সর্বশেষ আপডেট : ১১ সেকেন্ড আগে
সোমবার, ৫ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

ক্যামেরনের সঙ্গে ১০ নম্বর ডাউনিং স্ট্রিট ছাড়ছে ল্যারিও

nocredit_119839নিউজ ডেস্ক : প্রধানমন্ত্রীর পদ থেকে আজই পদত্যাগ করছেন ডেভিড ক্যামেরন।বাসা বদলও প্রায় শেষ। এক দিন আগে থেকেই ১০ নম্বর ডাউনিং স্ট্রিট ছাড়ার পালা শুরু করেন তিনি।শপথ নেয়ার পর ডাউনিং স্ট্রিটে প্রবেশে নতুন প্রধানমন্ত্রী টেরেসা মে যাতে কোনো ধরনের বেগ পেতে না হয় সে জন্যেই এই আয়োজন।

ছয় বছর ৬২ দিন প্রধানমন্ত্রীর সরকারি বাসভবনে কাটানোর পর সেই বাড়ি থেকে তার বিদায়ের মহূর্ত নিয়ে ব্রিটেনের পত্রপত্রিকায় গত কয়েকদিন ধরে হালকা মেজাজের নানা খবর ছাপা হচ্ছে।

গতকাল মঙ্গলবার ডেভিড ক্যামেরনের বাসভবনের বাইরে পৌঁছে গেছে তার ঘরকন্নার জিনিসপত্র নিয়ে যাওয়ার জন্য নীল রঙের ভ্যান।

বিভিন্ন পত্রপত্রিকায় লেখা হয়েছে তার ও তার পরিবারের ব্যক্তিগত জিনিসপত্র নিতে ওই ভ্যানে করে এসেছে ৩৩০টি কার্ডবোর্ডের প্যাকিং বাক্স।

ডেভিড ক্যামেরন এই ছয় বছরের ওপর বাস করছিলেন ১১ নম্বর ডাউনিং স্ট্রিটে। স্ত্রী ও তিন সন্তানকে নিয়ে ডেভিড ক্যামেরন এখন কোন্‌ বাসায় থাকবেন তা নিয়েও চলছে নানা জল্পনা। কারণ লন্ডনে তাঁর নিজের বাসভবন তিনি দীর্ঘ মেয়াদে ভাড়া দিয়ে দিয়েছিলেন।

তার পদত্যাগের ঘটনা যেহেতু ঘটল অপ্রত্যাশিতভাবে তাই তার লন্ডনের বাসভবনে তিনি এখনই গিয়ে উঠতে পারছেন না। আর নিয়ম অনুযায়ী মিঃ ক্যামেরনকে তার সরকারি বাসভবন খালি করে দিতে হবে ৪৮ ঘন্টার মধ্যে।

প্রসঙ্গত আমেরিকায় নতুন প্রেসিডেন্টের জন্য সরকারি বাসভবন খালি করে দেবার জন্যবিদায়ী প্রেসিডেন্ট সময় পান দু মাসের বেশি।

শহরতলীতে মিঃ ক্যামেরনের দ্বিতীয় যে বাসভবন আছে সেটি লন্ডন থেকে প্রায় ৭০ মাইল বাইরেহওয়ায় ছেলেমেয়েদের সেখান থেকে স্কুলে যাতায়াতের অসুবিধার কথা শোনা যাচ্ছে। তাই তার সম্ভাব্য নতুন বাসস্থান নিয়ে চলছে নানা আলোচনা।

তবে সবেচেয়ে বেশি করে আলোচনায় এসেছে ডাউনিং স্ট্রিটে পোষা বিড়াল ল্যারির কথা।

২০১১ সালে ডাউনিং স্ট্রিটে ইঁদুরের উৎপাত বন্ধ করার জন্য ল্যারিকে নিয়ে আসা হয়েছিল পোষা জন্তুদের দেখাশোনার একটি আশ্রয়ভবন থেকে।

মিঃ ক্যামেরন তার ব্যক্তিগত বিষয় আশয় সব নিয়ে গেলেও রেখে যাচ্ছেন প্রায় ৫ বছরের পোষা বিড়াল ল্যারিকে। ল্যারি পাচ্ছে নতুন মনিব – নতুন প্রধানমন্ত্রী টেরেসা মে-কে।

ব্রিটেনের বিভিন্ন পত্রপত্রিকায় ল্যারির গল্প এতটা ফলাও করে ছাপানোর একটা কারণ ব্রিটিশদের কুকুর ও বিড়াল প্রীতি সুবিদিত।

অনেক কাগজেই তাই প্রশ্ন উঠেছে ডেভিড ক্যামেরন তার বিড়াল ল্যারিকে কী আপন করে নিতে পেরেছিলেন এই পাঁচ বছরে? নিলে তাকে ফেলে যাচ্ছেন কীভাবে?

তবে ক্যাবিনেট অফিসের একজন মুখপাত্র বলেছেন, ল্যারি বিড়াল হলে কী হবে – সে তো সরকারি কর্মী? সে ডাউনিং স্ট্রিটে তার কাজেই বহাল থাকবে- কাজ করবে অন্য প্রভুর অধীনে।

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: