১৯৯০ সালের ১ মার্চ স্নাতক (পাস) পর্যায়ে ১৯৯১ সালের ১ মার্চ এমপিওভুক্ত হয়। সরকারি করণের সবধরণের অবকাঠামো বিদ্যমান।

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: