সর্বশেষ আপডেট : ৪১ মিনিট ২৩ সেকেন্ড আগে
শনিবার, ৩ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

কমলগঞ্জে সাংবাদিক এর সাথে ওসির অশুভ আচরণ: থানা পুলিশি সংবাদ প্রকাশ না করার সিদ্ধান্ত

ad1কমলগঞ্জ প্রতিনিধি::
মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জে প্রথম আলো প্রতিনিধি মুজিবুর রহমান রঞ্জু সাথে ওসির ব্যক্তিগত মুঠোফোনে গালিগালাজ করে অশুভ আচরণের প্রতিবাদে কমলগঞ্জে কর্মরত সাংবাদিকরা থানার পুলিশি সংবাদ প্রকাশ না করার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছে। শনিবার (১৬ জুলাই) বেলা ১১টায় কমলগঞ্জ সাংবাদিক সমিতির শমশেরনগরস্থ অস্থায়ী কার্যালয়ে সাংবাদিক আব্দুল হান্নান এর সভাপতিত্বে সভায় কমলগঞ্জে কর্মরত বিভিন্ন জাতীয় পত্রিকার প্রতিনিধি ও স্থানীয় পত্রিকার সম্পাদকের উপস্থিতে এ সিদ্ধান্ত নেন।

জানা যায়, গত বৃহস্পতিবার (১৪ জুলাই বিকাল ৪টা ১৮মিনিটে প্রথম আলো পত্রিকার কমলগঞ্জ প্রতিনিধি মুজিবুর রহমান রঞ্জুকে ব্যক্তিগত মুঠোফান থেকে কমলগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) বদরুল হাসান বলেন, কোনকিছুই হলেই এএসপি (সার্কেল) এর বক্তব্য নেয়া, তাকে বলে দেয়া কেন? এএসপি (সার্কেল) কি তোর বাপ! মাদারচুত, বাঞ্চুত, ফাজলামির জায়গা পাছ না বলে গালিগালাজ করে ফোন রেখে দেন।

প্রথম আলো প্রতিনিধি মুজিবুর রহমান রঞ্জু বলেন, গত বৃহস্পতিবার ১৪ জুলাই প্রথম আলো পত্রিকায় কমলগঞ্জের প্রতিবাদ করায় বখাটেরা এক ছাত্রীর ভাইকে মারধর করলো এ সংক্রান্ত একটি সংবাদ প্রকাশ হয়। ঘটনার পর ছাত্রীর ভাই বাদী হয়ে কমলগঞ্জ থানায় একটি লিখিত অভিযোগ করলেও থানা থেকে কোন পুলিশি তদন্ত হয়নি। সংবাদ প্রকাশে ওইদিন দুপুরে সিনিয়র সহকারি পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) মোল্লা মোহাম্মদ শাহীন নিজে গিয়ে সরজমিন তদন্ত করে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তার উপর ক্ষোভ প্রকাশ করেছিলেন। এতেই ক্ষেপে গিয়ে বিকাল ৪টা ১৮মিনিটে এ প্রতিনিধিকে ব্যক্তিগত মুঠোফোন দিয়ে অশুভ আচরণ করেন। তাৎক্ষনিকভাবে পুলিশ সুপার মোহাম্মদ শাহজালাল ও সিনিয়র সহকারি পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) মোল্লা মোহাম্মদ শাহীন অবহিত করেন। ঘটনার ৩দিন অতিবাহিত হলেও পুলিশ সপুারের কার্যালয় থেকে কোন ব্যবস্থা গ্রহণ না করায় শনিবার বেলা ১১ টায় কমলগঞ্জ সাংবাদিক সমিতির কার্যালয়ে এক জরুরি বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়।’

এ ব্যাপারে শনিবার বিকালে কমলগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা এ প্রতিনিধিকে বলেন, তিনি ছুটিতে আছেন। মুজিবুর রহমান রঞ্জু সাথে ফোনে আলাপ হয়েছে তবে গালিগালাজ নয়।

সভায় সাংবাদিকদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন কমলগঞ্জ পৌরসভার মেয়ার ও সাপ্তাহিক কমলগঞ্জের কাগজ পত্রিকার ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক ও প্রকাশক মো. জুয়েল আহমেদ, কমলগঞ্জ সংবাদ পত্রিকার সম্পাদক মো. সানোয়ার হোসেন, সমকাল প্রতিনিধি প্রনীত রঞ্জন দেবনাথ, মানবজমিন প্রতিনিধি সাজিদুর রহমান সাজু, বাংলাদেশ টুডে প্রতিনিধি পিন্টু দেবনাথ, যায়যায়দিন প্রতিনিধি কামরুল হাসান, ইত্তেফাক প্রতিনিধি নুরুল মোহাইমিন মিল্টন, সংবাদ প্রতিনিধি শাহীন আহমদ, ভোরের ডাক প্রতিনিধি জয়নাল আবেদীন, ফটিকুল ইসলাম প্রমুখ। বক্তরা বলেন, সাম্প্রতিব সময়ে কোন সংবাদ তথ্য জানতে চাইলে ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা বদরুল হাসান সহায়তা না করে নানা ভাবে কটাক্ষ করেন। এ বিষয়টি জেলার উধ্বর্তন পুলিশ কর্মকর্তারা জেনেও কোন ব্যবস্থা গ্রহণ করেননি। তাই সভার সিদ্ধান্তনুয়ায়ী এখন থেকে কমলগঞ্জ থানার পুলিশি সংবাদ প্রেরণ করা হবে না। নিন্দা জানিয়ে সাংবাদিকরা আরো বলেন আগামী সোমবারের মধ্যে উধ্বর্তন পুলিশ কর্মকর্তারা কোন ব্যবস্থা গ্রহণ না করলে জেলার সাংবাদিকদের সমন্বয়ে একটি প্রতিনিধি দল জেলা পুলিশ সুপারের সাথে দেখা করে অভিযোগ দায়ের করবে।

এঘটনায় মৌলভীবাজার জেলার সাংবাদিকবৃন্দ তীব্র নিন্দা ও ক্ষোভ প্রকাশ করে অবিলম্বে প্রয়োজনী ব্যবস্থা গ্রহণ করার জোর দাবী জানান।
সিনিয়র সহকারি পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) মোল্লা মোহাম্মদ শাহীন জানান, কমলগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা বদরুল হাসান দুই দিনের ছুটিতে আছেন। তিনি ফিরলে বিষয়টি খতিয়ে দেখা হবে।

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: