সর্বশেষ আপডেট : ১ ঘন্টা আগে
শুক্রবার, ২ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ১৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

ক্রিকেটে গতিরঝড় তোলার আরেক সম্ভাবনা সিলেটের এবাদত হোসেন

ডেইলি সিলেট স্পোর্টস :: শুরুটা ভলিবল দিয়ে আকাশের অতন্ত্র প্রহরী হয়ে বিমানবাহিনীতে যোগদানের পর। এখন তিনি ক্রিকেটের গতির ঝড় তোলার অপেক্ষায়। তিনি সিলেটের মৌলভীবাজারের এবাদত হোসেন।

বড়লেখা উপজেলার কাটলতলী গ্রামের এই তরুণ ১শ৪০ কিলোমিটার গতিতে বল করে হয়েছেন পেসার হান্টের সেরা গতির বোলার।  এরপর জায়গা করে নিয়েছেন বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) তত্ত্বাবধানে পরিচালিত হাই পারফর্মেন্স ইউনিট (এইচপি) ক্যাম্পে।

এবাদত হোসেন আগে পাড়ার মাঠে মাঝে মধ্যে ক্রিকেট খেলেছেন। ক্যারিয়ারের টানেই যোগদেন বাংলাদেশ বিমান বাহিনীতে। ছিলেন বিমান বাহিনীর ভলিবল দলের নিয়মিত খেলোয়াড়।

চাকরি করেন আকাশ রক্ষার মিশনে, সেখানে সময়ে সুযোগে মিললে খেলেন ভলিবল। বিমান বাহিনীর ভলিবল দলের খেলোয়াড়ই তিনি। দীর্ঘ সময়ের খেলা বলে ক্রিকেট নেই বাংলাদেশের সামরিক বাহিনীগুলোতে। তাই ভলিবল নিয়েই মেতে থাকতেন তিনি।

সেই এবাদত এবার ভলিবল খেলোয়াড় থেকে পুরোই গতিদানব। বাংলাদেশের নেক্সট রুবেল হোসেন বলা যেতে পারে তাকে। রবি পেসার হান্ট কার্যক্রমে যেমন উঠে এসে ছিলেন বাংলাদেশ দলের গতিদানব বাগেরহাট এক্সপ্রেস রুবেল, তেমনি রবি পেসার হান্ট কার্যক্রম দিয়েই গতিদানবের পরিচয়টা দিলেন এবাদত হোসেন।Ebadat

১শ৪০ কিলোমিটার গতিতে বল করা পেসারের সংখ্যা নেহাতই হাতেগুণা কয়েকজন। রুবেল, তাসকিন পরেই হয়তো তাই স্থান হবে এবাদতের। তার সাথে লাইন লেংন্থ ঠিক রেখে বল করা এবাদত নিজের যোগ্যতা দিয়েই জায়গা করে নিয়েছেন ক্রিকেট বোর্ডের হাই পারফরম্যান্স ইউনিট এইচপিতে।

এই এইচপি থেকেই আগামিতে যোগান দেওয়া হবে জাতীয় দলের খেলোয়াড়রা। যেটাকে বিসিবির কর্মকর্তারা অবহিত করছেন জাতীয় দলের পাইপ লাইন হিসেবে। জাতীয় দলের খেলোয়াড় বেছে নিতেই বিসিবির এমন আয়োজন।

যেখানে জাতীয় দলের খুব কাছেই দাঁড়িয় আছেন এবাদত হোসেন। এইচপিতে ভালো পারফর্ম করলে ঘরোয়া ক্রিকেটের বড় আসর গুলোতে খেলার সুযোগ মিলবে সহজেই। আর সেখানেই এই গতিদানব বলের গতি ঠিক রেখে লাইন লেংন্থে বল করে সফলতা পেলেই পৌছে যাবেন স্বপ্নের ঠিকানায়।

বিমান বাহিনীর চাকুরীজীবি এবাদত হোসেন হয়ে উঠবেন ক্রিকেট তারকা এটা হয়তো অনেকে কল্পনাও করেনি। তবে এটা সত্য যে, তিনি পরিচয় পেয়ে যাচ্ছেন ক্রিকেট তারকা হিসেবেই।

দুই বছর আগেও এবাদত হোসেন চৌধুরীকে সবাই চিনতো ভলিবল খেলোয়াড় হিসেবে। বিমান বাহিনীর ভলিবল দলে খেলতেন তিনি।

ভলিবল খেলোয়াড় থেকে যে রাতারাতি ক্রিকেট অঙ্গনে ঢুকে পড়বেন এটি হয়তো এবাদত নিজেও জানতেন না। এই ভলিবল খেলোয়াড়ের সামনেই এখন আন্তর্জাতিক মাঠ কাঁপানো ক্রিকেটার হওয়ার সুবর্ণ সুযোগ হাতছানি দিচ্ছে।

-এসএনপিস্পোর্টস

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: