সর্বশেষ আপডেট : ৬ মিনিট ১৬ সেকেন্ড আগে
বুধবার, ৭ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

শিশুটির ইজ্জতের মূল্য ১ লাখ ৩০ হাজার টাকা!

download

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি ::
সুনামগঞ্জের তাহিরপুরে ১২ বছরের এক শিশুকন্যাকে পাশবিক নির্যাতনের অভিযোগ পাওয়া গেছে। নির্যাতনের পর সালিশের মাধ্যমে টাকা দিয়ে বিষয়টি মিমাংসা করার চেষ্টা করছে একটি পক্ষ। এ নিয়ে এলাকায় চলছে সমালোচনার ঝড়।

জানা গেছে, উপজেলার উত্তর বড়দল ইউনিয়নের মানিগাঁও গ্রামে ওই ধর্ষিতা শিশুকে ১লাখ ৩০হাজার টাকার বিনিময়ে ধর্ষক পাষণ্ডকে বাঁচানোর চেষ্টা করছেন সালিশ পক্ষ। এই লম্পটের নাম রফিক মিয়া। বয়স আনুমানিক ৩৮ বছর। সে উপজেলার বাদাঘাট ইউনিয়নের বাদাঘাট বাজারের বাসিন্দা ও উত্তর বড়দল ইউনিয়নের মাহারাম গ্রামের ইউনুছ আলীর ছেলে।

এ ব্যাপারে ধর্ষিতার পরিবার ও স্থানীয়রা জানায়, লম্পট রফিক মিয়া বাদাঘাট বাজারে কাপড়পট্টিতে অবস্থিত তার নিজ বাসায় কাজ করার কথা বলে সুন্দরী শিশুকন্যাটিকে  নিয়ে জোরপূর্বক পাশবিক নির্যাতন চালায়। লম্পট রফিক মিয়ার খারাপ প্রস্তাবে রাজি না হলে তার উপর শারিরিক নির্যাতন চালায়।

এই ঘটনার প্রেক্ষিতে অসহায় শিশুটি গত রোববার সকাল ১০টায় থানায় মামলা করতে গেলে বাঁধা দেয় প্রভাবশালী ধর্ষক ও নির্যানকারী রফিক মিয়াসহ তার লোকজন। এদিন রাত ৮টায় ধর্ষিতার বাড়িতে স্থানীয় ইউনিয়ন চেয়ারম্যানসহ এলাকাবাসীকে নিয়ে সালিশ বসেন। সালিশে প্রথমে ৯০ হাজার টাকা পরবর্তীতে ১লাখ ৩০হাজার টাকা পর্যন্ত ইজ্জতের মূল্য নির্ধারণ করে।

কিন্তু টাকার বিনিময়ে এই ঘটনাটি সমাধান দিতে রাজি না হওয়া ধর্ষিতা শিশুকন্যাকে হত্যা করাসহ তার পরিবারের লোকজনকে মামলা দিয়ে হয়রানী করার অব্যাহত হুমকি দিতে থাকে ধর্ষক ও তার লোকজন। অবশেষে আইনশৃংঙ্খলা বাহিনীর কোন সহযোগিতা না পেয়ে অসহায় ধর্ষিতা ও নির্যাতিত শিশুকন্যা ও তার পরিবার প্রভাবশালী ধর্ষনকারীর প্রস্তাব মেনে নিতে বাধ্য হয়।

এ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে উত্তর বড়দল ইউনিয়ন চেয়ারম্যান আবুল কাসেম বলেন, ধর্ষিতার বাড়িতে বসে দুই দফা সালিশের মাধ্যমে ১লাখ ৩০হাজার টাকার বিনিময়ে বিষয়টি সমাধান করা হয়েছে।

রফিক মিয়ার (ধর্ষক) স্ত্রী মুক্তার বেগম হুমকি দিয়ে বলেন, আমাদের হাত অনেক লম্বা, প্রশাসন আমাদের কথায় উঠে বসে, আমাদের বিরুদ্ধে পত্রিকায় লেখালেখি করলেও কেউ কিছুই করতে পারবে না। তাহিরপুর থানার ওসি মোহাম্মদ শহিদুল্লাহ এ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: