সর্বশেষ আপডেট : ৩২ মিনিট ১৫ সেকেন্ড আগে
সোমবার, ৫ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

গুলশান ট্রাজেডিতে এখনো যত প্রশ্ন

gulshan-trajedy-550x309নিউজ ডেস্ক : গুলশানের হলি আর্টিজান ক্যাফেতে হামলার বিষয়ে এখনো পর্যন্ত যেসব তথ্য জানা যাচ্ছে, তাতে দেখা গেছে শুক্রবার রাতে শুরু হওয়া ঐ ঘটনায় মোট ২৮ জন নিহত হয়েছেন। পুলিশ সদস্যসহ আহত হয়েছেন ৩০জনেরও বেশি।

তবে, এ ঘটনা নিয়ে সরকার প্রধান থেকে শুরু করে প্রতিরক্ষা বাহিনী, আইন শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী এবং স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সংবাদ সম্মেলন করলেও এখনো কিছু প্রশ্নের জবাব পাওয়া যায়নি। হামলাকারী কতজন ছিলেন? এ ঘটনায় পুলিশ কতজনকে আটক এবং জিজ্ঞাসাবাদ করেছে? এসব বিষয়ে সুনির্দিষ্ট তথ্য দেননি কেউই।

ঘটনার শুরুতেই হামলাকারীদের ছোড়া গ্রেনেডে মারা যান দুইজন পুলিশ কর্মকর্তা। এরপর ক্যাফের ভেতরে হামলাকারীরা ২০ জন মানুষকে হত্যা করে। এদের মধ্যে নয়জন ইতালির নাগরিক, সাতজন জাপানের নাগরিক, একজন ভারতীয় নাগরিক, একজন বাংলাদেশী বংশোদ্ভূত অ্যামেরিকার নাগরিক এবং দুইজন বাংলাদেশী নাগরিক।

শনিবার সকালে সেনাবাহিনীর নেতৃত্বে ঐ রেস্তোরাঁয় কমান্ডো অভিযানের পর আইএসপিআরের পক্ষ থেকে এক সংবাদ সম্মেলনে বলা হয়েছিলো ৬ জনকে হত্যা করা হয়েছে এবং একজন ধরা পড়েছেন। যদিও তার পরিচয় জানানো হয়নি। পুলিশ প্রথমে নিহত ঐ ছয়জনকেই জঙ্গি হিসেবে বর্ণনা করলেও, মঙ্গলবার গুলশান থানার একজন পুলিশ কর্মকর্তা বলেছেন, নিহতদের মধ্যে একজন ওই রেস্তোরাঁর কুক ছিলেন বলে তারা পরে জানতে পেরেছেন। তবে ওই কুক নিরাপত্তা বাহিনীর গুলিতে নাকি হামলাকারীদের হাতে মারা গেছেন সে বিষয়ে কিছুই বলেন নি পুলিশের ওই কর্মকর্তা।

আইএসপিআরের বক্তব্যের পর আইএসের দেওয়া পাঁচজন জিহাদির ছবি ইন্টারনেটে ছড়িয়ে পড়ার পর প্রশ্ন উঠে প্রতিরক্ষা বিভাগের বক্তব্য অনুযায়ী আরেকজন হামলাকারী কোথায় গেলো। এদিকে শনিবার সকালে উদ্ধার ১৩ জন সহ মোট ২৭ ব্যক্তিকে গোয়েন্দা পুলিশ কার্যালয়ে নেয়া হয়েছিল বলে পুলিশ জানিয়েছে। পরে তাদের বক্তব্য শুনে যাচাই-বাছাই করে অনেককে ছেড়ে দেওয়া হয়। এদিকে, হলি আর্টিজানে হামলার চারদিনের মাথায় মঙ্গলবার গুলশান থানায় সন্ত্রাস দমন আইনে একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। মামলায় নিহত পাঁচজন জঙ্গিসহ অজ্ঞাতনামা কয়েকজন ব্যক্তিকে আসামী করা হয়েছে। বিবিসি বাংলা-আমাদের সময়.কম

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: