সর্বশেষ আপডেট : ১৭ মিনিট ৩ সেকেন্ড আগে
শুক্রবার, ৯ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

শেষ হলো মন্ট্রিয়লের আন্তর্জাতিক জ্যাজ ফেস্টের  ৩৭তম আসর

c33c743b-5676-413e-9dfe-52cdf7f40d07সদেরা সুজন, সিবিএনএ কানাডা থেকে ::  শনিবার মধ্যরাতে সমাপ্তি ঘটেছে মন্ট্রিয়লের সবচেয়ে বৃহৎ উৎসব, আন্তর্জাতিক জ্যাজ ফেস্টিভ্যাল ২০১৬। দশ দিন ব্যাপী৩৭তম জ্যাজের দশম দিন শনিবার, উইকেন্ডে  আবাহাওয়া খারাপ থাকায় জ্যাজ ফেস্টিভ্যালের আয়োজনে বেশ ছন্দপতন ঘটেছে।

ম্যারাথন বৃষ্টির মধ্যেও  মন্ট্রিয়লের প্লাস দ্যাআটসের মঞ্চগুলো ছিলো সঙ্গীত পিপাষু হাজার হাজার মানুষের আনন্দ উচ্ছ্বাস। গত ২৯ জুন থেকে শুরু হয়েছিলো এই বিশাল ফেস্টিভ্যালটি চলছে গতকাল  মধ্যরাত পর্যন্ত। প্রায়আট শতাধীক কনসার্ট অনুষ্ঠিত হয়েছে উৎসব স্থলের বিশাল বিশাল মঞ্চ থেকে। নামি-দামি খ্যাতিনামা শিল্পীদের শোগুলো বাইরে অনুষ্ঠিত হয়েছে।

পাশাপাশি ইনডোরের বিশালহলরুমে অনুষ্ঠিত হয়েছে বিভিন্ন শিল্পীর সঙ্গীতানুষ্ঠান।দশদিন ব্যাপী এই ফেস্টিভ্যালে ক’দিন আবহাওয়া অনকুলে না থাকায় এবং বৃষ্টি হওয়াতে কিছুটা ছন্দপতন ঘটেছে। তারপরেরবিশ্বের বিভিন্ন দেশ থেকে যেমনি নামকরা শিল্পীরা উপস্থিত হয়ে সঙ্গীত পরিবেশন করেছেন ঠিক তেমনি বিভিন্ন দেশ ও শহর থেকে হাজার হাজার সঙ্গীত পিপাষুরা উপস্থিত হয়েসঙ্গীতের তালে তালে নেচেছেন, সঙ্গীত আর যন্ত্রের যাদুকরী স্পর্শে মুগ্ধ হয়েছেন শ্রোতাদর্শকরা।

সবাই অপেক্ষায় থাকবে আগামী বছরের জন্য। এবছর ফেস্টিভ্যালে বিশ লাখমানুষের সমাগম হয়েছে বলে কতৃপক্ষ বলেছেন। গতকাল ৩৭ তম জ্যাজ ফেস্টিভ্যালের শেষদিনে এবছরের জন্য স্পিরিট অ্যাওয়ার্ড  দেওয়া হয়েছে ‘Mozart of pop Rock Brian Wilson কে। জ্যাজ ফিস্টিভ্যালের অন্যতম প্রতিষ্টাতা ভাইস চেয়ারম্যান  আনদ্রে মিনার্ড পদকটি তাঁর হাতে তুলে দেন। ২০০৬ সালে ২৭ তম জ্যাজ ফেস্টিভ্যাল থেকে এই অ্যাওয়ার্ড  দেওয়া শুরু হয়। বিশ্বের নামিদামি খ্যাতিনামা শিল্পদেরকে এই  অ্যাওয়ার্ড  দেওয়া হয়।

এবছরের জ্যাজ ফেস্টিভ্যালে ইনডোর-আউটডোরে একুশটি ছোট-বড় মঞ্চে ৬০৬টি  ইভেন্ট হয়েছে। ত্রিশটি দেশ থেকে খ্যাতিনামা সঙ্গীত শিল্পীরা উপস্থিত হয়েছিলেন মন্ট্রিয়লের আন্তর্জাতিক জ্যাজ ফেস্টিভ্যালে।২০১৯ জন শিল্পী-সহ শিল্পী এবং ৫৯৫ জন যন্ত্রশিল্পী অংশগ্রহণ করেছিলো। পাঁচটি প্রেস কনফারেন্স অনুষ্ঠিত হয়েছে ফেস্ট চলাকালীন সময়ে। ৩৫০ জন অনুমোদিত সাংবাদিক এবং ১২ টি দেশের ১২০ জন বিদেশী সাংবাদিক উপস্থিত ছিলেন এ ফেস্টিভ্যালে। উত্তর আমেরিকা,  ‍ুযুক্তরাজ্য ছাড়াও বিশ্বের বিভিন্ন দেশ  media coverage  করেছে। সেই দেশগুলোর মধ্যে রয়েছে  Brazil, Germany, Indonesia, Belgium, India, Turkey, Switzerland, Pakistan, Italy, Peru, Romania, Serbia, Lebanon, Poland, Argentina, New Zealand, Haiti, Africa, the Netherlands, China, Japan, Bangladesh, Israel, Spain, Russia and Nicaragua. বিভিন্ন দেশের মিডিয়াগুলোতে আড়াই হাজার প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়েছে।

এবছর ফেস্টিভ্যালে ৬০ হাজার লিটার বিয়ার, আড়াই হাজার কেজি ফ্রেঞ্চ ফ্রাই, বিশহাজারের বেশী জ্যাজ আইটেম  বিক্রি হয়েছে। ৯৭৭ জন অস্থায়ী কর্মচারীরা কাজ করেছেন।

গতকাল  মন্ট্রিয়লের এই বিশাল গানের আসর শেষ হলেও মন খারাপের কিছু নেই। আগামী সপ্তাহ থেকেই শুরু হবে জাস্ট ফর লাফস উৎসব। এই হাসির উৎসবটি দেখার মতো।তিন সপ্তাহব্যাপী চলবে এই ফেস্টটি। মন্ট্রিয়লের ডাউন টাউনের প্লেস দ্যা আটসের উৎসবস্থলে। রকমারি আয়োজনে দমফাঁটা হাসির রাজ্যে একবার ঘুরে আসার জন্য মন্ট্রিয়লপ্রবাসীদেরকে অনুরোধ করছি। ভালো লাগবে। দেখা হবে ফের উৎসবস্থলে।

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: