সর্বশেষ আপডেট : ৫ মিনিট ২৫ সেকেন্ড আগে
রবিবার, ৪ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

ফাঁকা হচ্ছে সিলেট, শেষ সময়েও কমেনি ফ্যাশন হাউজের ব্যস্ততা

Eid photo

শরীফ এহসানুল হক :: দরজায় কড়া নাড়ছে ঈদ। কেনাকাটার ইতিও ঘটতে যাচ্ছে। ফাঁকা হতে শুরু করেছে সিলেট শহর। গ্রামমুখি মানুষের শেষ সময়েও ভরসা হয়ে উঠেছে সিলেটের ফ্যাশন হাউজগুলো। ছোট বড় সব ফ্যাশন হাউজে এখনও ক্রেতাদের উপছে পড়া ভীড়।

মঙ্গলবার সন্ধ্যায় নগরীর নয়াসড়কস্থ ফ্যাশন হাউজ আড়ং এ গিয়ে দেখা যায়, বিভিন্ন শ্রেণিপেশার নারী পুরুষ পরিবার পরিজন নিয়ে এসেছেন। তবে, উচ্চ মধ্যবিত্ত পরিবারের লোকের উপস্থিতি বেশি। নির্দিষ্ট ডিজাইনের শার্ট, পাঞ্জাবি, শাড়ি, জামার প্রতি রয়েছে তাদের আকর্ষণ।

ফ্লোর ম্যানেজার শামিম আহমদ বলেন, “১৯৮২ সালে সিলেটে আড়ং প্রতিষ্টিত হওয়ার পর থেকেই আজ পর্যন্ত কোনদিন ক্ষতির সম্মুখীন হয়নি এবং এ বছরেও এর ব্যতিক্রম হয়নি। বিক্রয়ের পরিমাণও অন্য বছরের চেয়ে বেড়েছে। তরুন-তরুনীদের উপস্থিতি প্রায় সমপর্যায়ে। ক্রেতাসমাগম শেষ দিন পর্যন্ত থাকবে।”

আড়ংয়ে আসা সিলেট মেট্রোপলিটন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী নুসরাত জাহান নূরা ও তার বন্ধবীদের সাথে কথা। তিনি বলেন, “এবারের ঈদে আড়ং এর এসকেডি (সেলোয়ার-কামিজ) পোশাকটি আমার কাছে সবচেয়ে ভাল মনে হয়েছে।” তার সাথে সাথে অন্যান্যরাও একমত পোষণ করেন।

সিলেট ফ্যাশন হাউজগুলোর মধ্যে অন্যতম জনপ্রিয় মাহার সুপারভাইজার মোছা. শবনম আক্তার জানান, “অতিতের ন্যায় এবারেও মাহা তার নামের প্রতি সুবিচার করে আসছে। যার প্রমাণ আপনারা ক্রেতাদের উপস্থিতি দেখলেই বুঝতে পারবেন। “

ইজি আম্বরখানা শোরুমের ব্রাঞ্চ ম্যানেজার ইমরান আহমদ বলেন, ” ইজি পন্যের প্রতি তরুনদের আগ্রহ বরাবরেই বেশি এবং এ বছর তারা তরুনদের যে রকম সাড়া আশা করেছিলেন তারচেয়েও বেশি সাড়া পেয়েছেন।

‘ইজি’ শোরুমের একজন ক্রেতা এমসি কলেজের ছাত্র মাহফুজ রায়হান বলেন, “ইজির টি শার্ট সবসময়েই আমার প্রিয়। তবে এবার ‘ইজি’ কিছু ভাল মানের পাঞ্জাবী এনেছে যেগুলো আমাদের দৃষ্টিনন্দন করতে সক্ষম হয়েছে। “

ব্যাঙ সিলেট শাখার এড়িয়া ম্যানেজার জাহিদ হাসান চৌ. লাভলু বলেন, “আমরা এখন পর্যন্ত ক্রেতাদের যেরকম সাড়া পেয়েছি তাতে আমরা সন্তুষ্ট এবং ক্ষতির কথা চিন্তাও করা যায় না।”

তাছাড়া মল্লিকা, কমলা ভান্ডার, শী, সিগন্যাল, রঙ, প্লাস পয়েন্ট এরকম স্বনামধন্য ফ্যাশন হাউজগুলোতেও ক্রেতাদের উপস্থিতি চোখে পড়ার মত।

শেষ মুহূর্তে ব্যস্ত ক্রেতারা বিশেষ করে চাকুরীজীবী লোকজন কেনাকাটায় বেছে নিচ্ছেন ফ্যাশন হাউজগুলো। তারা জানিয়েছেন, সময় কমে গেছে তাই দামদর করে জামা কাপড় কেনার ইচ্ছে নেই তাদের। তাছাড়া মার্কেটে শেষ সময়ে ভাল মানের কাপড় পাওয়া মুশকিল। এজন্য তারা বেছে নিচ্ছে ফ্যাশন হাউজগুলোকে।

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: