সর্বশেষ আপডেট : ৭ ঘন্টা আগে
শনিবার, ১০ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ২৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

বিশ্বনাথের দেওকলস ইউনিয়ন নির্বাচনের স্থগিতাদেশ বাতিল

01.-daily-sylhet-UP-ect11বিশ্বনাথ প্রতিনিধি::
সিলেটের বিশ্বনাথ উপজেলার দেওকলস ইউনিয়ন নির্বাচনের স্থগিতাদেশ বাতিল করেছেন আদালত। বৃহস্পতিবার ২৩নং আদেশে সুপ্রিম কোর্টের প্রধান বিচারপতির ডেস্ক ১নং আপিল বিভাগ ওই স্থগিতাদেশ বাতিল করেন।

স্থগিতাদেশ বাতিলের বিষয়টি শুক্রবার সকালে মোবাইল ফোনে নিশ্চিত করেছেন মামলার সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবি এটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলমের একান্ত সচিব আলা উদ্দিন ও রীট আবেদনের বাদি আবুল কালাম জুয়েল। তারা জানান, মামলা স্থগিতাদেশ বহালের পক্ষে সুপ্রিম কোর্ট বিভাগের আইনজীবী ছিলেন ব্যারিষ্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন। তবে বিশ্বনাথ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ মাশহুদুল কবির এবিষয়ে এখনও তিনি কিছুই জানেনা বলে জানান।

জানা গেছে, গত ২৮ মার্চ নির্বাচন কমিশন দেশের অন্য ইউনিয়নের সঙ্গে বিশ্বনাথের দেওকলস ইউনিয়নের নির্বাচনের তফশিল ঘোষণা করে। নির্বাচনের তফশিল ঘোষনার পর এই ইউনিয়নে ৪জন চেয়ারম্যান প্রার্থী নির্বাচনে অংশগ্রহন করেন। আ.লীগ মনোনিত প্রার্থী আবুল কালাম জুয়েল, আ.লীগ বিদ্রোহী ফখরুল ইসলাম মতছিন, বিএনপি মনোনিত আলাল আহমদ ও জাতীয় পার্টি মনোনিত সহল আল রাজী। প্রতিক পাওয়ার পরপরই প্রার্থীরা ভোটাদের দ্বারে-দ্বারে ভোট ভিক্ষা চাইতে শুরু করেন। এক পর্যায়ে জমে উঠে ওই ইউনিয়নে নির্বাচনী প্রচার-প্রচারনা। সারা দেশে ন্যায় চতুর্থ ধাপের ইউপি নির্বাচন গত ৭মে বিশ্বনাথের দেওকলস ইউনিয়ন অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল।

কিন্তু সীমানা জটিলতার কারণ দেখিয়ে উপজেলার শাহবাজপুর গ্রামের বাসিন্দা মো. ফারুক মিয়া গত ২০ মার্চ সুপ্রিম কোর্টের হাইকোর্ট বিভাগের রিট পিটিশন (রিট পিটিশন নং ৩২৫৫/২০১৬) দায়ের করেন। পরবর্তীতে গত ১৩ এপ্রিল সুপ্রিম কোর্টের হাইকোর্ট বিভাগের বিচারক শুনানি শেষে ওই ইউনিয়নের তিন মাসের জন্য নির্বাচন স্থগিত রাখার নিদের্শনা দেন। গত ২৮ এপ্রিল নির্বাচন স্থগিতের বিষয়ে উপজেলা নির্বাচন অফিসে কাগজপত্র আসে। কাগজপত্র পাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে উপজেলার নির্বাচন অফিস থেকে প্রার্থীদের জানানো হয় ইউপি নির্বাচন স্থগিত ঘোষনা করা হয়েছে। এমন খবর পেয়ে প্রচার-প্রচারনায় থাকা প্রার্থীরা হতভাগ হয়ে পড়েন। হঠাৎ থেমে যায় তাদের প্রচার-প্রচারনা। ফলে ওই ইউনিয়নের নির্বাচন আন অনুষ্ঠিত হয়নি।

পরবর্তিতে হাইকোর্টে ফারুক মিয়ার করা রীটের ওই স্থগিতাদেশ বাতিলের জন্য সুপ্রীম কোর্টে আবেদন করেন দেওকলস ইউনিয়ন পরিষদের আ.লীগ সমর্থিত চেয়ারম্যান প্রার্থী আবুল কালাম জুয়েল। তার দায়ের করা সুপ্রিম কোর্টে রীট আদেন (মামলা নং ১৮৪৮/১৬)। আবেদনের প্রায় দুই মাস পর ওই স্থগিতাদেশ বাতিল করেন সুপ্রীম কোর্টের আপিল বিভাগ। ফলে দেওকলস ইউনিয়ন নির্বাচনে আর কোনো বাঁধা রইল না।

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: