সর্বশেষ আপডেট : ৬ ঘন্টা আগে
রবিবার, ১১ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ২৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

সিলেটে যেভাবে ‘নারী চোর’ চক্র হাতিয়ে নিচ্ছে টাকা (ভিডিওসহ)

Thief_in_Eid_Bazar_dailysylhetশুয়াইব হাসান :: ফুরিয়ে যাচ্ছে সময়। শেষ সময়েও তাদের ব্যস্ততা কমেনি! সিলেটে ঈদকে সামনে রেখে মৌসুমি চোর চক্রের সদস্যরা সক্রিয় হয়ে উঠেছে। শপিংমলে যাওয়া ক্রেতাদের অবস্থা বুঝে কৌশলে হাতিয়ে নিচ্ছে হাজার হাজার টাকা।

গত ১৫ দিনে বিভিন্ন মার্কেট থেকে ৪২জনকে আটক করেছে পুলিশ। এরমধ্যে রয়েছে ‘নারী চোর’ চক্রের ১০ সদস্য। এমন তথ্য দিয়েছেন সিলেট মহানগর পুলিশের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার (মিডিয়া) মুহাম্মদ রহমত উল্লাহ।

এদিকে, চোরচক্রের অন্যতম সদস্য সোমা গত ২৫ জুন নগরীর ব্লুওয়াটার শপিংমলে সহযোগিসহ ধরা পড়ে। এসময় একটি শিশুও তার সাথে ছিল। আটকের পর সে অন্য এক ভদ্র মহিলার কাছ থেকে টাকা চুরি করে নেয়ার কথা স্বীকার করে।

তাকে মূলতঃ সিসি ক্যামেরার ফুটেজ দেখে তাকে আটক করে মার্কেট কর্তৃপক্ষ। সেই ভিডিওটি ডেইলি সিলেট ডটকম এর হাতে এসে পৌঁছেছে। ভিডিওটি নিচে দেয়া হয়েছে।

ভিডিওতে দেখা যায়, শপিং সেন্টারের মূল ফটক দিয়ে প্রবেশ করে সোমা ও তার সহযোগি। সোমার সাথে একটি বাচ্চা ছেলেও ছিল। প্রবেশ করে সোমা কিছুক্ষণ দাঁড়িয়ে থাকে। ফলো করতে থাকে মহিলাদের। একসময় একজন ভদ্র মহিলা একহাতে ব্যাগ, অন্যহাতে নিজের শিশুকে নিয়ে মার্কেটে প্রবেশ করেন। তিনি চলন্ত সিঁড়ি দিয়ে দ্বিতীয় তলায় উঠতে গেলে পিছু নেয় সোমা; সাথে তার শিশুটিও। কিছুক্ষণের মধ্যেই পিছু নেয় সঙ্গী অন্য মেয়ে। দু’জনের পরণেই ছিল বোরখা, তবে সোমবার মুখে নেকাব থাকলেও অন্য মহিলার মুখে ছিল না। সোমার মাথায় হলুদ রঙের ওড়না, আর সঙ্গী মেয়েটির কালো ওড়না।

Suma_Cur

আটকের পর চোর সোমা ও তার সহযোগি

ওই ভদ্র মহিলার বক্তব্য অনুযায়ী চলন্ত সিঁড়িতে হঠাৎ ধাক্কা দেয় সোমা। যেনো সে হঠাৎ পড়ে গিয়েছিল। কিন্তু, দ্বিতীয় তলা থেকে তৃতীয় তলায় উঠতে গেলে একই কায়দায় সোমা এবং পেছন থেকে তার সহযোগি আরেক মহিলা চাপা দেয়। কিছুক্ষণ পরে তিনি দেখতে পান তার হ্যান্ডব্যাগের চেইন খোলা এবং টাকা পয়সা কিছুই নেই। সাথে সাথে ভদ্র মহিলা বিষয়টি মার্কেট কর্তৃপক্ষকে জানান।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে ব্লু-ওয়াটার শপিং সেন্টারের জেনারেল ম্যানেজার মলয় দত্ত মিটু জানান, ক্রেতাদের নিরাপত্তায় পুলিশ নিয়োজিত রয়েছে। আমরা নিজেদের নিরাপত্তাকর্মীও বাড়িয়েছি। নিজে রাত-দিন না ঘুমিয়ে সময় দিচ্ছি। তবুও অনাকাঙ্খিত অনেক ঘটনা ঘটে যায়।

সিলেট নগরীতে ঈদ বাজার করতে এসে এরকম ২০ থেকে ৭০ হাজার টাকা পর্যন্ত হারিয়েছেন অনেকে। পরিবার নিয়ে মার্কেটে গিয়ে তারা নিঃস্ব হয়ে খালিহাতে ফিরেছেন।

পরিবার নিয়ে মার্কেটে যাওয়া শাহানা বানু জানান, তারা ৪জন মহিলা মার্কেটে যান। সিটি সেন্টারে কাপড় কিনতে ভেতরে বসেন। তাদের পাশে এসে বসেন আরো তিন মহিলা। জামা-কাপড় দেখছিলেন। ওইসময় অন্য তিন মহিলা কাপড় পছন্দ না হওয়ায় চলে যান। এরপরই তারা দেখেন তাদের ব্যাগটি পরিবর্তন হয়ে গেছে! ব্যাগে থাকা ৩৫ হাজার টাকা খোয়া গেছে। লজ্জা নিয়ে সকলে বাড়ি ফিরেন।

একটি মার্কেট কর্মচারি জানান, ভদ্রবেশি নারী চোর চক্রের সদস্যরা খুব সক্রিয়। আপনি অনুমানও করতে পারবেন না, কী কৌশলে তারা হাতিয়ে নেয়।

এ ব্যাপারে পুলিশের একজন উর্ধ্বতন কর্মকর্তা একটি মামলার তদন্ত ও আসামীর স্বীকারুক্তির বিষয়টি তুলে ধরে বলেন, ভদ্র মহিলাদের অভ্যাস তারা নিজের ব্যাগ পাশে রেখে মার্কেট করেন। এসময় মহিলা চোরেরা ক্রেতা সেজে পাশে বসে নিজেদের ব্যাগ ওই ভদ্রমহিলাদের পাশে রাখে। একই কায়দায় তারা কাপড় যাচাই করে এবং সুযোগ পেলেই তারা ব্যাগ পরিবর্তন করে নিয়ে যায়।

সিলেট মহানগর পুলিশ কর্মকর্তা রহমত উল্লাহ বলেন, এবার নগরীর প্রতিটি শপিংমল, বিপনি বিতানে বিশেষ নিরাপত্তা জোরদার করা হয়েছে। পোশাকে ও সাদা পোশাকে পুরুষ ও নারী পুলিশ সদস্য দায়িত্বে রয়েছে। এ কারণে এখন পর্যন্ত ৪২জন ধরা পড়েছে।

সর্বশেষ মঙ্গলবার (৪ জুলাই) সিলেটের নারী চোরচক্রের গ্যাংলিডার কমলাকে আটক করা হয়েছে। নগরীর জিন্দাবাজারের শুকরিয়া মার্কেট থেকে ক্রেতা ও ব্যবসায়ীরা কমলা ও তার মেয়েকে আটক করে পুলিশে সোর্পদ করেন। কমলা আখালিয়াস্থ গুয়াবাড়ি এলাকায় বসবাস করে।
রহমত উল্লাহ বলেন, নগরীতে ঈদ বাজারের নিরাপত্তায় আইনশৃংখলা বাহিনীর তিন হাজারের বেশি সদস্য দায়িত্বরত আছেন। ব্যবসায়ী ও সাধারণ ক্রেতাদের মোটা অংকের টাকা আদান প্রদানে সহযোগিতার জন্য আছে আলাদা টিম। রয়েছে মোবাইল টিমও। কেউ মোটা অংকের টাকা নিয়ে চলতে চাইলে পুলিশ তাকে সহযোগিতা করবে।
এর আগে শুকরিয়া মার্কেট থেকে আরও তিন নারী চোরকে আটক করা হয়েছে। এছাড়া কাজী ম্যানশন থেকে আরো ৩ নারী চোরকে আটক করা হয় রমজানের মাঝামাঝিতে।
একইভাবে পুরুষ ও তরুণ বয়সের ছেলেরা চোর চক্রে জড়িয়ে আছে। ঈদ বাজারে ক্রেতাদের পকেট হাতিয়ে নিতে গিয়ে অন্তত ৩২ জন পুরুষ পুলিশের হাতে আটক হয়।

ভিডিও লিংক:

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: