সর্বশেষ আপডেট : ২ ঘন্টা আগে
শনিবার, ১০ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ২৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

কমলগঞ্জে বোমায় আহত মাদ্রাসাছাত্র পুলিশি হেফাজতে, চাচা আটক

cdb62fab-cd8e-406b-95fe-73f9e94edcd2মো. মোস্তাফিজুর রহমান, কমলগঞ্জ::
মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জ উপজেলার ফুলবাড়ি চা বাগানে ঘরের ভিতর হাত বোমা বানাতে গিয়ে আহত মাদ্রাসার ছাত্র রজব আলী (১৬)অবশেষে জেলা পুলিশ সুপারের নিদের্শে সিলেট এম এ জি ওসমানী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় পুলিশি হেফজাতে হাতকড়া লাগিয়ে রাখা হয়েছে। সে ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার আখাউড়ার দৌলতবাড়ির এশটি মাদ্রাসার ছাত্র। ঘটনার সাথে সংশ্লিতা সন্দেহে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য চাচা কালা মিয়া নামে আটক করা হয়েছে। গত ১৫ জুলাই শুক্রবার জুম্মার নামাজের পর এ ঘটনাটি ঘটলেও অতি গোপনীয়তার সাথে দ্রুত নাম পরিবর্তন করে মাদ্রাসা ছাত্রকে সিলেট এম এ জি ওসমানী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছিল। কমলগঞ্জ থানা পুলিশ বিষযটি গোপন করায় জেলা পুলিশ সুপারের কার্যালয় থেকে সিলেটে তদন্ত করে প্রাথমিক সত্যতা পাওয়ায় রোববার (১৭ জুলাই) অধহত মাদ্রাসার ছাত্র রজব আলীকে পুলিশি হেফাজতে নিয়ে চিকিৎসা প্রদান করা হচ্ছে। ঘঁনাটি এলাকায় তোলপাড় শুরু হয়েছে।

বিলম্বে প্রাপ্ত তথ্যে রোববার (১৭ জুলাই) প্রথম দফা ও মঙ্গলবার (১৯ জুলাই) ২য় দফা সরেজমিন খোঁজ নিয়ে জানা যায়, গত শুক্রবার (১৫ জুলাই) জুম্মার নামাজের পর ফুলবাড়ি চা বাগানের ১নং শ্রমিক বস্তির চাঁন মিয়া ওরফে চান্দু মিয়ার ঘরে তার ছেলে মাদ্রাসা ছাত্র রজব মিয়া (১৬) হাত বোমা বানাচ্ছিল। আকস্মিকভাবে একটি বোমা বিস্ফোরিত হলে তার বাম হাতের দুটি আঙ্গুল উড়ে যায়। আহত রজব মিয়া ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার আখাউড়ার দৌলতবাড়ির একটি মাদ্রাসায় পড়াশুনা করে। ঘটনায় ফুলবাড়ি চা বাগান শ্রমিক বস্তিতে আতঙ্ক সৃষ্টি হলেও তার বাবা চাঁন মিয়া ও স্বজনরা অতিগোপনে আহত ছেলেকে নিয়ে চিকিৎিসার জন্য সিলেট এম এ জি ওসমানী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করেন।

ফুলবাড়ি চা বাগানের ১নং শ্রমিক বস্তির খলিল মিয়া ও সুফিয়া বেগম জানান, বিকট শব্দে বিষ্ফোরণ ঘটে। তারা এসে দেখেন চাঁন মিয়ার ঘরে এ ঘটনাটি ঘটে। মাটির দেয়ালের টিন শ্যাডের ঘরে ঘটনার আলামত বিনষ্ট করতে স্থানটি নতুন করে মাটি দিয়ে লেপে দেওয়া হয়েছে বলে মনে হয়।

পারিবারীকভাবে বিষয়টি গোপনীয়তা রক্ষা করা হয় বলে তাৎক্ষনিকভাবে বিশেষ কিছু জানা যায়নি। ফুলবাড়ি চা বাগানের ব্যবস্থাপক লুৎফুর রহমান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, বাগান পঞ্চায়েতের মাধ্যমে ঘটনার সত্যতা জানতে সময় লেগে গেছে দুইদিন। এরই মাঝে রোববার মৌলভীবাজারের সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার মোল্লা মোহাম্মদ শাহীন সরেজমিন তদন্তে আসলে আসল তথ্য বেরিয়ে আসে। অথচ কমলগঞ্জ থানা পুলিশ বিষয়টি গোপন রাখে।

মৌলভীবাজারের সনিয়ির সহকারী পুলিশ সুপার মোল্লা মোহাম্মদ শাহীন বলেন, সাংবাদিকদের মাধ্যমে বিষয়টি জানতে পেরে গোপনে তদন্ত করে সিলেটে খোঁজে বের করে রোববার রাতে তাকে গ্রেফতার দেখিয়ে চিকিৎসাধীন রাখা হয়েছে। আটক অবস্থায় মাদ্রাসা ছাত্র প্রাথমিক জিজ্ঞসাবাদে স্বীকার করেছে, সে ককটেল বানাতে গিয়ে বিস্ফোরণে সে আহত হয়েছে। সিলেট ওসমানী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে সে ছদ্ধ নামে ভর্তি হয়। এমনকি একবার ওয়ার্ডও পরিবর্তন করে। সে কারণে হাসপাতালে প্রশাসনিক কিছু জটিলতার কারণে আহত মাদ্রাসা ছাত্র রজবকে পুরোপুরি সুস্থ্যতা পর্যন্ত পুলিশি পাহারায় চিকিৎসাধীন রাখা হয়। তবে মাদ্রাসা ছাত্রের দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে তার চাচা কালা মিয়াকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য সোমবার রাতে আটক করা হয়। তার কাছ থেকে আরও গুরুত্বপূণ্য তথ্য পাওয়া যেতে পারে বলেও সহকারী পুলিশ সুপার জানান।

অপর দিকে কমলগঞ্জে এমন এশটি ঘঁনা কমলগঞ্জ থানাপুলিশ কেন গোপন করলো তা নিয়ে রহস্যের জন্ম দিয়েছে। সচেতন মহল মনে করেন উচ্চ পর্যায়ে পুলিশের ভূমিকা ও কেন বা কারা এই বোমা তৈরী করছিল তা তদন্ত করে বের করার প্রয়োজন।

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: