সর্বশেষ আপডেট : ৩২ মিনিট ১৯ সেকেন্ড আগে
রবিবার, ৪ ডিসেম্বর, ২০১৬, খ্রীষ্টাব্দ | ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৩ বঙ্গাব্দ |

DAILYSYLHET

‘গুলশান হামলায় প্রশিক্ষিত শিবির’

B_Aডেইলি সিলেট ডেস্ক :: রাজধানীর গুলশানের হলি আর্টিজান বেকারি রেস্তোরাঁয় সন্ত্রাসী হামলায় ‘প্রশিক্ষিত শিবির’ জড়িত থাকতে পারে বলে মন্তব্য করেছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী ও ১৪-দলীয় জোটের মুখপাত্র মোহাম্মদ নাসিম। একই সঙ্গে ওই হামলার ঘটনায় ১১ জুলাই কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে প্রতিরোধ সমাবেশ কর্মসূচির ঘোষণা দেন তিনি।

রোববার দুপুরে ধানমন্ডিতে আওয়ামী লীগের সভানেত্রীর ধানমন্ডির রাজনৈতিক কার্যালয়ে ১৪ দলের বৈঠক শেষে এক সংবাদ সম্মেলনে নাসিম এসব কথা বলেন।

গুলশানের ওই হামলার সঙ্গে কারা জড়িত থাকতে পারে—সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে মোহাম্মদ নাসিম বলেন, ‘যে ছয়জন সন্ত্রাসী নিহত হয়েছে, তারা সবাই এখানকার লোক এবং এখানকার সন্তান। কারা এর সঙ্গে জড়িত, তা আপনারাও বুঝতে পারছেন। প্রশিক্ষিত শিবির যারাই, তারাই এ ঘটনাগুলো ঘটাচ্ছে।’

গুলশানের হামলার নিন্দা জানিয়ে খালেদা জিয়া বিবৃতির প্রসঙ্গ ধরে মোহাম্মদ নাসিম বলেন, ‘এটা একটি রক্তাক্ত অভ্যুত্থান। এ ভাষায় তিনি বিবৃতি দিয়ে প্রকারান্তরে খুনিদের পক্ষ অবলম্বন করেছেন। যেখানে প্রধানমন্ত্রী তাঁর জাতির উদ্দেশে দেওয়া ভাষণে কাউকে আক্রমণ করেননি। অথচ এ ঘটনাকে দুঃশাসনের প্রতিক্রিয়া হিসেবে রক্তাক্ত অভ্যুত্থান অভিহিত করেছেন খালেদা জিয়া। এ বক্তব্যের মধ্য দিয়েই তাঁর খুনিদের পক্ষাবলম্বন প্রকাশ পেয়েছে।’

সংবাদ সম্মেলনকে বের হয়ে এসে সাংবাদিকদের সঙ্গে বিভিন্ন প্রশ্নের জবাবে বেসামরিক বিমান ও পর্যটনমন্ত্রী রাশেদ খান মেনন। তিনি বলেন, ‘এ পর্যন্ত গুপ্তহত্যার যত ঘটনা ঘটেছে, তারা প্রত্যেকে পুলিশি জিজ্ঞাসাবাদে বলেছে, তারা আগে শিবির করত। জামায়াতের পক্ষ থেকে বিশাল অঙ্কের অর্থ সহায়তা করে এ সমস্ত সন্ত্রাসী তৎপরতায় সহায়তা করা হচ্ছে।’

মেনন বলেন, ‘যখন কোনো দল বা গোষ্ঠী মরিয়া হয়ে মাঠে নামে, তখন এ ধরনের ঘটনা ঘটে। আপনারা জানেন, মীর কাসেম আলীর ফাঁসির রায় অপেক্ষমাণ, এটাও একটা কারণ হতে পারে।’ তিনি আরও বলেন, বাংলাদেশে আইএস নেই। কিন্তু আইএসের চিন্তার অনুগামী বহু লোক এখানে থাকতে পারে।

এদিকে গুলশানের ওই নৃশংস হামলার প্রতিবাদে ১৪ দলের উদ্যোগে ১১ জুলাই কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে প্রতিরোধ সমাবেশ করা হবে। ১২ থেকে ২১ জুলাই পর্যন্ত দেশের সব ইউনিয়ন-উপজেলা-জেলায় কবি-সাহিত্যিক–সাংবাদিকসহ সর্বস্তরের জনগণকে সম্পৃক্ত করে ১৪ দল সন্ত্রাসবিরোধী কমিটি গঠন করবে। এ ছাড়া ২৪ জুলাই থেকে পরবর্তী সাত দিনব্যাপী সারাদেশে প্রতিবাদ সমাবেশ করবে ১৪ দল।

১৪ দলের বৈঠকে আরও উপস্থিত ছিলেন তথ্যমন্ত্রী ও জাসদের (একাংশ) সভাপতি হাসানুল হক ইনু, আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য সাহারা খাতুন, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব উল আলম হানিফ ও জাহাঙ্গীর কবির নানক, সাংগঠনিক সম্পাদক আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম, খালিদ মাহমুদ চৌধুরী, কমিউনিস্ট কেন্দ্রের আহ্বায়ক ওয়াজেদুল ইসলাম খান, গণতন্ত্রী পার্টির সাধারণ সম্পাদক শাহদত হোসেন প্রমুখ।

-প্রথম আলো

এ বিভাগের অন্যান্য খবর

নোটিশ : ডেইলি সিলেটে প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, আলোকচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি -সম্পাদক

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

২০১১-২০১৬

সম্পাদকমন্ডলীর সভাপতি : মকিস মনসুর আহমদ, প্রধান সম্পাদক : লিয়াকত শাহ ফরিদী
সম্পাদক ও প্রকাশক : কে এ রহিম, নির্বাহী সম্পাদক: মারুফ হাসান
কার্যালয়: ব্লু ওয়াটার শপিং সিটি, ৯ম তলা, জিন্দাবাজার, সিলেট-৩১০০
ফোন : ০৮২১-৭২৬ ৫২৭ (নিউজ), ০১৭১২ ৮৮ ৬৫ ০৩ (সম্পাদক)
ই-মেইল: dailysylhet@gmail.com

Developed by: