সর্বশেষ আপডেট : ২৩ মিনিট ৩৪ সেকেন্ড আগে
বুধবার, ৭ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

সাহায্য চেয়ে চাচাকে ফোন করেছিলেন তারিশি

photo-1467714857নিউজ ডেস্ক : ‘তারিশি আমাকে ফোন করেছিল। আমার সাহায্য চায় বারবার। বেশ আতঙ্কিত ছিল তা গলা শুনেই বুঝতে পারি। কিন্তু এরপরও আমি পারিনি তারিশিকে বাঁচাতে।’

তারিশি জৈনের চাচা রমেশ মোহন জৈন এনডিটিভিকে এসব কথা বলছিলেন। গত শুক্রবার ঢাকার গুলশানে স্প্যানিশ রেস্তোরাঁ হলি আর্টিজান বেকারিতে হামলা ও হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় নিহত হন তারিশি জৈন। পরের দিন তারিশিসহ ১৭ জন বিদেশি নাগরিকের লাশ উদ্ধার করা হয়।

হামলাকারীরা যখন রেস্তোরাঁয় প্রবেশ করে তখন টয়লেটে আশ্রয় নেন ১৯ বছর বয়সী তারিশি। রমেশ মোহন জানান, টয়লেট থেকেই রমেশকে ফোন করেন তারিশি।

রমেশ মোহন বলেন, ‘তারিশি আমাকে ফোন করে সাহায্য চাচ্ছিল। কিন্তু আমি তাকে বাঁচাতে পারিনি।’

ছুটি কাটাতে বাবা সঞ্জীব জৈনের কাছে ঢাকায় আসেন তারিশি। সঞ্জীব ঢাকায় তৈরি পোশাকের ব্যবসা করেন। কলেজের পড়াশোনা শেষ করে ইউসি (ইউনিভার্সিটি অব ক্যালিফোর্নিয়া) বার্কেলেতে ভর্তি হয়েছিলেন তারিশি।-এনটিভি

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: