সর্বশেষ আপডেট : ১৩ মিনিট ৯ সেকেন্ড আগে
শুক্রবার, ৯ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

ভূতোড়ে শহরে বাড়ছে কোলাহল

DailySylheU_Jibon_leadজীবন পাল : ব্যস্ততায় হুমড়ি খেয়ে পড়েছিল মানুষ, সিলেট নগরীর রাত-দিন যেনো সমান হয়ে গিয়েছিল। ব্যস্ত ছিল নগর-বন্দর, রাস্তাঘাট, বিপনীবিতান, হোটেল-রেস্তোরাঁ। এরপরই হঠাৎ অন্ধকারে নিমজ্জিত হয় পুরো সিলেট শহর। রাস্তায় যানবাহন, মানুষের শূন্যতা দেখা দেয়। যেনো ভুতোড়ে সিলেট।

ঈদ উল ফিতরের আগের ব্যস্ততা আর ঈদ দিন থেকে তিন-চারদিন ফাঁকা হয়ে থাকা; এই আপ এন্ড ডাউনের পর আবার স্বাভাবিকতায় ফিরতে শুরু করেছে সিলেট নগরী। খুলতে শুরু করেছে ব্যবসা প্রতিষ্ঠান, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান, অফিস-আদালত। যদিও আকাশে মেঘ থাকায় উপস্থিতি এখনো অনেক কম।

ঈদের ছুটি শেষ, তাই সিলেট নগরী আবার তার প্রকৃত চেহারায় ফিরে এসেছে। ঈদের ছুটি শেষ হতেই নিরবতাকে ছুটি দিয়ে নগরীর চিরচেনা কোলাহল  যেন তার কর্তব্যকর্মে যোগদান করেছে।

এবারের ঈদের ছুটি অন্যান বছরের ঈদের ছুটির তুলনায় বেশি থাকায় কারনে নগরী ছেড়ে যাওয়া মানুষদের একটা অংশ এখনো ঈদের আমেজ সেরে  কর্তব্যকর্মে যোগদান করেনি। তবে নগরীর সরকারী-বেসরকারী প্রায় সকল প্রতিষ্ঠান খোলা থাকতে দেখা গেেেছ। খুলে গেছে নগরীর বড় সড় মার্কেট ও শপিং কমপ্লেক্সগুলো।

শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলো খুলে যাওয়ায় সকাল হতেই অভিবাবকদের তাদের সন্তানদের স্কুলে পৌছে দিতে বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্টানের ফটকের সামনে ভীড় করতে দেখা গেছে। যার কারনে বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের সামনে সৃষ্ট যানজটটাও ছিল চোখে পড়ার মতই।

তবে ইউনিভার্সিটিগুলো খুললে  শিক্ষার্থীরা সিলেটে ফিরে এলে সিলেটের ব্যস্ততা ও কোলাহল পূর্বের মতই বেড়ে যাবে বলে সাধারণ মানুষের অভিমত।  পাবলিক ইউনিভার্সিটিগুলো এখনো না খুললেও বেসরকারী ইউনিভার্সিটিগুলোর ক্লাস শুরু  হয়ে গেছে, যার কারণে  শিক্ষার্থীদের উপস্থিতি থাকলেও হারটা সংখ্যায় আপাতত অনেকাংশে কম।

সিলেট মেট্রোপলিটন ইউনিভার্সিটির ইংরেজী বিভাগের শিক্ষক জয়নুল ইসলাম জানান, ঈদ উপলক্ষে গত ১ জুলাই থেকে ১০ জুলাই পর্যন্ত ইউনিভার্সিটি বন্ধ ছিল। ১১ জুলাই যথারীতি ইউনিভার্সিটি খোলা হয়। ঈদ উপলক্ষে ছুটির পর শিক্ষার্থীদের উপস্থিতি সম্পর্কে জানতে চাইলে তিনি জানান, উপস্থিতির হার ভালই। কয়েকদিনের মধ্যে সেই হার আরো বাড়বে।

সিলেট কৃষি ইউনিভার্সিটির এক কর্মকর্তার সাথে বলে জানা যায়,  ইউনিভার্সিটি খুলবে আগামী ১৭ জুলাই । এর মধ্যে অনেকে ছুটি কাটিয়ে সিলেট চলে এসেছেন। বাকিরা এর মধ্যেই চলে আসবেন।

ক্যাম্পাসের শিক্ষার্থীদের ফিরার ব্যাপারে জানতে চাইলে তিনি জানান, এর মধ্যে একজন দুজন করে শিক্ষার্থীদের ক্যাম্পাসে ফিরতে দেখা গেছে।

এদিকে, ঈদের ছুটির পর বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান খোলার পর কয়েকটি প্রতিষ্ঠানে ছুটি কাটিয়ে অফিসে যোগদান করা কর্মীদের মধ্যে একে অন্যকে ঈদ কৌশল  বিনিময় করতে দেখা যায়।

নগরীর ব্যস্ততা বাড়ার সাথে সাথে নগরীর চিরচেনা যানজটও বেড়ে গেছে। ঈদের ছুটিতে যেখানে নগরীর বিভিন্ন ব্যস্ত সড়কগুলোকে ফাঁকা দেখা গেছে, সেসব সড়কগুলোকে ঈদের ছুটি শেষে দেখা গেছে সেই অসহ্যকর যানজট। সব মিলিয়ে বলা যায়, কয়েকদিনের আগের ফাঁকা সিলেট শহর আর ফাঁকা নেই। নগরী ফিরে গেছে তার প্রকৃত চেহারায়।

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: