সর্বশেষ আপডেট : ১২ মিনিট ৪৬ সেকেন্ড আগে
বুধবার, ৭ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

‘ইসলামের বিরুদ্ধে গালি দিতে তসলিমাকে ডাকছে ভারতীয় টিভি চ্যানেলগুলো’

228689_1নিউজ ডেস্ক : তসলিমা নাসরিন বাংলাদেশে ইসলাম ও কুরআনের বিরুদ্ধে লেখায় নির্বাসিত হয়েছেন। এখন তিনি ভারতে রয়েছেন। এবার এ দেশের চ্যানেল তাকে ইসলামের বিরুদ্ধে গালি দেয়ার জন্য ডাকছে। এ জন্য কেন্দ্রীয় সরকার দায়ী।’ জাকির নায়েক প্রসঙ্গ তিনি বলেন, ‘জাকির নায়েকের বিরুদ্ধে তদন্ত ঠিক আছে কিন্তু অন্যদের বিরুদ্ধেও তদন্ত হবে না কেন? একতরফা তদন্ত ঠিক নয়।
জম্মু-কাশ্মিরের চলমান পরিস্থিতি নিয়ে গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করেন রাজ্যসভার বিরোধী দলনেতা কংগ্রেসের গুলাম নবী আজাদ। সংসদে কাশ্মির প্রসঙ্গে বলেন, সন্ত্রাসী এবং সাধারণ মানুষের মধ্যে পার্থক্য বুঝতে হবে।
সোমবার রাজ্যসভায় গুলাম নবী আজাদ বলেন, ‘রাজ্যে আজ যে ধরণের পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়েছে এ ধরণের বাতাবরণ ৯০ সালেও ছিল না। আজ কাশ্মিরে সহিংসতায় মৃতদের সংখ্যা ৪৩ জনে পৌঁছেছে।’
তিনি সরকারের উদ্দেশ্যে বলেন, যে ধরণের গুলি সেখানে চালানো হয়েছে তা এই প্রথম ঘটনা। সন্ত্রাসবাদকে রুখে দিতে আমরা যা করেছি তা আপনারা ৫০ বছরেও পারবেন না। সন্ত্রাসী এবং সাধারণ মানুষের মধ্যে পার্থক্য থাকা উচিত।’
তিনি প্রশ্ন তুলে বলেন, ‘সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে যে ধরণের গুলি ব্যবহার করা হয়, তা কী শিশু, বৃদ্ধ এবং নারীদের উপরেও করা উচিত? যদি আপনারা এ ধরণের কাজ করতে থাকেন তাহলে আমরা আপনাদের পাশে নেই, আমাদের দলও থাকবে না। উপত্যাকার সমস্ত হাসপাতাল সহিংসতার শিকার হয়ে আহতরা ভরে গেছে।’
আজাদ বলেন, ‘আমি দোয়া করছি সেখানকার পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয়ে আসুক, যদিও আমি চাইলেই তা হয়ে যাবে না। সেখানে দশ দিন ধরে কারফিউ চললেও পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয়নি। যদি এ ধরণের পরিস্থিতি অন্য রাজ্যে হতো তাহলে একদিনেই সব স্বাভাবিক হয়ে যেত। এ থেকেই বোঝা যায় সেখানকার সাধারণ মানুষের মনের কী অবস্থা।’
আজাদ বলেন, ‘অত্যন্ত নির্দয়ভাবে ছররা গুলি ব্যবহার করা হয়েছে। এ ঘটনায় ১৮০০ জন আহত হয়েছে। হরিয়ানাতে এরকম হয়নি। সেখানেও সহিংসতায় মানুষ মারা গিয়েছিল, সেনাবাহিনী নামাতে হয়েছিল কিন্তু এ ধরণের অস্ত্র তাদের বিরুদ্ধে প্রয়োগ করা হয়নি।
তিনি বলেন, ‘আমি স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীকে বলতে চাই বিষয়টি গুরুত্ব সহকারে নিন। আমি গণমাধ্যমের স্বাধীনতায় বিশ্বাসী। সেখানে ইন্টারনেট বন্ধ, কেবল বন্ধ রয়েছে।’
আজাদ বলেন, ‘আমরা আগে খবরের জন্য প্রতীক্ষা করে থাকতাম। কিন্তু এখন প্রাইম টাইমের নামে হিন্দু এবং মুসলিমদের মধ্যে বিবাদ বাঁধিয়ে দেয়ার কাজ চলছে। ভারতের মানুষ খুব সমঝদার, নইলে এসব চ্যানেল দেখে মারামারি বেঁধে যেত।’
আজ সরকার পক্ষে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিং কাশ্মিরে যা ঘটছে তা পাকিস্তানের মদদে হচ্ছে বলে মন্তব্য করেন। তিনি বলেন, ওদের নাম পাকিস্তান যদিও তারা ‘নাপাক’। কাশ্মিরে বলপ্রয়োগ সম্পর্কে রাজনাথ বলেন, ‘বিক্ষোভের সময় দ্রুত বুলেট ব্যবহার করা উচিত নয়। আমরা কাশ্মিরে পানি কামান এবং কাঁদানে গ্যাস ব্যাবহার করব।’ পার্সটুডে।

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: