সর্বশেষ আপডেট : ১৫ মিনিট ৬ সেকেন্ড আগে
শুক্রবার, ২ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ১৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

বাংলাদেশে হামলার প্রতিবাদে কলকাতায় মিছিল

photo-1468075650নিউজ ডেস্ক : ঢাকার গুলশানে স্প্যানিশ রেস্তোরাঁ হলি আর্টিজানে সন্ত্রাসী হামলা এবং ঈদের দিন কিশোরগঞ্জের শোলাকিয়ায় জঙ্গি হামলার প্রতিবাদে কলকাতায় মিছিল  হয়েছে। ভারতের পশ্চিমবঙ্গ প্রদেশ কংগ্রেস এই মিছিলের আয়োজন করে।

আজ শনিবার কলকাতার রাস্তায় নেমে বাংলাদেশে এসব হামলার প্রতিবাদ জানানো হয়। মিছিল থেকে বাংলাদেশে জঙ্গি হামলা ও জঙ্গিদের পৈশাচিক নাশকতার তীব্র ধিক্কার জানানো হয়। জঙ্গিদের বিরুদ্ধে সমাজের সকল স্তরে জনমত গঠনের ডাকও দেওয়া হয় এই মিছিল থেকে।

মিছিলটি বিকেল ৩টার দিকে কলকাতার মৌলালির কংগ্রেস কার্যালয় বিধানভবন থেকে শুরু হয়ে ধর্মতলার ওয়াই চ্যানেলে গিয়ে শেষ হয়।  মিছিলে নেতৃত্ব দেন প্রদেশ কংগ্রেসের সভাপতি ও সংসদ সদস্য অধীর চৌধুরী। এ ছাড়া উপস্থিত ছিলেন পশ্চিমবঙ্গ বিধানসভার বিরোধী দলের নেতা আবদুল মান্নানসহ দলের একাধিক বিধায়ক ও নেতা।

বাংলাদেশে সন্ত্রাসী হামলার পরিপ্রেক্ষিতে পশ্চিমবঙ্গেও যেকোনো সময়ে হামলা হতে পারে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করেন প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি। জঙ্গি মোকাবিলায় সরকারের পাশাপাশি জাতিধর্ম নির্বিশেষে সাধারণ মানুষকে সচেতন হওয়ার বার্তা দেন তিনি। সেই সঙ্গে বাংলাদেশের মাটিতে জঙ্গিদের পৈশাচিক বর্বরতার তীব্র নিন্দা করেন তিনি।

মিছিল থেকেই পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য সরকার ও রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে একহাত নেন অধীর চৌধুরী। তিনি বলেন, পশ্চিমবঙ্গের নিরাপত্তা সার্বিকভাবে বেহাল। ভারত-বাংলাদেশ সীমান্তপথে জাল টাকা, শিশু, নারী ও গরুপাচার অবাধে চলছে।

মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় পাচাররোধের জন্য যেসব কথা বলছেন, সেই সব স্রেফ বেকার কথা বলে দাবি করেন তিনি।  অধীর চৌধুরী  প্রশ্ন তোলেন, গত পাঁচ  বছর ক্ষমতায় থেকে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সীমান্তে পাচার রুখতে পারেননি। ওনার চোখের সামনেই সব ঘটেছে।

সীমান্ত এলাকার পুলিশে পোস্টিং পেতে গেলে ওপর তলার নেতাদের বেশি টাকা দিতে হয় বলেও অভিযোগ করেন অধীর। তিনি বলেন, সীমান্তে ডিউটি পেলে রোজগার বেশি। তাই ঢিলেঢালা ভারত-বাংলাদেশ সীমান্ত দিয়ে যেকোনো সময়ে জঙ্গি ঢুকে পশ্চিমবঙ্গে ঢাকার মতো ঘটনা ঘটাতে পারে।

কংগ্রেস নেতা আবদুল মান্নান বলেন,  বাংলাদেশে সন্ত্রাসবাদীরা যেভাবে মাথাচাড়া দিয়ে উঠেছে, তার প্রতিবাদে রুখে দাঁড়াতে হবে আমাদের সবার। প্রতিবেশী দেশের কুপ্রভাব এ দেশেও যে কোনো  সময়ে পড়তে পারে বলে আশঙ্কা করেন তিনি। বাংলাদেশে যে ঘটনা ঘটেছে সেই ঘটনার পুনরাবৃত্তি যেন পশ্চিমবঙ্গের মাটিতে না ঘটে, সে জন্য জনসচেতনতা গড়ে তুলতেই এই মিছিল বলে মন্তব্য করেন তিনি। -এনটিভি

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: